English ভিডিও গ্যালারি ফটো গ্যালারি ই-পেপার সোমবার ১ মার্চ ২০২১ ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭
ই-পেপার সোমবার ১ মার্চ ২০২১
 / বিনোদন /  'নাসির প্রথম দিন আমাকে ১০০ টি গোলাপ দিয়েছিল',সুবাহ
'নাসির প্রথম দিন আমাকে ১০০ টি গোলাপ দিয়েছিল',সুবাহ
বিনোদন ডেস্ক:
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৪:৫০ পিএম | অনলাইন সংস্করণ

'নাসির প্রথম দিন আমাকে ১০০ টি গোলাপ দিয়েছিল',সুবাহ

'নাসির প্রথম দিন আমাকে ১০০ টি গোলাপ দিয়েছিল',সুবাহ

সোশ্যাল মিডিয়ায় গতকাল একটি পোস্ট ভাইরাল হয়, যেখানে তামিমা তাম্মির ভাষ্য দিয়ে লেখা হয় নাসির তাকে একটি গোলাপ দিয়েছিলেন। সেই পোস্টের সত্য মিথ্যা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। তবে এই পোস্ট নিয়ে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা শাহ হুমায়রা সুবাহ। তিনি একটি পেইজের পোস্ট শেয়ার দিয়ে ফেসবুকে লেখেন, 'নাসির প্রথম দিন আমাকে ১০০ টি গোলাপ দিয়েছিল।' 

সুবাহ নাসিরের এই নতুন জীবনে পদার্পনে শুভ কামনাও জানিয়েছেন। তবে বিভিন্ন সময় এও বলেন নাসির বিষয় নিয়ে তিনি মাথা ঘামান না। তবে নাসিরের বিয়ের পরের প্রচুর মানুষ সুবাহকে বিরক্ত করছিলেন বলে তিনি জানান। বিরক্ত না করার অনুরোধ জানিয়ে তিনি ফেসবুক লাইভেও এসেছিলেন। 

গত শনিবার ক্রিকেটার নাসির ও সাব্বির নামের এক যুবকের কথোপকথনের অডিও ক্লিপস, ভিডিও আকারে ভাইরাল হয়। সেখানে সাব্বির নামের ওই যুবক দাবি করেন তার স্ত্রী তামিমা, যার সঙ্গে ইতোমধ্যে নাসির পরিণয় সূত্রে আবদ্ধ হয়েছেন। নাসিরের স্ত্রীর নাম তামিমা তাম্মি। এই তাম্মি নাকি সাব্বিরের স্ত্রী যাদের মধ্যে এখনো বিচ্ছেদ ঘটেনি। এমনকী ৮ বছরের একটি বাচ্চাও রয়েছে তাদের। বিচ্ছেদ না দিয়েও অন্যকে বিয়ে করায় সাব্বির থানায় সাধারণ ডায়েরিও করেছেন।

শনিবার সন্ধ্যায় সঙ্গে আলাপকালে রাকিব কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, 'একজনের বউ কীভাবে অন্যজনে বিয়ে করে? আমি আসলে ক্লিয়ারেন্স চাই। সে সাংবাদিকের কাছে বলছে যে আমাকে ডিভোর্স দিছে, কিন্তু ডিভোর্সের কাগজপত্র দেখাতে পারে নাই। তার দাবি, সে ডিভোর্স লেটার পোস্ট করছে। কিন্তু সেই চিঠি আমি বা আমার ফ্যামিলির কেউ পায় নাই। সে (তামিমা) আমার কাছে এসে বলত, যে সে অন্য কাউকে বিয়ে করতে চায়। কিংবা নাসির এসেই আমাকে বলত যে তারা বিয়ে করতে চায়। আমার থেকে ক্লিয়ারেন্স নিয়ে বিয়ে করত। আমি আপত্তি করতাম না। কারণ জোর করে ভালোবাসা হয় না।মেয়েটা ভিডিও দেখে কান্না করছে। সে তার মাকে খুঁজতেছে।'

আর এই বিষয়টিকে হস্তগত করেছেন হুমায়রা সুবাহ। সুবাহ ও নাসিরের প্রেম সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলেরই জানা। সুবাহ লাইভে এসে নাসিরের জন্য কান্নাকাটিও করেছিলেন। তুলে ধরেছিলেন সম্পর্কের গভীরতা। নাসির এই সম্পর্ককে অস্বীকার করে। সুবাহ এটিকে প্রতারণা হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন। তবে সুবাহ এই সময় ভালোই আছেন। 

সাম্প্রতিক সময়ে সুবাহ বলেছেন, 'আমি মাশাল্লাহ অনেক ভালো আছি। এখন আমি সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছি। আমার ৫ টি সিনেমার শুটিং শেষ হয়েছে। সেটি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। এরমধ্যে একটির কাজ চলছে।'

রবিবার দুপুরে সুবাহ ফেসবুক লাইভে আসেন। ওই লাইভ থেকে বোঝা যায় পরিবার নিয়ে সুবাহ পিকনিক করতে গিয়েছেন। লাইভে সুবাহ তার বোন ভাবিসহ পরিবারের সদস্যদের পরিচয় করিয়ে দেন। লাইভের শেষভাগে সুবাহ বলেন, আপনারা সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন আর সাবধানে থাকবেন যাতে আপনাদের বৌ এদিক সেদিক ভাইগা টাইগা না যায়।'




সর্বশেষ খবর
নতুন ঐশ্বরিয়ার সন্ধান মিলল পাকিস্তানে!
জিয়াকে জাতির পিতা বলায় তারেকের বিরুদ্ধে মামলা
ছবির খবর
বেসরকারি হাসপাতালের সেবার 'ফি' নির্ধারণ করবে সরকার
নোয়াখালীতে ভোটকেন্দ্রের বুথেই মারা গেলেন বৃদ্ধ
আগামীতে ইউপি নির্বাচনে আর অংশ নেবে না বিএনপি : ফখরুল
যুক্তরাষ্ট্রে করোনা তহবিল পাস: লাভবান হবেন ১০ লাখ বাংলাদেশি
সর্বাধিক পঠিত
সখীপুরে আম ও লিচুর মুকুলের মৌ মৌ গন্ধে মুখরিত
সাতক্ষীরায় ক্ষুরারোগে আক্রান্ত গবাদি পশুর: সর্বশান্ত খামার মালিকরা
স্বর্ণের দামে বড় পতন, ৮ মাসে সর্বনিম্ন
সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ শ্রমিক নিহত
মার্তৃভূমিকে পরিচ্ছন্ন রাখার শপথ নিলো বিডি ক্লিন
বিয়ে পর বিয়ে এবং তালাক দেয়াই তার কাজ
ফের নতুন প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন শ্রাবন্তী, ফাঁস করলেন নিজেই !
আরও দেখুন...


Copyright © 1962-2019
All rights reserved
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
Website: http://www.dainikbangla.com.bd, Developed by i2soft
সম্পাদক, প্রকাশক ও মুদ্রাকর: মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন জিটু
সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রেড ক্রিসেন্ট বোরাক টাওয়ার, লেভেল-৫, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, রমনা, ঢাকা-১০০০।
ফোনঃ +৮৮-০২-, ৫৫১৩৮৫০১, ৫৫১৩৮৫০২, ৫৫১৩৮৫০৩, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫১৩৮৫০৪, ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]