English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার  বুধবার ৩ জুন ২০২০ ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
ই-পেপার  বুধবার ৩ জুন ২০২০
 / ধর্ম / অধীনস্থদের সঙ্গে উত্তম আচরণ
অধীনস্থদের সঙ্গে উত্তম আচরণ
মুশফিক হাবীব
প্রকাশ: শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৯, ৩:১৪ পিএম আপডেট: ২৩.০৩.২০১৯ ৩:২০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

অধীনস্থদের সঙ্গে উত্তম আচরণ

অধীনস্থদের সঙ্গে উত্তম আচরণ

কাজকর্মে সহযোগিতার জন্য লোক রাখার প্রচলন রয়েছে সমাজে। পারিবারিক ও প্রাতিষ্ঠানিক কাজ সূচারুরূপে আঞ্জাম দিতে নিয়োগ দেওয়া হয় তাদের। দোকানে, শপিংমলে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য রাখা হয় সেলসম্যান। হোটেল-রেস্তোরাঁগুলোয় রাখা হচ্ছে হোটেল বয়। এসব কাজের লোকদের মাঝে পুরুষ যেমন আছে, তেমনি আছে নারীও। শহর-নগরের ফ্যামিলিতে দৈনন্দিন কাজেও নিয়োজিত হয় নারী ও মেয়েরা। এরা সবাই যৎসামান্য বেতনের বিনিময়ে নিজেদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে।

কিন্তু পরিতাপের বিষয় হলো, কখনও ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় যদি এদের থেকে কোনো ভুল সংঘটিত হয়ে যায় তাহলে ধমকি-তিরস্কার আর বকাঝকা সহ্য করতে হয় তাদের। বিশেষ করে মেয়ে শিশুদের ওপর চলে অকথ্য ও অমানবিক নির্যাতন। অতি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গৃহকর্তা বা গৃহকর্ত্রীর হাতে উত্তপ্ত খুন্তি দিয়ে শরীরে ছ্যাকা দেওয়ার ঘটনাও প্রকাশিত হচ্ছে দৈনিক পত্রিকার পাতায়। এমনকি নিষ্ঠুরতার পরাকাষ্ঠা দেখিয়ে মেরে ফেলার মতো রেকর্ডও শোনা যায় কোথাও কোথাও।

অথচ রাসুল (সা.)-এর আদর্শ হলো, কাজের লোকদের সঙ্গে অত্যন্ত স্নেহপূর্ণ ও মানবিক আচরণ করা। তারা বড় ধরনের কোনো ভুল করে বসলে মমতার সঙ্গে সতর্ক করে শুধরে দিতে হবে আর ছোট ভুল প্রকাশ পেলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখতে হবে। বিখ্যাত সাহাবি হজরত আনাস বিন মালেক (রা.) দীর্ঘ দশ বছর রাসুল (সা.)-এর ঘরে ও বাইরে নানা কাজ করেছেন। তার সঙ্গে রাসুল (সা.)-এর আচরণ কেমন ছিল সে বর্ণনা দিতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি মদিনায় দশ বছর রাসুল (সা.)-এর খেদমত করেছি। আমি ছিলাম অল্পবয়স্ক বালক। আমার সব কাজ রাসুলের মর্জি মাফিক হত না। কিন্তু এই দীর্ঘ সময় তিনি কখনও আমাকে ধমক দেননি এবং বলেননি যে, এটা কেন করেছ বা এটা কেন করনি?’ (আবু দাউদ : ৪৭৭৪)

অনেক সময় দেখা যায়, কাজের লোকদেরকে অত্যন্ত নিচু দৃষ্টিতে দেখা হয়। নিজেদের আহারপর্ব শেষে খাবারের অবশিষ্টাংশ এদেরকে খেতে দেওয়া হয়। বা বাজার থেকে সরবরাহকৃত উন্নতমানের খাবার পরিবেশিত হয় মালিকপক্ষের দস্তরখানে আর বেচারি কাজের মেয়ের জন্য বরাদ্দ থাকে অনুন্নত দায়সারা গোছের কিছুর ব্যবস্থা। পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে নিজ সন্তানের জন্য শহরের অত্যাধুনিক শপিংমল থেকে কেনা হয় নামিদামি ব্র্যান্ডের পোশাক, ঠিক সন্তানের বয়সি কাজের মেয়েটি বা ছেলেটির হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয় ফুটপাথ থেকে কিনে আনা পুরনো ও ব্যবহৃত কাপড়ের সেট। অথচ ইসলামের শিক্ষা হচ্ছে, তাদেরকেও নিজেদের মানের খাবার ও পোশাক প্রদান করা। হাদিসে এসেছে, রাসুল (সা.) বলেন, ‘তারা তোমাদের ভাই। আল্লাহ তায়ালা তাদেরকে তোমাদের অধীনস্ত করেছেন। অতএব, তোমরা যা খাও তাদেরকেও তা খাওয়াও আর তোমরা যা পর তাদেরকেও তা পরিধান করাও। তাদেরকে সাধ্যাতীত কোনো কাজের আদেশ কর না। যদি করেই থাক তবে তাদেরকে সহযোগিতা কর।’ (বুখারি : ২৫৪৫; মুসলিম : ১৬৬১)

হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেন, ‘যখন তোমাদের কারও সামনে তার সেবক খাবার পরিবেশন করে, তখন সে যদি সেবককে সঙ্গে বসাতে না পারে তাহলে এক লোকমা বা দুই লোকমা যেন তার হাতে তুলে দেয়। কেননা খাবার তৈরির কষ্ট-ক্লেশ সেই সহ্য করেছে।’ (বুখারি : ২৫৫৭; মুসলিম : ১৬৬৩)

কাজের লোকরাও আমাদের মতোই মানুষ। তাই তাদের মানবীয় দুর্বলতাগুলো মেনে নেওয়া উচিত ও ভুল হয়ে গেলে ক্ষমা করা উচিত।

একবার এক সাহাবি এসে রাসুলকে (সা.) জিজ্ঞেস করলেন, ‘হে আল্লাহর রাসুল! আমি আমার কাজের লোককে কতবার ক্ষমা করব? রাসুল (সা.) চুপ থাকলেন। সাহাবি আবার জিজ্ঞাসা করলেন। তারপর রাসুল (সা.) বললেন, ‘প্রতিদিন সত্তরবার।’ (তিরমিজি : ১৯৪৯)
অধীনস্ত লোকদের সঙ্গে আমাদের আচরণ যদি রাসুল (সা.)-এর আদর্শ অনুযায়ী হয় তাহলে এদের মুখে হাসি ফুটবে। আর এদের খুশিতে হেসে উঠবে আমাদের সমাজ ও চারপাশ। আমাদের ওপর খুশি হবেন আমাদের মহান প্রভু।

লেখক : শিক্ষক, জামিয়া আরাবিয়া মিছবাহুল উলুম মুক্তাগাছা, ময়মনসিংহ




সর্বশেষ খবর
লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশি হত্যায় সিআইডির মামলা
করোনায় বিশ্বে মৃত্যু বেড়ে ৩ লাখ ৮২ হাজার, আক্রান্ত ৬৪ লাখ ৮৫ হাজার
১২৫৬ জনকে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ
এন্টিবায়োটিকের অধিক ব্যবহারে মৃত্যু বাড়বে: ডব্লিউএইচও
সচেতনতার প্রয়োজন ব্যক্তি পর্যায় থেকেই: প্রধানমন্ত্রী
করোনায় দেশে আক্রান্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড, মৃত্যু ৩৭
বিশ্ব খাদ্য সংস্থার শুভেচ্ছা দূত তামিম ইকবাল
সর্বাধিক পঠিত
না ফেরার দেশে ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বীর স্ত্রী
আগামী ৩০ মে খুলছে বাণিজ্যিক বিতান ও মার্কেট
বাড়ছেনা ছুটি ,তবে বন্ধ থাকবে গণপরিবহণ
শারীরিক ক্ষতি করার ‘শক্তি হারাচ্ছে’ করোনাভাইরাস!
এবার করোনায় সুন্দরবন কুরিয়ার চেয়ারম্যানের মৃত্যু
বাড়িতে প্রশ্নপত্র পাঠিয়ে প্রাথমিকের পরীক্ষার পরিকল্পনা
দেশের জন্য আরো কঠিন সময় আসছে: কাদের
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-৯৬৬৬৬৮৫, ৯৬৭৫৮৮৫, ৯৬৬৪৮৮২-৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন : +৮৮০-১৯২৬৬৬৭০০২-৩, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-৯৬৬৬৬৮৫, ৯৬৭৫৮৮৫, ৯৬৬৪৮৮২-৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন : +৮৮০-১৯২৬৬৬৭০০২-৩, ই-মেইল : [email protected], [email protected]