English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ১৩ মাঘ ১৪২৭
ই-পেপার মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১
 / জাতীয় / করোনায় বেড়েছে মানসিক রোগী
করোনায় বেড়েছে মানসিক রোগী
নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রকাশ: বুধবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২০, ১০:৫৫ এএম আপডেট: ২৫.১১.২০২০ ১:৫৪ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

করোনায় বেড়েছে মানসিক রোগী

করোনায় বেড়েছে মানসিক রোগী

করোনায় ঘরবন্দি জীবনে দেশে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে মানসিক রোগীর সংখ্যা। সরকারি হিসাবে পাবনা মানসিক হাসপাতাল ও ঢাকার জাতীয় মানসিক ইনস্টিটিউটের বহির্বিভাগে মহামারীর আগের তুলনায় এখন মাসে প্রায় ৮০০ থেকে ১ হাজার রোগী বেশি আসছে। 

চিকিৎসকরা বলছেন, চাকরি হারানো, ব্যবসায় ধস কিংবা প্রিয়জনের মৃত্যুর সময় কাছে থাকতে না পারার বেদনা থেকে অনেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হচ্ছেন। রাজধানীর জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের চিত্র এটি। বহির্বিভাগে থাকা পাঁচটি রুমের সামনেই মানসিক রোগী কিংবা রোগীর স্বজনদের ভিড়।

স্বাস্থ্যকর্মীরা জানান, করোনাকালে রোগীর সংখ্যা অনেক বেড়েছে। জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বহির্বিভাগে সেবা নিতে আসেন ৪ হাজার ৭৪৭ রোগী। অক্টোবরে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৩৭০-এ। একই অবস্থা পাবনা মানসিক হাসপাতালেরও।

চিকিৎসকরা জানান, করোনাকালে জীবিকা হারিয়েছেন অনেকেই। একই সঙ্গে সংক্রমিত প্রিয়জনের পাশে থাকতে না পারা কিংবা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলছেন অনেকে।

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. গোলাম মোস্তফা মিলন বলেন, এ রকম দু’একজন রোগী আমরা পেয়েছি যারা করোনা আক্রান্ত হয়েছিল পরে আর ওই বিষয় থেকে বের হতে পারেনি। অনেকের আত্মীয়স্বজন, মা-বাবা করোনায় মারা গেছেন। কিন্তু দাফন-কাফন করতে যেতে পারেনি। ফলে নিজেদের মধ্যে অপরাধ বোধ সৃষ্টি হয়েছে। সেখান থেকে তারা বিষন্নতায় চলে গেছে।’

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. শাহানা পারভীন বলেন, কারো আর্থিক সমস্যা, কেউ আবার জব হারিয়েছে। অন্যদিকে কেউ করোনা আক্রান্ত হলে কি হবে, সেটি একটা আতঙ্ক। আবার কেউ প্যানিক ডিসঅর্ডার নিয়ে এসেছেন। আবার অনেকেই আছেন যারা প্রবাস থেকে চাকরি হারিয়ে এসেছেন এবং পরে তাদের ফিরে যাওয়া নিয়ে চিন্তা তৈরি হয়েছে।’

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের সিনিয়র ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট ডা. নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘করোনার কারণে যেমন নতুন রোগী বেড়েছে, তেমনি পুরনো রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে।’
মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মহামারীতে পরিবর্তিত জীবনে অভ্যস্ত হওয়া কঠিন। তাই মানসিক সুস্থতা অটুট রাখার চেষ্টা করতে হবে সবাইকে।

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. বিধান রঞ্জন রায় পোদ্দার বলেন, ‘করোনাকালে মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে আমাকে এভাবে করোনা আক্রান্ত হলেই যে খারাপ কিছু হয়ে যাবে, এমন কিছু নয়।’

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যেহেতু বৈশ্বিক এই মহামারি থেকে সহসাই এই বিশ্ব মুক্তি পাচ্ছে না, সেহেতু এ নিয়ে খুব বেশি আতঙ্কিত বা ভয় না পেয়ে সকলকে অনেক বেশি সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি শতভাগ মেনে চলতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। আর এটি করতে পারলে সাধারণ মানুষের মধ্যে বেড়ে যাবে মানসিক শক্তি।




সর্বশেষ খবর
ফরিদপুরে ৫ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে চোর আখ্যা দিয়ে বেদম পিটুনী
বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পেলেন ১০ জন
ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রশিক্ষণ দিল ডিএসসিসি
সামান্য ধান খাওয়ার অপরাধে গরুটিকে পিটিয়ে হত্যা
ফেনীর মেয়র প্রার্থীর প্রচারণায় হিরো আলম
দেশের সব জেলায় ৪-৫ দিনের মধ্যে পৌঁছে যাবে টিকা : পাপন
দেশে ঋণ খেলাপি ৩ লাখ ৩৫ হাজার
সর্বাধিক পঠিত
কাশিমপুর কারাগারে নারীর সঙ্গে আসামি: জেল সুপার ও জেলার প্রত্যাহার
রঙ্গিন আম ‘বারি-১৪’ দেশের ফল ভাণ্ডারের নতুন সংযোজন
কচুরিপানা পরিষ্কারে বরাদ্দ ৫০ কোটি টাকা !
এবার মুক্তার তৈরি অন্তর্বাসে ঝড় তুললেন নোরা ফাতেহি
১৭১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে গায়িকার বিচ্ছেদ !
রাজধানীতে ঘন কুয়াশা অব্যাহত থাকবে আরও ৩ দিন
এবার পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসির ফল প্রকাশে আইন পাস
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]