English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০ ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
ই-পেপার শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০
 / অর্থনীতি / আজ আসছে নতুন মুদ্রানীতি
আজ আসছে নতুন মুদ্রানীতি
নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রকাশ: বুধবার, ২৯ জুলাই, ২০২০, ১০:০৩ এএম আপডেট: ২৯.০৭.২০২০ ১০:০৭ এএম | অনলাইন সংস্করণ

আজ আসছে নতুন মুদ্রানীতি

আজ আসছে নতুন মুদ্রানীতি

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত অর্থনীতি। এমন নাজুক পরিস্থিতিতে বেসরকারি ঋণ বাড়ানো চ্যালেঞ্জ নিয়ে আজ বুধবার (২৯ জুলাই) ২০২০-২১ অর্থবছরের নতুন মুদ্রানীতি প্রকাশ করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

প্রতিবার সংবাদ সম্মেলন করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা মুদ্রানীতি ঘোষণা করেন।  তবে এবার করোনার কারণে আনুষ্ঠানিকতা ছাড়া শুধু ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে নতুন মুদ্রানীতি।

নতুন মুদ্রানীতিতে সরকার ঘোষিত প্রণোদনার ঋণ সঠিকভাবে বাস্তবায়নের বিষয়েও ব্যাংকগুলোর জন্য দিক-নির্দেশনা থাকবে।

মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ ও কাঙ্ক্ষিত প্রবৃদ্ধি অর্জনের মধ্যে ভারসাম্য রাখতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক আগে বছরে দুইবার মুদ্রানীতি প্রণয়ন ও প্রকাশ করত।  ছয় মাস অন্তর এই মুদ্রানীতি একটি অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকে অর্থাৎ জুলাই মাসে এবং অন্যটি জানুয়ারি মাসে প্রকাশ করা হতো।  কিন্তু গতবছর থেকে অর্থবছরের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে বছরে দুইবার নয়, একবার মুদ্রানীতি ঘোষণার নিয়ম চালু করা হয়েছে।

দেশের আর্থিক ব্যবস্থাপনায় মুদ্রানীতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  এর মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ ঋণ, মুদ্রা সরবরাহ, অভ্যন্তরীণ সম্পদ, বৈদেশিক সম্পদ কতটুকু বাড়বে বা কমবে এর একটি পরিকল্পনা তুলে ধরা হয়।

এদিকে মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংক এরই মধ্যে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।  বিশেষ করে প্রণোদনার মাধ্যমে ক্ষুদ্র, মাঝারি শিল্প, বড় শিল্প ও সেবাখাত, রফতানি ও কৃষিসহ সব পর্যায়ে উৎপাদন ঠিক রাখতে ঋণ জোগান বাড়ানোর লক্ষ্যে নির্ধারণ করা হয়েছে।  এজন্য সরকারের সুদ ভর্তুকির আওতায় কম সুদে ঋণের জন্য কয়েকটি পুনঃঅর্থায়ন তহবিল গঠন করা হয়েছে।  এসব তহবিল থেকে ঋণ বিতরণের মাধ্যমে উৎপাদন বাড়ানো এবং কর্মসংস্থান ঠিক রাখা অন্যতম লক্ষ্য।  সরকার নির্ধারিত ৮ দশমিক ২০ শতাংশের কাছাকাছি জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য অর্জন এবং মূল্যম্ফীতি ৫ দশমিক ৪০ শতাংশে সীমিত রাখার লক্ষ্যকে সামনে রেখে মুদ্রা সরবরাহ বাড়ানোর প্রাক্কলন করা হবে নতুন মুদ্রানীতিতে।

সদ্যসমাপ্ত অর্থবছরের জন্য ঘোষিত মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ঠিক করা হয়েছিল ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ। কিন্ত অর্জন হয় মাত্র ৮ দশমিক ৬১ শতাংশ, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেক কম। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বেসরকারি খাতে ঋণ বাড়ানোর লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ।  তবে শেষ পর্যন্ত প্রবৃদ্ধি হয় ১১ দশমিক ২৯ শতাংশ।  এর আগের অর্থবছর শেষে প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ১৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ।




সর্বশেষ খবর
এবি ব‌্যাংকের সাবেক চেয়ারম‌্যানসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
‘করোনায় বিশ্বেও অর্থনৈতিক উন্নয়ন ধরে রেখেছে বাংলাদেশ’ : প্রধানমন্ত্রী
অবশ্যই সবাইকে সক্রিয় থাকতে হবে : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
গৃহবধূর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিল স্বামী
দুষ্টের দমন ও শিষ্টের লালন নীতি অনুসরণ করে আ. লীগ
প্রয়াত অভিনেত্রী লরেনের স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে
যেভাবে জাতীয় পরিচয়পত্রের ভুল সংশোধন করবেন
সর্বাধিক পঠিত
এক কাতলের দাম ২০ হাজার ২৫০ টাকা
বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে রাতভর ধর্ষণ
লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মাস্ক না পরায় ৩৮ জনকে জরিমানা
একত্রে থাকার শর্তে একদিনেই ৪৭ দম্পতির মামলা নিষ্পত্তি
ভারতে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’
সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরলেন আজিজুল হাকিম
আলিয়াকে ছেড়ে অন্য নারীর সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছেন রণবীর!
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]