English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার রোববার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১২ আশ্বিন ১৪২৭
ই-পেপার রোববার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০
 / অপরাধ / পূর্বাচল মডেল স্যাটেলাইট টাউনের প্রতারণা, ৩শ কোটি টাকা নিয়ে উধাও
পূর্বাচল মডেল স্যাটেলাইট টাউনের প্রতারণা, ৩শ কোটি টাকা নিয়ে উধাও
মোহাম্মদ হোসেন :
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৪:১৯ পিএম আপডেট: ০৩.০৯.২০২০ ৪:২৬ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

গতকাল বুধবার জাতীয় প্রসেক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন বিভিন্ন বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্যসহ অসংখ্য সরকারি কর্মকর্তা - কর্মচারীরা

গতকাল বুধবার জাতীয় প্রসেক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেন বিভিন্ন বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্যসহ অসংখ্য সরকারি কর্মকর্তা - কর্মচারীরা

আবাসন প্রতিষ্ঠানের নামে কথিত ব্যবসা খুলে একটি চক্র হাতিয়ে নিয়েছে কমপক্ষে তিনশ কোটি টাকা। বিভিন্ন বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্যসহ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের টার্গেট করে ষড়যন্ত্রের জাল বিস্তার করেছে তারা। তাদের ফাঁদে পড়ে অধিক লাভের আশায় অনেকে জীবনের শেষ সম্বল তুলে দিয়েছেন তাদের হাতে। গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে এমন অভিযোগ করেন উইং কমান্ডার (অব:) মীর আমিনুল ইসলাম সহ বিভিন্ন বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সদস্যসহ অসংখ্য সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

মানববন্ধনে অভিযোগ করে বলা হয়, ‘অনুমোদনহীন এই প্রতিষ্ঠানটি বনানীর মতো অভিজাত এলাকায় অফিস খুলে গত দেড় বছর ধরে দেদার ব্যবসা করে যাচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে প্রায় ১৭শ একর জমি কেনা আছে দাবি করা হলেও প্রতিষ্ঠানটির মালিকানাধীন ৫০ একর জমিরও অস্তিত্ব মেলেনি। এমন প্রেক্ষাপটে তারা দুই সহস্রাধিক সদস্যের কাছে প্লট বিক্রির নামে তাদের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। কিন্তু কাউকেই জমি বা প্লট বুঝিয়ে দিতে পারেনি। ‘পূর্বাচল মডেল স্যাটেলাইট টাউন লিমিটেড’ ও ‘মেগা স্যাটেলাইট সিটি লিমিটেড’ নামে এই প্রতারণার জাল বুনেছে চক্রটি।’

বক্তব্যে অভিযোগ  উইং কমান্ডার (অবঃ) মীর আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘হাবিবুল ইসলাম জয়, ওয়াহেদুল ইসলাম রানা, সালাহউদ্দিন আহমেদ, রেজাউল করিম এবং আরও কিছু সংখ্যক প্রতারক লোক বনানী ও উত্তরাতে পূর্বাচল মডেল স্যাটেলাইট টাউন লি:,মেগা স্যাটেলাইট সিটি লি: ও মেগা ট্রান্সপোর্ট লি; নামে কয়েকটি ভ‚য়া কোম্পানী ২০১৮ সালের জুলাই থেকে পরিচালনা শুরু করে। বনানীর ই ব্লকের ১৯/এ নম্বর রোডের ২২ নম্বর বাড়ির তৃতীয় তলায় করর্পোরেট অফিস রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির।
 
ভুক্তভোগী মোঃ মহিউদ্দিন বলেন, এই প্রতারক চক্র এখনো বহাল তবিয়তে রয়েছে। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানাই, যেনো এদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের দৃষ্টান্তমূলক শান্তির মাধ্যমে ভবিষ্যতের জন্য একটা সতর্ক বার্তা ছড়িয়ে দেয়া হোক। 

সরিজমিনেও একই চিত্র দেখা যায়, ‘বিভিন্ন কক্ষে সাজানো চেয়ার টেবিলে আগ্রহী বিনিয়োগকারীদের বোঝানো হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটির দুজন কর্মকর্তা এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘এখানে জমি বা প্লটে বিনিয়োগ করতে হবে একটু ভিন্নভাবে। মানে এখানে বিনিয়োগের বিপরীতে মুনাফা ও জমি দুটো একসঙ্গে মিলবে। প্রতি কাঠা জমি সাত লাখ টাকায় ‘কেনা’ও যাবে। মানে এটাকে তারা ক্রয় না বলে বলছেন ‘বিনিয়োগ’। এই বিনিয়োগ করার সঙ্গে সঙ্গে প্রতি মাসে এক লাখে ছয় হাজার টাকা করে মুনাফা দেবে প্রতিষ্ঠানটি। এভাবে ১৬ মাস মুনাফা দেওয়ার পর বিনিয়োগকারী চাইলে মূল টাকা ফেরৎ নিতে পারেন অথবা কাঠা প্রতি ৭ লাখ টাকা দিয়ে জমিও নিতে পারবেন, উল্লেখ করেন ওই দুই কর্মকর্তা। 

তারা জানান, ইতোমধ্যে প্রায় তিন হাজার সদস্য তাদের প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করেছেন। এর মধ্যে প্রায় সবাই বিভিন্ন বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মাঠ পর্যায়ের সদস্য। তাদের মধ্যে বেশিরভাগই সাবেক সেনা সদস্য।’

প্রতিষ্ঠাটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছে শাহরিয়ার জয়, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. রানা, পরিচালক (অর্থ) রেজাউল করিম ও তার স্ত্রী ডিএমডি পিংকি আক্তার, পরিচালক সাইদুর রহমান সাইদ এবং পরিচালক মো. কামাল। 

তাদের মধ্যে শাহরিয়ার জয় ছাড়া বাকি সবাই এর আগে বিভিন্ন সময় আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে বন্ধ হয়ে যাওয়া নিউওয়ে, নিউলাইফের মতো প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ ব্যবস্থাপনায় যুক্ত ছিলেন। প্রতারণার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাদের সবার বিরুদ্ধেই।

সরেজমিন অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা যায়, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের আগলা, বাগলা ও রাহেলা গ্রাম তিনটিতে সাইনবোর্ড টাঙিয়েছেন কথিত এই আবাসন প্রতিষ্ঠানটি। পরিচয় গোপন করে জমির ক্রেতা হিসেবে এই প্রতিবেদক সেখানে গেলে গ্রামের মানুষ জড়ো হন। তারা জানান, জমি না কিনে মালিকের কাছ থেকে ভাড়া নিয়ে সাইনবোর্ড টাঙিয়েছেন পূর্বাচল মডেল স্যাটেলাইট টাউন লিমিটেড। সামান্য কিছু জমি কিনেছেন। বছরভিত্তিক নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা ভাড়া পরিশোধ করেন তারা। গ্রামের জলাশয়, খালেও সাইনবোর্ড টাঙিয়ে রাখা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির কাছ থেকে জমি কেনার কথা জানানো হলে গ্রামের বয়স্ক ব্যক্তিরা এক প্রকার ক্ষেপে যান। তারা এ প্রতিবেদককে বলেন, আপনারা জমি কেনার জায়গা পান না। এই বাটপারদের কাছ থেকে জমি কিনবেন? ওদের জমি আছে এখানে কতটুকু? ঢাকায় তারা ১ হাজার ৭০০ বিঘা জমি এখানে কেনার কথা প্রচার করলেও তারা উল্টো প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, এখানে তাদের বড় জোর ২০ বিঘা জমি আছে?

এসব র্দুর্নীতি, অনিয়ম ও লুটপাটের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) শাহরিয়ার জয় বলেন, ‘আমাদের কাগজপত্র নাই। কিন্তু রিডিম পূর্বাচল সিটির সঙ্গে যৌথভাবে ব্যবসা করছি।’ তাদেরও অনুমোদন নেই জানানো হলে তিনি বলেন, ‘আপনি দেখা করেন। সব কাগজপত্র দেখাব।
অভিজাত এলাকায় অফিস খুলে প্রকাশ্যে প্রতারণা করলেও এখনো প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। বনানী থানার ওসি ফরমান আলী বলেন, এমন অফিস আমাদের থানা এলাকায় চালানোর বিষয়টি জানা ছিল না। সুনির্দিষ্ট তথ্য পেলে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব।




সর্বশেষ খবর
দুশ্চিন্তা কমাতে যেসব নিয়ম মেনে চলবেন
কোষ্ঠকাঠিন্য কমাতে ঘি মিশ্রিত পানি পান করুন
লা লিগায় শততম জয়ের মাইলফলকে রিয়াল কোচ জিদান
করনায় ভ্রমনে গেলে যেসব বিষয় মাথায় রাখবেন
হ্যালোউইন পার্টিতে নেশায় বুঁদ ছিলেন দীপিকা !
প্যাকেট ছাড়া সিগারেট বিক্রি নিষিদ্ধ
এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় কাউকে ছাড় নয়: কাদের
সর্বাধিক পঠিত
সাংবাদিক সেলিমকে মধ্যরাতে তুলে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ
যে ৫ গাছ বাড়ি থেকে পোকামাকড় তাড়াবে
নুর অপরাধ করলে বিচার করুন কিন্তু হয়রানি নয় : ডা. জাফরুল্লাহ
সৌদিতে ভারতসহ তিন দেশের নাগরিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা
সরকার পতনের জন্য গোপনে যতই বৈঠক করুক, কোনো লাভ নেই : কাদের
পরাজিত হলেও শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন না ট্রাম্প
আগামী ১ অক্টোবর থেকে সৌদির বাতিল হওয়া সব ফ্লাইট চালু
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]