English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার শুক্রবার ২৪ জানুয়ারি ২০২০ ১১ মাঘ ১৪২৬
ই-পেপার শুক্রবার ২৪ জানুয়ারি ২০২০
 / জাতীয় / চালের দাম বাড়ায় আমরা খুশি: কৃষিমন্ত্রী
চালের দাম বাড়ায় আমরা খুশি: কৃষিমন্ত্রী
নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রকাশ: শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৩:১২ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

চালের দাম বাড়ায় আমরা খুশি: কৃষিমন্ত্রী

চালের দাম বাড়ায় আমরা খুশি: কৃষিমন্ত্রী

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক জানিয়েছেন , চালের দাম কেজিতে ৪ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে।আর এ মূল্যবৃদ্ধিতে সরকার খুশি।

আজ শনিবার (৭ ডিসেম্বর ২০১৯) দুপুরে রাজধানীর ফার্মগেটে কৃষিবিদ ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে ‘কৃষি তত্ত্ব সমিতি’র ১৮তম বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমাদের চালের উৎপাদন বেড়েছে। আমরা চালে স্বয়ংসম্পূর্ণ। চালের দাম বাড়াতে আমরা খুশি। গত ৮ মাস যাবত চাচ্ছি চালের দাম বাড়ুক। চালের দাম না বাড়লে চাষিরা উৎপাদন খরচ কীভাবে তুলবে? আমাদের ট্রাক যায় প্রতিদিন। ১ ছটাক চাল বিক্রি করতে পারে না। ৩০ টাকা কেজির চাল কেউ নেয় না। ডিলারদের চাপ দেওয়া হচ্ছে মোটা চাল তোলার জন্য, কিন্তু তারা তুলছে না। মোটা চাল খারাপ কিছু না। মোটা চাল খাবে না কেন মানুষ! মোটা চালের দাম একটি টাকাও বাড়েনি। তারপরও মিডিয়া বলছে চালের দাম বেড়েছে।

বিভিন্ন পত্রিকার সংবাদের সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, গত ৮ মাস মিডিয়ায় লেখালেখি হচ্ছে কৃষকরা চালের দাম পাচ্ছে না। পাইকাররা চালের দাম নিয়ে যাচ্ছে। সরকার কিছু করছে না। সুশীল সমাজ প্রচণ্ডভাবে আমাদের সমালোচনা করে আসছিল। নানাভাবে বলেছি, আমরা চেষ্টা করছি কৃষককে ন্যায্যমূল্য দেওয়ার। কিন্তু পারছি না। চাষিরা চাষাবাদ করে, কঠোর পরিশ্রম করে। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে তারা কাজ করে। রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে তারা কাজ করে। রক্ত পানি করে সোনালী ফসল ফলায় তারা। আর সেই কৃষক ধানের সঠিক মূল্য পাচ্ছে না। এজন্য আমরা চিন্তিত ছিলাম। নানারকম কর্ম-পদক্ষেপ নিয়েছি। পলিসি লেভেলে এগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ৮ মাস ধরে মিডিয়া আমাদের সমালোচনা করেছে। কয়েকদিন আগে চালের দাম ৪ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে। সংবাদপত্রে বেশকিছু নিউজ হয়েছে সরকারকে বিব্রত করে। সে প্রতিবেদনগুলোতে বলা হয়েছিল পেঁয়াজের মতো দাম বাড়ছে চালের।

বর্তমান সরকারকে কৃষিবান্ধব অভিহিত করে মন্ত্রী বলেন, কৃষকবান্ধব এই সরকার। এদেশের শতকরা ৬০ থেকে ৭০ ভাগ মানুষ গ্রামে থাকে। গ্রামবাসীদের মূল জীবিকা কৃষি। একথা শুধুমাত্র উপলব্ধি করে থাকেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কৃষকরা যখন ধান বিক্রি করতে পারছিল না। কৃষকের দুঃখ-কষ্টের কথা আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে বলেছিলাম। প্রধানমন্ত্রী নীরবে শুনতেন কৃষকদের দুঃখ-কষ্টের কথা। শুনে তিনি ব্যথিত হতেন, কষ্ট পেতেন।  তখন প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন- সারা জীবন দেখলাম হাড্ডিসার মানুষ। খাবার পায় না। পাণ্ডুর চেহারা। ঘর নাই, চুলা নাই। সে দেশে আজ ধান উদ্বৃত্ত রয়েছে। আবার ধান বিক্রি করা যায় না। এই বিড়ম্বনা আর ভালো লাগে না।

শুধু কৃষি নয় আরও অনেক ক্ষেত্রেই বাংলাদেশে বিপ্লন হয়েছে মন্তব্য করে মন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে কৃষিক্ষেত্রে বিপ্লব হয়েছে, এটা অসাধারণ। বাংলাদেশের অর্থনীতিসহ ও সব ক্ষেত্রে... পদ্মা সেতু, আইসিটি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, শিল্প প্রতিটি ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব সাফল্য এসেছে। সারা পৃথিবীতে নন্দিত হচ্ছে, প্রশংসিত হচ্ছে বাংলাদেশ। সারা পৃথিবীতে আমাদের প্রধানমন্ত্রী আইকন রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে পরিচিতি লাভ করছেন। এটাই আমাদের বিরাট অর্জন। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। বাংলাদেশ একটি উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ হওয়ার ভিত্তি সৃষ্টি করেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা।






সর্বশেষ খবর
ইনটেলের চেয়ারম্যান হলেন বাংলাদেশি ওমর ইশরাক
আগামী ৩০ জুলাই পবিত্র হজ
মিয়ানমার রোহিঙ্গা গণহত্যার দায় এড়াতে পারে না: আন্তর্জাতিক আদালত
ছাত্রলীগের কারণেই প্রধানমন্ত্রীকে গদি ছাড়তে হবে : ভিপি নুর
লুকিয়ে নয়, প্রকাশ্যে ধর্ষকদের ফাঁসি দিতে বললেন কঙ্গনা
কারো দ্বারস্থ না হয়ে আমরা নিজের পায়ে দাঁড়াবো: প্রধানমন্ত্রী
ফরিদপুরে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সে ডাকাতি!
সর্বাধিক পঠিত
স্ত্রীকে খুনের দায়ে ৫ বছরের জেল ফাহমির !
পেট্রোল চুরি করতে গিয়ে পাইপলাইনে বিস্ফোরণ, নিহত ৪
রোহিঙ্গা গণহত্যা: আগামীকাল গাম্বিয়ার মামলার রায়
ফ্লাইট বিলম্বে সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ ৫ লাখ টাকা
বিশেষ বিমানে পাকিস্তান যাচ্ছে টাইগাররা!
টি-২০ সিরিজের আগে লাহোর থেকে তিন অস্ত্রধারী গ্রেফতার
সোনাইমুড়ীতে ত্রিভুজ প্রেমের বলি রিয়া মনি
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-৯৬৬৬৬৮৫, ৯৬৭৫৮৮৫, ৯৬৬৪৮৮২-৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন : +৮৮০-১৯২৬৬৬৭০০২-৩, ই-মেইল : [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-৯৬৬৬৬৮৫, ৯৬৭৫৮৮৫, ৯৬৬৪৮৮২-৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৯৬১১৬০৪, হটলাইন : +৮৮০-১৯২৬৬৬৭০০২-৩, ই-মেইল : [email protected], [email protected]