English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০ ৮ কার্তিক ১৪২৭
ই-পেপার শুক্রবার ২৩ অক্টোবর ২০২০
 / রাজনীতি / মণি ভাই বললেন তুমিও চাকরি করবা
মণি ভাই বললেন তুমিও চাকরি করবা
বিশেষ সাক্ষাৎকারে মমিনুল ইসলাম বাকের
প্রকাশ: শুক্রবার, ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৬:৪৩ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

মণি ভাই বললেন তুমিও চাকরি করবা

মণি ভাই বললেন তুমিও চাকরি করবা

আওয়ামী লীগের প্রবীণ মুখদের মধ্যে তিনি অন্যতম। ১৯৬২ সালে হামিদুর রহমান শিক্ষা কমিশন বাতিলের আন্দোলনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে ছাত্ররাজনীতি শুরু করেন। রাজপথের অব্যাহত সংগ্রাম আর নেতৃত্বের অদম্য টানে তিনি বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও রাজনীতির পথেই পা বাড়ান। এক্ষেত্রে শেখ ফজলুল হক মনির অনুপ্রেরণায় তিনি হয়ে ওঠেন পুরোদমে একজন রাজনীতিবিদ। নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মমিনুল ইসলাম বাকের নানা বিষয়ে পুরোদমে প্রাণখুলে কথা বলেছেন দৈনিক বাংলার সাথে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক আনোয়ার বারী পিন্টু 

রাজনীতির শুরুটা কখন থেকে? 
ওই যে কমিশন বাতিলের দাবিতে পিকেটিংয়ের মাধ্যমে। তখনই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে যাই। ’৬৪ সালে এসএসসি পাস করে চৌমুহনী এসএ কলেজে ভর্তি হই। তখনই সক্রিয় কর্মী। ’৬৫ সালে বৃহত্তর নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন। সিরাজুল আলম খান প্রধান অতিথি ছিলেন। তিনি পূর্ব পাকিস্থান ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। তখন আমার বক্তব্যে মুগ্ধ হয়ে সিরাজুল আলম খান তার গলা থেকে মালা খুলে আমার গলায় পরিয়ে দেন। তখন আমাকে নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক করা হয়। 
ছাত্র সংসদ নির্বাচন কি তখন ছিল? 
ছিল, তখন আমি ছাত্রলীগ থেকে জিএস পদে মনোনয়ন লাভ করি এবং বিজয়ী হই। একই বছরে আবার বৃহত্তর নোয়াখালী জেলা সম্মেলনে মাহমুদুর রহমান বেলায়েত সভাপতি, জয়নাল হাজারী সেক্রেটারি এবং আমি সহ-সভাপতি নির্বাচিত হই। ১৯৬৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে ভর্তি হই। ’৭০ সালের নির্বাচনে সক্রিয় ভূমিকা গ্রহণ করি। ’৭১ সালে স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশগ্রহণ করার কারণে আমার এলএলবি হয়নি। 
ওই সময়ের কোনো স্মৃতি এখনো মনে পড়ে?
যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মনি ভাই আমাকে অন্তর দিয়ে ভালোবাসতেন। বাংলাদেশে প্রথম বিসিএস পরীক্ষায় আমি নিয়োগ পাই। আমার নিয়োগপত্র আমি বাংলার বাণীতে এসে মনি ভাইকে দেখানোর পরে মনি ভাই ধমক দিয়ে বললেন, তুমিও চাকরি করবা? ওনার এই কথার পর আমি আর চাকরিতে যোগ দিই নাই। তখন যারা যোগ দিয়েছেন তারা অনেকেই যুগ্ম সচিব, অতিরিক্ত সচিব হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন। 
বঙ্গবন্ধুর সাথে দেখা হয়েছে কি না? 
আমি সব সময় দলের মূলধারায় ছিলাম। ছাত্রলীগ, যুবলীগ এবং আওয়ামী লীগ রাজনীতি করায় বহুবার আমার যাওয়ার সুযোগ হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সাথে এক টেবিলে বসে ভাত খেয়েছি। ১৯৮১ সালে এছাড়া হোটেল ইডেনে সভাপতি হিসেবে যখন বঙ্গবন্ধুর কন্যার নাম প্রস্তাব করা হয় সেই সম্মেলনে আমি নোয়াখালী থেকে একজন তরুণ কাউন্সিলর হিসেবে যোগ দান করি। 
বিসিএস পাস করে চাকরি না যাওয়ায় কি কখনো মন খারাপ হয়েছে? 
কখনোই না। এই অনুভূতি আমার কখনোই আসেনি। এখনো অনেকের চেয়ে আমার মন শক্তিশালী। 
আওয়ামী লীগের দায়িত্বে কত বছর? 
১৯৯৬ সাল থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক এবং সভাপতি হিসেবে দীর্ঘ ২৪ বছর দায়িত্ব পালন করে আসছি। এই সময়ে আমি নেত্রীর সাথে জাতিসংঘের ৭২তম অধিবেসনে ২০১৭ সালে নিউইয়র্ক গিয়েছি। এটাই আমার জীবনে সফলতা আমি মনে করি। 
আপনার নেতৃত্বে দল কতটা শক্তিশালী বা কোনো বিভাজন আছে কি না? 
আমি নেতৃত্বে দেয়ার কারণেই সোনাইমুড়ীতে কোনো সংঘর্ষ হয়নি। এলাকায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ এবং অন্যদলের সাথে কোনো দাঙ্গা নেই। 
এই সময়ে যে দুর্বৃত্তায়ন আপনার দলের কি কোনো দায় নেই? 
এগুলো দুঃখজনক। তবে এটার জন্য আওয়ামী লীগ দায়ী নয়। এটার জন্য ব্যক্তি নেই। মসজিদের জুতা চুরি হলে এ জন্য চোর দায়ী, মসজিদ নয়। 
আপনার এলাকা এতটা ভালো পরিবেশ হলে দীর্ঘদিন কেন পৌরসভা নির্বাচন হয় না? 
এটা নিয়ে হাইকোর্টে সীমানা নিয়ে একটা মামলা চলছে। আশা করি, ডিসেম্বরে তফসিল ঘোষণা হবে। 
আপনি প্রার্থী হবেন কি না? 
অবশ্যই আমি মনোনয়ন চাইব। গত পৌরসভা নির্বাচনে স্পিকার আমাদের সংসদ ভবনে ডেকে বললে এবারের নির্বাচনে বাকের সাহেব ভোট করবে। সবাই মেনে নিয়েছে। এবার আমি মনোনয়ন পাবই। প্রার্থী না হওয়ার বিষয়ে যে কারণগুলো থাকে, এর কোনোটিই আমার জীবনে নেই। 
মেয়র নির্বাচিত হলে আপনার স্বপ্ন কী? 
সুন্দর এলাকায় গড়ে তুলব? রাস্তাঘাটসহ সার্বিক উন্নয়নে কাজ করব। 
যেভাবে কর আদায় হচ্ছে, তেমন সেবা না পাওয়ার অভিযোগ আছে? 
আছে। 
এর দায় কি আপনারা নেবেন না? 
অবশ্যই নিতে হবে। যেহেতু পৌরসভাও সরকারের একটি অংশ। 
সোনাইমুড়ির আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি কেমন? 
বর্তমানে কিছুটা খারাপ। 
সোনাইমুড়ীতে অনেকেই গ্রেফতার হলে দেখি সে আওয়মা লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত? 
তার অপরাধের জন্য, সে গ্রেফতার হয়েছে। 
উপজেলার চেয়ারম্যানরা বেশিরভাগই আওয়ামী লীগ মনোনীত, তারা কতটা সফল?
আমরা সন্তুষ্ট। 
তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আছে কি না? 
না নেই।
ত্রাণ নিয়ে কোনো অভিযোগ আছে কি না? 
না, এ ধরনের কোনো অভিযোগ নেই। 
সোনাইমুড়ীতে রাজনৈতিক দলের সহবস্থান কেমন? 
সুন্দর, কোনো সমস্যা নেই। 
আওয়ামী লীগের কেন কাউন্সিল হচ্ছে না? 
নানা কারণে হচ্ছে না। তবে হয়ে যাবে। 
আপনি কি প্রার্থী হবেন? 
অবশ্যই হব। 
জেলা কমিটিতে কি আপনি প্রার্থী হবেন? 
না, আমি দুই পদ নিতে চাই না। 
ভবিষ্যতে সংসদ সদস্য প্রার্থী হবেন কি না? 
সেটি ভবিষ্যৎই বলে দেবে। 
সোনাইমুড়ীতে গণমাধ্যম কতটা শক্তিশালী? 
তারা ভালো আছে। শুধু তারাই তাদের অস্বীকার করছে, এ ছাড়া কোনো সংকট নেই। 
সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিক সেলিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে, জানেন কি না? 
হ্যাঁ, শুনেছি। 
আপনি তার মুক্তি চান কি না? 
হ্যাঁ, চাই। 
ধন্যবাদ আপনাকে। 
আপনাদেরও ধন্যবাদ। 




সর্বশেষ খবর
একাকিত্ব কাটাতে ৯৫ বছরে বিয়ে, কনের ৮০
বরখাস্ত ইউপি চেয়ারম্যান ইনামুলের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
চালকদের ডোপ টেস্ট করাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
রাশিয়া, ইরানের ওপর ভর করে জিততে চান ট্রাম্প
পিছিয়ে গেল প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনাল
ল্যাপটপ থেকে ভিডিও কল করা যাবে হোয়াটসঅ্যাপে!
সোশ্যাল মিডিয়ায় সাম্প্রদায়িক উসকানি, কঙ্গনাকে থানায় তলব
সর্বাধিক পঠিত
ছেলে বিএনপি করে শুনে মেয়ে বিয়ে দিতে চায় না: ফখরুল
মালাইকাকে বিয়ের ইচ্ছা নেই, কিন্তু চাপ দেওয়া হচ্ছে অর্জুনকে !
মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা হচ্ছে না,অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমেই মূল্যায়ন: শিক্ষামন্ত্রী
ভাতিজিকে কুপ্রস্তাব, রাজি না হওয়ায় মুখে গামছা বেঁধে চাচার ধর্ষণ!
দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে প্রথম স্ত্রীকে সিগারেটের ছ্যাঁকা
এবার আলুর দাম বাড়িয়েছে সরকার
একাকিত্ব কাটাতে ৯৫ বছরে বিয়ে, কনের ৮০
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]