রোববার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

ইসলামিক ফাইন্যান্সের পর্ষদ সভা

দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত
দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ১৯:০২

ইসলামিক ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের (আইএফআইএল) পরিচালনা পর্ষদের ৩৩৩তম সভা গত শনিবার তেজগাঁওয়ের প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পর্ষদের চেয়ারম্যান কে বি এম মঈন উদ্দিন চিশতী সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভায় অন্যদের মধ্যে পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান শিব্বির মাহমুদ ও আনিস সালাউদ্দিন আহমেদ, অডিট কমিটির চেয়ারম্যান এ কে এম শহীদুল হক, পরিচালকরা হোসাইন মাহমুদ, আফজালুর রহমান, জুলিয়া রহমান, আজগার হায়দার, স্বতন্ত্র পরিচালক ইরতেজা রেজা চৌধুরী এবং আইএফআইএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।


মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেল ইসলামী ব্যাংক

আপডেটেড ১ ডিসেম্বর, ২০২৩ ১৫:৪৮
বাণিজ্য ডেস্ক

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ পিএলসি মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড-২০২৩-এ ‘এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড প্রি-পেইড বিজনেস (ডমেস্টিক) ২০২২-২০২৩’ অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে। সম্প্রতি রাজধানীর রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ইসলামী ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর আবুল ফায়েজ মুহাম্মদ কামাল উদ্দীন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমানের কাছ থেকে এ পুরস্কার গ্রহণ করেন। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স হেলেন লাফেইভ, মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল, বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেম ডিপার্টমেন্টের পরিচালক মো. শরাফত উল্লাহ্ খান, ইসলামী ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নাজিম উদ্দীন তালুকদার ও মোহাম্মদ মানজুরুল হক, অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. ওসমান গণি ও আ ন ম তাওহীদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি


বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংকের নাম পরিবর্তন

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের নাম পরিবর্তন করা হয়েছে। ব্যাংকটির নতুন নাম ‘বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসি’। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এসংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করেছে। ব্যাংক কোম্পানির নামের শেষে ‘পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি’ বা ‘পিএলসি’ লিখতে হবে- এমন নির্দেশনার পর সব ব্যাংকই নাম পরিবর্তনের উদ্যোগ নেয়। অর্থাৎ যেসব ব্যাংকের নামের শেষে ‘লিমিটেড’ শব্দটি আছে, সে ব্যাংকগুলো ‘লিমিটেড’ শব্দ বাদ দিয়ে নামের শেষে ‘পিএলসি’ লিখছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা বলা হয়, কোম্পানি আইন, ১৯৯৪-এর ১১ক(ক) ধারার বিধান অনুযায়ী তফসিলি ব্যাংকগুলোর তালিকায় ‘বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড’-এর নাম ‘বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসি’ হিসেবে পরিবর্তন করা হয়েছে।


প্রাইম ব্যাংক ও আই ফার্মার মধ্যে চুক্তি

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

দেশের শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মধ্যে অন্যতম প্রাইম ব্যাংক পিএলসি এবং আই ফার্মার কৃষক ও কৃষি উদ্যোক্তাদের বিশেষ করে কৃষিকাজে জড়িত নারীদের অর্থায়ন সহজ করতে যৌথ উদ্যোগ নিয়েছে। এ উদ্যোগের ফলে সারা দেশে শত শত কৃষক এবং কৃষি উদ্যোক্তা যাদের কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি এবং সংশ্লিষ্ট ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য ঋণ প্রয়োজন, তাদের ঋণ প্রাপ্তি সহজ হবে। প্রাইম ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজিম এ চৌধুরী এবং আই ফার্মার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহাদ ইফাজ সম্প্রতি ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে চুক্তির নথি হস্তান্তর করেন। এ সময় উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি


ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস সোনালী ব্যাংকে ব্যবহার

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

রাষ্ট্রায়াত্ত ব্যাংক সোনালী ব্যাংকের বিভিন্ন শাখায় ব্যবহৃত হচ্ছে ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস। দেশের ১০৮০টি শাখায় ১১৫৫টি অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস ইনস্টলেশন শুরু করেছে ওয়ালটন। এ ডিভাইস ব্যবহার করে ব্যাংকটির কর্মীদের অফিস হাজিরাসহ তাদের কর্মঘণ্টার হিসাব রাখা এবং ডিজিটাল মাধ্যমে সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

এ উপলক্ষে গত আগস্ট মাসে উভয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আনুষ্ঠানিক চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সোনালী ব্যাংকের শাখা অফিসগুলোতে অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস সরবরাহ ও ইনস্টল করে ওয়ালটন।

দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসসহ ওয়ালটনের নানান প্রযুক্তি পণ্য ব্যবহৃত হচ্ছে। এর ফলে বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ের পাশাপাশি কর্মসংস্থান বৃদ্ধি এবং দেশীয় প্রযুক্তি পণ্য উৎপাদনে শিল্প খাতের বিকাশ ত্বরান্বিত হচ্ছে। এতে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে। সোনালী ব্যাংকের মতো অন্যান্য সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান দেশীয় ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করলে তা দেশের সামগ্রিক কল্যাণ বয়ে আনবে বলে অভিমত সংশ্লিষ্টদের।

উল্লেখ্য, দেশের প্রযুক্তি বাজারে উচ্চমানের অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস নিয়ে এসেছে ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। অ্যাসেন্ট (ASSENT) ব্র্যান্ডের প্যাকেজিংয়ে ওয়ালটনের এই অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস নিশ্চিত করে ঝামেলাহীন অফিস অ্যাটেনডেন্স। ফলে যেকোনো প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ সংক্রান্ত কাজ হয় দ্রুত ও নির্ভুল। বর্তমানে ওয়ালটনের রয়েছে ৪ মডেলের অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস। এর মধ্যে ডব্লিউএসি১১ (WAC11) মডেলের দাম ৭,৯০০ টাকা থেকে কমে বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে ৬,৭১৫ টাকায়। আর ডব্লিউএসি২২ (WAC22) মডেল ১২,৯৫০ টাকা থেকে কমে এখন দাম হয়েছে ১১,০০৭ টাকা এবং ডব্লিউএসি৩৩ (WAC33) মডেল ১৪,৪৫০ টাকা থেকে কমে ১২,২৮২ টাকা। এছাড়া ডব্লিউএসি৩৪ (WAC34) মডেলের নতুন আরেকটি অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস বাজারে এসেছে।

ওয়ালটনের অ্যাসেন্ট অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসে অত্যাধুনিক সব ফিচার রয়েছে। এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, কার্ড এবং পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা যায়। ডিভাইসগুলো ০.৫ সেকেন্ডেরও কম সময়ে রেসপন্স করে। এতে ৩ হাজার ইউজার এবং ৭০ হাজার পর্যন্ত রেকর্ড ধারণ করার সুবিধা রয়েছে।

ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসের সঙ্গে এইচআরএমএস সফটওয়্যার, পেরোল, অ্যাটেনডেন্স রিপোর্ট ইত্যাদি ইন্টিগ্রেট করার সুবিধা রয়েছে। এতে আছে এক্সিট বাটন, ডোর ম্যাগনেট, রিডার ইন্টারফেস, উইগ্যান্ড ইনপুট ফিচার। রয়েছে দেশব্যাপী ওয়ালটন সার্ভিস পয়েন্টের মাধ্যমে সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে সেবা পাওয়ার নিশ্চয়তা।

অন্য যেকোনো এইচআরএমএস কিংবা ইআরপি সফটওয়্যারের সঙ্গে ইন্ট্রিগেশনের জন্য ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোলের এপিআই ব্যবস্থা আছে। এ ছাড়া যেকোনো প্রতিষ্ঠানে আগে থেকে ব্যবহার করা অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইসের সঙ্গে সমান্তরালে ওয়ালটন অ্যাক্সেস কন্ট্রোল ডিভাইস ব্যবহার করা যায়। বিজ্ঞপ্তি


বিকাশ ও বাংলালিংকের পার্টনারশিপ

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

গ্রাহকদের জন্য বিভিন্ন ধরনের উদ্ভাবনী ডিজিটাল সেবা আনতে বিকাশের সঙ্গে পার্টনারশিপ করল দেশের শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে মাইবিএল সুপার অ্যাপে ওয়ান-ক্লিক পেমেন্টের সুবিধা নিয়ে এল প্রতিষ্ঠানটি। এ ক্ষেত্রে বিকাশকে নিজেদের পছন্দের পেমেন্ট মেথড হিসেবে যুক্ত করেছে বাংলালিংক। এখন থেকে গ্রাহকরা তাদের মাইবিএল অ্যাপ থেকে মাত্র একটি ক্লিকেই বিকাশের মাধ্যমে দ্রুত ও স্বাচ্ছন্দ্যে পেমেন্ট করতে পারবেন, যা তাদের নিরবচ্ছিন্ন সংযোগ নিশ্চিত করবে। সম্প্রতি বাংলালিংকের সদর দপ্তরে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নতুন এ সেবার উদ্বোধন করেন বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী এরিক অস এবং বিকাশের প্রধান নির্বাহী কামাল কাদীর। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার উপাঙ্গ দত্ত, বিকাশের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার আলী আহম্মেদ এবং দুই প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা।

ওয়ান-ক্লিক পেমেন্টের এই সুযোগ গ্রাহকদের ডিজিটাল লাইফস্টাইলকে করে তুলবে আরও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক, নিরাপদ ও ঝামেলাহীন। গ্রাহক বিকাশকে একবার পছন্দের পেমেন্ট অপশন হিসেবে যুক্ত করে নিলে ওটিপি বা পিন ছাড়াই ওয়ান-ক্লিকে ডিজিটাল কনসেন্ট (সম্মতি) দিয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পেমেন্ট সম্পন্ন করতে পারবেন।

গ্রাহকদের নতুন ও উদ্ভাবনী ডিজিটাল সেবা দেয়ার লক্ষ্যে ২০১২ সাল থেকে বাংলালিংক ও বিকাশ একসঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। এ যৌথ যাত্রার সবচেয়ে জনপ্রিয় সেবাগুলোর একটি বিকাশ অ্যাপে ‘আমার অফার’ অপশন। এই সেবার মাধ্যমে বাংলালিংক গ্রাহকরা নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী অফার বেছে নিতে পারেন। আরও একটি বহুল ব্যবহৃত সেবা– বিকাশ অ্যাপের ‘অটো রিচার্জ’। এর মাধ্যমে গ্রাহকের মোবাইল ব্যাল্যান্স বা ক্রেডিট কমে গেলে বিকাশ ওয়ালেট থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল রিচার্জ হয়ে যাবে।

বাংলালিংকের প্রধান নির্বাহী এরিক অস বলেন, ‘অগ্রসর চিন্তা ও উদ্ভাবনের মাধ্যমে গ্রাহকদের জীবনমান উন্নয়নে বাংলালিংক প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তাদের জীবনযাত্রা আরও সহজ ও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক করার লক্ষ্যেই মাইবিএল সুপার অ্যাপে ওয়ান-ক্লিক পেমেন্টের সুবিধা নিয়ে এসেছি আমরা। সহজ এই পেমেন্ট ব্যবস্থা আমাদের বিকাশ ব্যবহারকারী গ্রাহকদের জীবন যেমন আরও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক করবে, তেমনি তাদের ডিজিটাল অভিজ্ঞতাও আরও উন্নত হবে।’

বিকাশের প্রধান নির্বাহী কামাল কাদীর বলেন, ‘ক্রমশ পরিবর্তনশীল ডিজিটাল প্রযুক্তির এই যুগে গ্রাহকদের আরও সহজ, সুবিধাজনক এবং সময়-সাশ্রয়ী সেবার প্রয়োজন। তাই দুটি প্রতিষ্ঠানেরই কোটি গ্রাহকের জীবন আরও সহজ করতে ওয়ান-ক্লিক পেমেন্ট সুবিধা চালু করা হলো। এই পার্টনারশিপ আগামীতে আরও গ্রাহককেন্দ্রিক সেবার সুযোগ তৈরি করবে, যা তাদের ডিজিটাল লাইফস্টাইলে আরও স্বাচ্ছন্দ্য ও স্বাধীনতা নিয়ে আসবে।’

বাংলালিংক ও বিকাশের এই পার্টনারশিপ শুধু পুরোনো সম্পর্কই মজবুত করবে না, বরং এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করবে- যেখানে উভয় প্রতিষ্ঠান আরও নতুন ডিজিটাল উদ্ভাবন, আধুনিক সল্যুশনস দেয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদের সংযুক্ত রেখে উন্নত ডিজিটাল অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে। পাশাপাশি বাংলাদেশের ডিজিটাল ইকোসিস্টেমকে আরও সুদৃঢ় করতে ভূমিকা রেখে যাবে। বিজ্ঞপ্তি


মাস্টারকার্ডের ৫ অ্যাওয়ার্ড জিতেছে ব্র্যাক ব্যাংক

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

ব্যবসায় বিশেষ সাফল্য এবং কার্ড ইস্যু ও অ্যাকোয়্যারিংয়ের নানা ক্ষেত্রে উদ্ভাবনী উদ্যোগের স্বীকৃতিস্বরূপ, মাস্টারকার্ড থেকে এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক পাঁচটি অ্যাওয়ার্ড জিতে নিয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক। যে ক্যাটাগরিগুলোতে ব্র্যাক ব্যাংক এবারের ‘মাস্টারকার্ড এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২২-২৩’ অর্জন করে, সেগুলো হচ্ছে: এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড ক্রেডিট বিজনেস (ডমেস্টিক) ২০২২-২৩, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড ক্রেডিট বিজনেস (ইন্টারন্যাশনাল) ২০২২-২৩, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড কন্ট্যাক্টলেস (ইস্যুয়িং) ২০২২-২৩, এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড কন্ট্যাক্টলেস (অ্যাকোয়্যারিং) ২০২২-২৩ এবং এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড পিওএস অ্যাকোয়্যারিং বিজনেস ২০২২-২৩।

সম্প্রতি ঢাকায় অনুষ্ঠিত ‘মাস্টারকার্ড এক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ডস’-এর পঞ্চম আসরে, ব্র্যাক ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও সেলিম আর. এফ. হোসেনের হাতে অ্যাওয়ার্ডগুলো তুলে দেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান।

‘রেকগনাইজিং দ্য মাস্টারস অব ইভোল্যুশন’ থিমের আলোকে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানটি ডিজিটাল পেমেন্টে ইনোভেশনের ধারাকে উৎসাহিত করতে মাস্টারকার্ডের অঙ্গীকারবদ্ধতারই আরেকটি প্রতিফলন। এ বছর এ অ্যাওয়ার্ড প্রদানের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে একই সঙ্গে বাংলাদেশে মাস্টারকার্ডের কার্যক্রম শুরুর ৩২তম বার্ষিকী এবং অফিস শুরুর ১০ বছর পূর্তির উদযাপন করে।

ঢাকার মার্কিন দূতাবাসের চার্জ ডি’অ্যাফেয়ার্স হেলেন লা-ফেইভ ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর মো. শরাফত উল্লাহ খান ও পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর মো. মোতাসেম বিল্লাহ, ফরেইন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্টের ডিরেক্টর মো. সারওয়ার হোসেন এবং মাস্টারকার্ড বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল। পাশাপাশি ব্যাংক এবং অর্থপ্রযুক্তি সংস্থাসহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট আর নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের উপস্থিতি এ আয়োজনকে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ করে তোলে।

অ্যাওয়ার্ড বিষয়ে মন্তব্যে ব্র্যাক ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও সেলিম আর. এফ. হোসেন বলেন, ‘মাস্টারকার্ডের কাছ থেকে ধারাবাহিকভাবে পাওয়া এ মর্যাদাপূর্ণ স্বীকৃতি, কার্ড ইস্যুয়িং ও অ্যাকোয়্যারিংয়ের ব্যবসায় আমাদের সক্ষমতার পাশাপাশি নতুন আরও ব্যবসায় উদ্ভাবনশীলতার ওপর আমাদের লক্ষ্য ও মনোযোগেরই পরিচয় বহন করে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের কার্ডের অনন্য ও আকর্ষণীয় সুবিধাদি এবং কার্ড অ্যাকোয়্যারিংয়ে আমাদের বিস্তৃত উপস্থিতি, রিটেইল গ্রাহকদের আস্থা ও বিশ্বস্ততা অর্জনের মাধ্যমে আমাদের মার্কেট শেয়ার আরও শক্তিশালী করতে সাহায্য করে। গ্রাহকদের পরিবর্তনশীল প্রয়োজন মেটাতে এবং ব্যবসার গতিবৃদ্ধি বজায় রাখতে আমরা ভবিষ্যতেও এ রকম উদ্ভাবনের ধারা অব্যাহত রাখব।’ বিজ্ঞপ্তি


সিটিজেন্স ব্যাংকের নির্বাহী ও ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

সিটিজেন্স ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ সম্প্রতি মাসুদুজ্জামানকে এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান এবং চৌধুরী মোহাম্মদ হানিফ শোয়েবকে রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে পুনর্নির্বাচিত করেছে। মাসুদুজ্জামান দেশের তৈরি পোশাক শিল্প খাতে দীর্ঘ ২৫ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী এবং সিটিজেন্স ব্যাংক পিএলসির অন্যতম স্পন্সর পরিচালক। তিনি মডেল ডি ক্যাপিটাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, রাইন ড্রেস লিমিটেড ও সাদিয়া ফ্যাশন ওয়্যারস লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্থাপনা পরিচালক। এ ছাড়াও তিনি এমব্রো আর্চ, ওশান কালার, স্টেপ টু রেইনবো, আটলান্টিক অ্যাকসেসরিজ, সাদিয়া প্যাকেজিং অ্যান্ড অ্যাকসেসরিজ এবং কেয়ামা কালার প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী। রপ্তানির ক্ষেত্রে অসামান্য পারফরম্যান্সের স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি টানা পাঁচবার বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি (সিআইপি) নির্বাচিত হন। তিনি বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিকেএমইএ) সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি বিভিন্ন সামাজিক কল্যাণমুখী সংস্থার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন এবং দেশের খেলাধুলার উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছেন।

চৌধুরী মোহাম্মদ হানিফ শোয়েব সিটিজেন্স ব্যাংক পিএলসির অন্যতম স্পন্সর পরিচালক। চৌধুরী দেশের টেক্সটাইল খাতে দীর্ঘ ২৯ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। তিনি নারায়ণগঞ্জের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। চৌধুরী সালমা গ্রুপের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের সিইও এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক। সালমা গ্রুপ কাঁচা তুলার আমদানিকারক এবং দেশের শীর্ষস্থানীয় সুতা উৎপাদনকারী হিসেবে একটি গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান দখল করে আছে। সালমা গ্রুপের বিশাল সাফল্য তার গতিশীল নেতৃত্ব এবং প্রগতিশীল মানসিকতার সাক্ষ্য বহন করে। চৌধুরী বিভিন্ন সমাজকল্যাণমুখী ও জনহিতকর সংগঠনের সঙ্গে জড়িত আছেন। বিজ্ঞপ্তি


ন্যাশনাল ব্যাংকের অফিসারদের প্রশিক্ষণ

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

ন্যাশনাল ব্যাংক ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে গত রোববার ১৫ দিনব্যাপী ‘অ্যাডভান্স কোর্স অন ক্রেডিট অপারেশন অ্যান্ড রিস্ক ম্যানেজমেন্ট ইন ব্যাংকস (প্রথম ব্যাচ)’ শীর্ষক কোর্সের উদ্বোধন করা হয়। ওই কোর্সে ব্যাংকের বিভিন্ন শাখা ও প্রধান কার্যালয় থেকে মোট ৩৭ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ রইস উদ্দিন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল ব্যাংক ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ও ভিপি শাহ্‌ সৈয়দ রাফিউল বারী।

বিষয়:

মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড পেল সাউথইস্ট ব্যাংক

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

দেশের শীর্ষস্থানীয় বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংক সাউথইস্ট ব্যাংক পিএলসি ‘মাস্টারকার্ড এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২৩’-এ এক্সিলেন্স ইন মাস্টারকার্ড প্রিপেইড বিজনেস (ইন্টারন্যাশনাল) এবং মাস্টারকার্ড অনলাইন ই-কমার্স একুয়ারিং বিজনেস ২০২২-২০২৩ অর্জন করেছে। সাউথইস্ট ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুরুদ্দিন মো. ছাদেক হোসাইন সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স হেলেন লাফেভের কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকায় মার্কিন দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন হেলেন লাফেভ, বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগের পরিচালক মো. শারাফাত উল্লাহ খান ও পরিচালক মো. মোতাসেম বিল্লাহ। মাস্টারকার্ডের কান্ট্রি ম্যানেজার সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল, বিভিন্ন ব্যাংক, ফিনটেক, মার্চেন্টসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।


ডিপিডিসিতে নবনির্মিত দুটি সাবস্টেশন উদ্বোধন

আপডেটেড ২৯ নভেম্বর, ২০২৩ ১২:৫০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের (ডিপিডিসি) নবনির্মিত আদাবর ৩৩/১১ কেভি ও মাণ্ডা ৩৩/১১ কেভি জিআইএস সাবস্টেশন চালু করা হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার। এর ফলে ডিপিডিসির নিরবচ্ছিন্ন ও মানসম্মত বিদ্যুৎ বিতরণের সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে।

‘ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ এবং শক্তিশালীকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত আদাবর ৩৩/১১ কেভি ও মাণ্ডা ৩৩/১১ কেভি জিআইএস সাবস্টেশন চালুকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মো. হাবিবুর রহমান, বিপিএএ, সিনিয়র সচিব, বিদ্যুৎ বিভাগ ও চেয়ারম্যান, ডিপিডিসি পরিচালনা পর্ষদ।

২০১৬ সালের ১৪ অক্টোবর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও চীনের রাষ্ট্রপতি সি চিন পিং-এর উপস্থিতিতে প্রকল্পটির চুক্তি সম্পাদিত হয়। যার ধারাবাহিকতায় হাতে নেয়া হয় ‘ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা সম্প্রসারণ এবং শক্তিশালীকরণ’ শীর্ষক প্রকল্প। চীনের টিবিইএ কোম্পানি লিমিটেড ঠিকাদার হিসেবে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ২০২৬ সালের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। বিজ্ঞপ্তি


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যারিয়ার প্ল্যানিং নিয়ে সেমিনার

আপডেটেড ২৯ নভেম্বর, ২০২৩ ১২:৫১
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

জাপানে ক্যারিয়ার গড়তে আবশ্যিক দক্ষতা-বিষয়ক এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে। গতকাল মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগ, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ, তথ্যপ্রযুক্তি ইনস্টিটিউট এবং জাপান-বাংলাদেশ এডুকেশন স্কিল ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড যৌথভাবে এ সেমিনার আয়োজন করে।

জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো. জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. বি এম মইনুল হোসেন, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সোয়েব-উর-রহমান, জাপানের আক্স পাবলিশিংয়ের ম্যানেজার ইউচিরো সুকাদা এবং জাপানিজ ল্যাঙ্গুয়েজ স্পেশালিস্ট মিস মারি কাওয়াকুবো বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাপানের মাইনরি গ্রুপের পরিচালক মিয়া মামুন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, জাপানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মসংস্থানের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটদের দক্ষ জনসম্পদ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। এ ক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদান করবে। শিক্ষার্থীদের ভাষা ও প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন বিভাগ ও ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম চলমান রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রয়োজনে বিশেষ প্রশিক্ষণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

সেমিনারে জাপানভিত্তিক ৩০টি কোম্পানির প্রতিনিধি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন। বিজ্ঞপ্তি


সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরলেন সেনাবাহিনী প্রধান

আপডেটেড ২৯ নভেম্বর, ২০২৩ ১২:৩৬
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ গত ২৬-২৭ নভেম্বর সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত সৌদি ন্যাশনাল গেমস-২০২৩-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ শেষে গতকাল মঙ্গলবার দেশে প্রত্যাবর্তন করেছেন। তিনি সেখানে অনুষ্ঠিত ইসলামিক সলিডারিটি স্পোর্টস ফেডারেশনের জেনারেল অ্যাসেম্বলিতেও অংশগ্রহণ করেন। পাশাপাশি বিভিন্ন দেশ থেকে আসা প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে অংশগ্রহণ করে পারস্পরিক ক্রীড়া উন্নয়নমূলক বিভিন্ন বিষয়ে মতবিনিময় করেন।

উল্লেখ্য, সেনাবাহিনী প্রধান গত ২৫ নভেম্বর সৌদি আরবের ক্রীড়ামন্ত্রী ও সৌদি গেমস আয়োজক কমিটির সভাপতি আবদুল আজিজ বিন তুর্কি আল ফয়সালের আমন্ত্রণে সরকারি সফরে সৌদি আরব গমন করেন। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা

আপডেটেড ২৯ নভেম্বর, ২০২৩ ১১:৫৪
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

শরিয়াহভিত্তিক স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লার্নিং সেন্টারের উদ্যোগে সম্প্রতি ‘বেস্ট প্র্যাকটিসেস ইন ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড’ শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিওও মো. সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে ওই কর্মশালায় আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রমে আন্তর্জাতিক ও দেশীয় বিধিবিধানের সর্বোত্তম অনুশীলন এবং সার্বিক পরিপালনবিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ সেশন পরিচালনা করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক মাছুমা আক্তার হ্যাপী ও মোহাম্মদ আরাফাত আলী। কর্মশালায় ব্যাংকের এডি শাখার বৈদেশিক বাণিজ্য বিভাগের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি সেক্রেটারি মো. আলী রেজা, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লার্নিং সেন্টারের প্রধান সৈয়দ মসনুন আলী এবং ইন্টারন্যাশনাল ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান মো. হাসিবুল হাসান। বিজ্ঞপ্তি


banner close