মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

আরও ৪ জেলায় বিকাশ ও বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের কর্মসূচি

দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত
দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত : ৪ অক্টোবর, ২০২৩ ১২:২৪

বিকাশের সহযোগিতায় এবার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের বইপড়া কর্মসূচির সম্প্রসারণ করা হয়েছে চট্টগ্রাম, চুয়াডাঙ্গা, নড়াইল ও দিনাজপুর জেলার ১৪টি স্কুলে। শিক্ষার্থী ও স্কুল কর্তৃপক্ষের হাতে বই তুলে দিয়ে এ বছর ৩৩ হাজার ৬০০ বই বিতরণের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত এই কর্মসূচির আওতায় প্রায় ৪ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তিন লাখ বই বিতরণ করেছে বিকাশ, এর মাধ্যমে অন্তত ৩০ লাখ পাঠক উপকৃত হয়েছেন। চট্টগ্রামের ৫টি এবং চুয়াডাঙ্গা, নড়াইল ও দিনাজপুরের ৩টি করে বিদ্যালয়ে এবার বই পড়া কর্মসূচি সম্প্রসারিত হলো।

এ জেলাগুলোতে পৃথক চারটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিক্ষার্থী এবং স্কুল কর্তৃপক্ষের হাতে বই তুলে দেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। চট্টগ্রামের অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফকরুজ্জামান, চুয়াডাঙ্গাতে জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা, নড়াইলের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাশ্বতী শীল এবং দিনাজপুর চিরিরবন্দরের উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ কে এম শরীফুল হক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ডা. আবদুন নূর তুষার ও বিকাশের চিফ এক্সটারনাল অ্যান্ড করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেজর জেনারেল শেখ মো. মনিরুল ইসলাম (অব.), ইভিপি এবং রেগুলেটরি অ্যান্ড করপোরেট অ্যাফেয়ার্স ডিপার্টমেন্টের প্রধান হুমায়ুন কবির।

অনুষ্ঠানগুলোতে সভাপতিত্ব করেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের পরিচালক শামীম আল মামুন। শিক্ষার্থীদের পাঠ্যপুস্তকের বাইরেও বই পড়ার অভ্যাস তৈরির মাধ্যমে পরিপূর্ণ ও আলোকিত মানুষ গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র দেশজুড়ে বইপড়া কর্মসূচি পরিচালনা করে আসছে। এ উদ্দেশ্য আরও প্রসারিত ও কার্যকরী করতে গত নয় বছর ধরে এ কর্মসূচির সঙ্গে যুক্ত রয়েছে বিকাশ। বিজ্ঞপ্তি


জেনিথ লাইফের সঙ্গে গোমতী হাসপাতালের জীবন বীমা চুক্তি

কুমিল্লার গোমতী হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেডের সঙ্গে জেনিথ লাইফের স্বাস্থ্য ও জীবন বীমা সংক্রান্ত একটি স্মারক সই হয়েছে। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

কুমিল্লার গোমতী হাসপাতাল প্রাইভেট লিমিটেডের সঙ্গে জেনিথ লাইফের স্বাস্থ্য ও জীবন বীমা সংক্রান্ত একটি স্মারক সই হয়েছে। মঙ্গলবার হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে এই চুক্তি সই হয়। গোমতী হাসপাতালের পরিচালক ও সিইও ডা. মো. মুজিবুর রহমান এবং জেনিথ ইসলামী লাইফের সিইও এস এম নুরুজ্জামান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা রেসিডেন্সিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. আব্দুল হান্নান, ইবনে তাইমিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক আবু আকমল মাসউদ মজুমদার, অজিত গুহ মহাবিদ্যালয়ের উপাধ্যক্ষ মোস্তাক আহমেদ, জেনিথ লাইফের সিনিয়র ডিএমডি সৈয়দ মাসকুরুল হক, ডিএমডি এএফ উবাইদুল্লাহ মামুন, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. আনোয়ার হোসেন সরকার, জিএম মো. নাসির উদ্দিন মজুমদার, ডিজিএম সাইফুদ্দিন আহমেদ মিজান এবং গোমতী হাসপাতালের আরএমও ডা. ইরফান আলম মিশু, ম্যানেজার আলী নেওয়াজ, অ্যাকাউন্টস অফিসার সোহেল আহমেদসহ অন্য কর্মকর্তা ও শুভানুধ্যায়ীরা। বিজ্ঞপ্তি


রূপালী ব্যাংক ও জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের মধ্যে চুক্তি সই

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

রূপালী ব্যাংক পিএলসি ও জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের মধ্যে সার্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়নে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। এখন থেকে সব স্কিমের মাসিক কিস্তি আদায়সহ দেশে ও বিদেশে এর যাবতীয় প্রচার-প্রচারণা কাজে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের সহযোগী হিসেবে কাজ করবে রূপালী ব্যাংক পিএলসি। সম্প্রতি রাজধানীর কাকরাইলে পেনশন কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব কবিরুল ইজদানী খান এবং রূপালী ব্যাংকের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর এ সমঝোতা স্মারকে সই করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের সদস্য মো. মুর্শীদুল হক খান, যুগ্ম সচিব এ. কে এম আতিকুল হক, সিনিয়র সহকারী সচিব মো. শরীফ উদ্দিন, ব্যাংকের উপমহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ কাউসার মোস্তাফিজ ও সহকারী মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামানসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

ঢাবির সঙ্গে জাপানের দুই প্রতিষ্ঠানের সমঝোতা স্মারক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাপানের এজেআই-সিএলই কোম্পানি লিমিটেড এবং রাইয়োবি সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেডের মধ্যে গতকাল এক সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ঢাবি উপাচার্য অফিস লাউঞ্জে আয়োজিত সমঝোতা স্মারক সই অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, এজেআই-সিএলই কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রতিষ্ঠাতা মি. তাইচি ওয়াতানাবে এবং রাইয়োবি সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার আকিরা তোদা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এই সমঝোতা স্মারকে সই করেন। ছবি: ঢাবি জনসংযোগ
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাপানের এজেআই-সিএলই কোম্পানি লিমিটেড এবং রাইয়োবি সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেডের মধ্যে গতকাল বুধবার এক সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ঢাবি উপাচার্য অফিস লাউঞ্জে আয়োজিত সমঝোতা স্মারক সই অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, এজেআই-সিএলই কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রতিষ্ঠাতা তাইচি ওয়াতানাবে এবং রাইয়োবি সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার আকিরা তোদা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এই সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। এসময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড রিসার্চ ইন সায়েন্সেসের (কারস) পরিচালক অধ্যাপক ড. ইসতিয়াক এম সৈয়দ, জনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক মাহমুদ আলম, কারসের গবেষকবৃন্দ এবং দুই জাপানি কোম্পানির প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সমঝোতা স্মারকের আওতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কারস, এজেআই-সিএলই কোম্পানি লিমিটেড এবং রাইয়োবি সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেড যৌথভাবে অল্টারনেট ওয়েটিং অ্যান্ড ড্রাইং (এডব্লিউডি) পদ্ধতি ব্যবহার করে কার্বন ক্রেডিট এবং কৃষি উন্নয়নের জন্য গবেষণা করবে। এ ছাড়া তারা এডব্লিউডি সেচ পদ্ধতির অনুশীলনের মাধ্যমে কম জল ব্যবহার করে ধানের উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও জল সম্পদ সংরক্ষণের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে ধান চাষ এবং জমিতে কার্বন গ্যাস পরিমাপের জন্য যৌথভাবে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করবে। জাপানের এই দুই কোম্পানি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কারসের বায়ু বিশুদ্ধতা ও পরিবেশ দূষণ ল্যাবরেটরিতে এ সংক্রান্ত গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য একটি ‘গ্যাস ক্রোমাটোগ্রাফ মেশিন’ প্রদান করবে।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসা এবং এর সাথে যৌথ সহযোগিতামূলক শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সমঝোতা স্মারক সই করায় এজেআই-সিএলই কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রতিষ্ঠাতা তাইচি ওয়াতানাবে এবং রাইয়োবি সিস্টেমস কোম্পানি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার আকিরা তোদাকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। এই সমঝোতা স্মারকের আওতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীরা অত্যন্ত উপকৃত হবে এবং বাংলাদেশে ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি, পরিবেশ সংরক্ষণ, কার্বন নিঃসরণ হ্রাসসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমকে আরও এগিয়ে নেবে বলে উপাচার্য আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

পিঙ্গুস ইংলিশ বাংলাদেশের নতুন ক্যাম্পাস এখন গুলশানে

গুলশানে নতুন ক্যাম্পাসের কার্যক্রম শুরু করেছে পিঙ্গুস ইংলিশ বাংলাদেশ। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

পিঙ্গুস ইংলিশ যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি বিশ্বমানের আন্তর্জাতিক কিন্ডারগার্টেন, যারা আন্তর্জাতিকভাবে ইংরেজি কোর্সের অফার করে থাকে। যা শিশুদের ওয়ার্ল্ড ওয়াইজ মর্যাদাসম্পন্ন ব্যান্ডের নাম পিঙ্গুস ইংলিশ নামে পরিচিত। পিঙ্গুস ইংলিশ স্কুলের কার্যক্রম চালু হয়ে ব্যাপক প্রসার লাভ করে, বর্তমানে ব্রাজিল, ইতালি, এস্তোনিয়া, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া, পাকিস্তান, মিয়ানমার, লাওস, ভিয়েতনাম, এবং বাংলাদেশ সহ ২৫টিরও বেশি দেশে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। যার ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে একটি শিক্ষা উদ্যোক্তা পরিবার পিঙ্গুস ইংলিশ প্রথমে মিরপুর ও দিনাজপুর ৩টি ক্যাম্পাস পরিচালনা করে আসছে সুনামের সহিত। এ ৩টি ক্যাম্পাসের অভিজ্ঞতা থেকে গুলশানের ৫০ নম্বর রোডের ১৪ নম্বর বাড়িতে নতুন ক্যাম্পাসের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শিশুদের সৃজনশীল চিন্তাভাবনা এবং শেখার প্রতি ভালোবাসার মূল্যবোধের ওপর ভিত্তি করে পাঠ্যক্রমটি যুক্তরাজ্যের কিংস্টন ইউনিভার্সিটির সঙ্গে যৌথভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। যাতে কোমলমতি শিশুদের সুন্দর আগামীর স্বপ্নিল ক্যারিয়ার মজবুত ভিত্তি স্থাপন করতে পারে। যা ভবিষ্যৎ একাডেমিক সাফল্যের জন্য তাদের প্রস্তুত করবে। বিজ্ঞপ্তি


জাকিয়া রউফ চৌধুরী ব্যাংক এশিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

জাকিয়া রউফ চৌধুরী সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় ব্যাংক এশিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন। দেশের বেসরকারি ব্যবসায়িক খাতে তার রয়েছে সুদীর্ঘ ৩৫ বছরেরও বেশি অভিজ্ঞতা। শুরু থেকেই তিনি দেশের অন্যতম বৃহৎ ব্যবসায়িক গোষ্ঠী র‌্যাংগস গ্রুপের একাধিক সহযোগী প্রতিষ্ঠানে নেতৃত্বের আসনে অধিষ্ঠিত। বর্তমানে তিনি সি রিসোর্সেস গ্রুপ, র‌্যাংগস ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, র‌্যাংকস কনস্ট্রাকশন লিমিটেড, র‌্যাংকস এগ্রো ইন্ডাস্টিজ লিমিটেড এবং জেন ন্যাচারাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান, একই সঙ্গে তিনি র‌্যাংকস রিয়েল এস্টেট লিমিটেড এবং র‌্যাংকস ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এ ছাড়াও তিনি র‌্যাংগস লিমিটেড, র‌্যাংগস মটরস লিমিটেড, র‌্যাংগস প্রপার্টিজ লিমিটেড, র‌্যানকন অটোস লিমিটেড, র‌্যাংকস ইন্টেরিয়র লিমিটেড, র‌্যাংকস অ্যাপ্লায়েন্স লিমিটেড সহ র‌্যাংগস গ্রুপের বিভিন্ন অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের পরিচালক। বিজ্ঞপ্তি


এলজিইডি ক্রিলিকের সেন্ট্রাল কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভা

এলজিইডি প্রতিষ্ঠিত ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট লোকাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার সেন্টারের (ক্রিলিক) দিনব্যাপী সেন্ট্রাল কো-অর্ডিনেশন কমিটির (সিসিসি) চতুর্থ সভা অনুষ্ঠিত হয় গতকাল। ছবি : সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

এলজিইডি প্রতিষ্ঠিত ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট লোকাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার সেন্টারের (ক্রিলিক) দিনব্যাপী সেন্ট্রাল কো-অর্ডিনেশন কমিটির (সিসিসি) চতুর্থ সভা গতকাল বুধবার অনুষ্ঠিত। গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ড, জার্মান উন্নয়ন ব্যাংক এবং বাংলাদেশ সরকারের আর্থিক সহায়তাপুষ্ট ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট ইনফ্রাস্ট্রাকচার মেইনস্ট্রিমিং (ক্রিম) প্রকল্পের আওতায় ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট লোকাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার সেন্টার (ক্রিলিক) প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করছে, যা স্থানীয় অবকাঠামো উন্নয়নে প্রকল্প প্রণয়ন, ডিজাইন, বাস্তবায়ন ও মূল্যায়নে জলবায়ু পরিবর্তন সহিষ্ণুতাকে মূলধারায় সম্পৃক্ত করতে সহায়তা করবে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলি আখতার হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ক্রিলিক নিয়ে আমাদের সবার একটি বড় স্বপ্ন আছে। ক্রিলিক এলজিইডির একটি পরিপূর্ণ জ্ঞান ভাণ্ডারে পরিণত হবে। ক্রিলিককে একটি সেন্টার অব এক্সিলেন্স হিসেবে জনপ্রিয় করার জন্য যা যা প্রয়োজন তা এলজিইডি করবে।
সভায় ক্রিলিকের নলেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (কেএমএস), অ্যানুয়াল এডাপটেশন অ্যাওয়ার্ড, অর্গানাইজেশনাল ডেভেলপমেন্ট প্ল্যান এবং সাইক্লোন শেল্টার/ব্রিজ ডিজাইন সম্পর্কে প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। সভায় যোগদানকারীরা তাদের মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ প্রদান করে ক্রিলিককে আরও প্রতিষ্ঠিত করতে সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন এলজিইডির পল্লি অবকাঠামো উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা ইউনিটের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী গোপাল কৃষ্ণ দেবনাথ, সড়ক ও সেতু রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিটের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আনোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ও ক্রিলিকের পরিচালক মো. আব্দুল হাকিম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (পরিকল্পনা) মো. জসিম উদ্দিন, ক্রিম প্রকল্প পরিচালক মো. নাজমুল হাসান চৌধুরী, ক্রিলিকের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আব্দুল খালেক, আইডিসি-ক্রিলিকের টিম লিডার ডান বুম। এ ছাড়া বিভিন্ন ইউনিটের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, প্রকল্প পরিচালক, উপ-প্রকল্প পরিচালক, নির্বাহী প্রকৌশলী, সিনিয়র সহকারী প্রকৌশলী, সহকারী প্রকৌশলী ও বিভিন্ন পর্যায়ের পরামর্শকরা সভায় উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

‘আকাশ গো’ নিয়ে এল আকাশ ডিজিটাল টিভি

রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে এক অনুষ্ঠানে পরবর্তী প্রজন্মের প্ল্যাটফর্ম ‘আকাশ গো’ উদ্বোধনের ঘোষণা দেওয়া হয়। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

গ্রাহকদের জন্য ডিটিএইচ (ডিরেক্ট-টু-হোম) সংযোগের সঙ্গে ‘আকাশ গো’ কম্প্যানিয়ন অ্যাপ নিয়ে এসেছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্সের আকাশ ডিজিটাল টিভি। দেশের একমাত্র ডিটিএইচ পে টিভি অপারেটরটির বিদ্যমান ও নতুন গ্রাহকরা তাদের সংযোগের সঙ্গে এখন থেকে ‘আকাশ গো’ অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন। এর মাধ্যমে লাইভ টিভি চ্যানেল টেলিভিশনের পাশাপাশি মোবাইলেও দেখা যাবে। এই নতুন অ্যাপটি গ্রাহকদের হটস্টার স্পেশালের মতো প্রিমিয়াম কনটেন্ট উপভোগ করারও সুযোগ দেবে। শুধু আকাশ ডিটিএইচের স্ট্যান্ডার্ড প্যাক ব্যবহারকারীরা এ কম্প্যানিয়ন অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন। এ জন্য বাড়তি কোনো ফি বা খরচ গুনতে হবে না।

রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে এক অনুষ্ঠানে গত সোমবার এই পরবর্তী প্রজন্মের প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধনের ঘোষণা দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে এবং যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন এমপি বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক শায়ান এফ রহমান এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ড. তারিক আলম। অনুষ্ঠানে উপস্থিত টাটা প্লের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও হরিৎ নাগপাল এবং ডিজনি স্টারের প্রধান (বিতরণ ও আন্তর্জাতিক) গুরজিভ সিং কাপুরকে ধন্যবাদ জানিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত এমপি প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, ‘স্থানীয় উদ্যোগ আকাশের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ। এই অংশীদারত্ব উদ্ভাবনী ধারণা ও প্রযুক্তির বিনিময়ে সহায়তা করবে। আকাশ গো কম্প্যানিয়ন অ্যাপ চালুর ধারণার প্রশংসা করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষের তথ্য ও বিনোদনের চাহিদা মেটাতে এটি নিঃসন্দেহে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’

বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক শায়ান এফ রহমান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবং তার উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের স্মার্ট বাংলাদেশ রূপকল্প এবং নেতৃত্বের কারণে আমরা এখন ডিজিটাল বিশ্বের সক্রিয় নাগরিক।’ তিনি বলেন, ‘ডিজিটাল প্রযুক্তির প্রয়োগে সেই একই লক্ষ্য বাস্তবায়নে এখন বিনোদন শিল্পের এগিয়ে আসার পালা। ডিজিটাল বিনোদন শিল্পের ২ বিলিয়নের বেশি মূল্যমানের শিল্প হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সরকারের রাজস্ব আয় বাড়াতেও এ খাত বড় ধরনের ভূমিকা রাখতে পারে। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে এবং মনিটাইজেশন মডেল বাস্তবায়নে সহযোগিতামূলক আইনি পরিবেশের পাশাপাশি বেসরকারি খাতকেও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে।’

আকাশ ডিজিটাল টিভির সিইও ড. তারিক আলম বলেন, গ্রাহকদের মধ্যে টিভি দেখার অভ্যাসে ও পছন্দে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসছে। সেই অভ্যাসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তাদের চাহিদা মেটাতে প্রথাগত টিভি দেখার সমাধানের পাশাপাশি উদ্ভাবনী সমাধানের মিশেল দরকার। ঘরে এবং ঘরের বাইরে চলতি পথে টিভি বা কনটেন্ট উপভোগের সুযোগ তৈরিই হচ্ছে চূড়ান্ত সমাধান। তিনি জানান, আকাশ গো কম্প্যানিয়ন অ্যাপটির মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড বা আইওএস ডিভাইস সেকেন্ডারি স্ক্রিন হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকরা। যার ফলে মানসম্পন্ন স্থানীয় ও বৈশ্বিক কনটেন্ট সমৃদ্ধ লাইভ টিভি এবং ডিজিটাল কনটেন্ট দেখার সুযোগ হাতের মুঠোতেই মিলবে। শুরুতেই আকাশ গো-তে থাকছে জি ফাইভ (Zee5) ওয়েব সিরিজ এবং হটস্টার স্পেশালের (Hotstar Special) মতো এক্সক্লুসিভ কনটেন্ট ।


জয়পুরহাটে ওয়ালটন এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন

জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন করছেন অতিথিরা। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

বিশ্বমানের ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিকস পণ্য মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে যাত্রা শুরু করল দেশের ইলেকট্রনিকস জায়ান্ট ওয়ালটনের এক্সক্লুসিভ পরিবেশক শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’।

উপজেলার ডাকবাংলো সংলগ্ন মেইন রোডে চালু হওয়া শোরুমটিতে পাওয়া যাচ্ছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচারের ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ফ্রিজ, টিভি, এসি, ওয়াশিং মেশিন, ফ্যান, রাইস কুকার, ব্লেন্ডার, ওভেন, এলইডি লাইট, ল্যাপটপ, কম্পিউটার, মোবাইল ফোনসহ ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিকস, আইসিটি, হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স পণ্যসামগ্রী।

উদ্বোধন উপলক্ষে ওয়ালটনের যেকোনো পণ্য কেনায় ক্রেতাদের ১০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে আপন এন্টারপ্রাইজ। এই সুবিধা চলবে চলতি জুলাই মাসজুড়ে।

মঙ্গলবার ফিতা কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে এক্সক্লুসিভ শোরুম ‘আপন এন্টারপ্রাইজ’ উদ্বোধন করেন ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ও চিত্রনায়ক আমিন খান এবং ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের হেড অব সেলস ফিরোজ আলম।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আক্কেলপুর পৌরসভার মেয়র শহিদুল আলম চৌধুরী, থানার অফিসার ইনচার্জ নয়ন হোসেন, ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শাহজালাল হোসেন লিমন, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শহীদুজ্জামান রানা, ডিভিশনাল সেলস ম্যানেজার মিজানুর রহমান, রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার মেহেদি হাসান, আপন এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী ছানোয়ার হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে আপন এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী ছানোয়ার হোসেন জানান, আন্তর্জাতিকমানের পণ্য ও সেবা প্রদানের মাধ্যমে ওয়ালটন বাংলাদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় ও বিশ্বস্ত ব্র্যান্ডে পরিণত হয়েছে। ওয়ালটন সব সময় সর্বোচ্চ ক্রেতাসুবিধা দিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় নতুন শোরুমটি উদ্বোধন উপলক্ষে চলতি জুলাই মাসজুড়ে যেকোনো পণ্য কেনায় ক্রেতারা ১০ শতাংশ ছাড় পাবেন।

ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের হেড অব সেলস ফিরোজ আলম বলেন, ওয়ালটনের আন্তর্জাতিকমানের পণ্য এখন প্রতিটি ঘরে শোভা পাচ্ছে। রপ্তানি হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। ওয়ালটনের ইলেকট্রনিকস পণ্য মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতেই এই শোরুমটির উদ্বোধন। নতুন শোরুমটি থেকে এই অঞ্চলের মানুষ এখন আরও সহজেই ওয়ালটনের পণ্য ও সেবা পাবেন।

চিত্রনায়ক আমিন খান বলেন, দেশে ইলেকট্রনিকস পণ্যের চাহিদা মিটিয়ে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত ওয়ালটনের পণ্য এখন ৪০টিরও অধিক দেশে রপ্তানি হচ্ছে। এই অঞ্চলে নতুন শোরুমের মাধ্যমে ওয়ালটনের ব্যবসায়িক পরিধি আরও বৃদ্ধি পাবে। আপন এন্টারপ্রাইজের মাধ্যমে হাতের নাগালেই পাবেন প্রয়োজনীয় ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিকস পণ্য।


মেট্রোসেমের নতুন চিফ বিজনেস অফিসার আসাদুল হক

মেট্রোসেম সিমেন্ট লিমিটেডের চিফ বিজনেস অফিসার পদে যোগদান করেছেন আসাদুল হক সুফিয়ানী। এ উপলক্ষে সোমবার মেট্রোসেমের করপোরেট অফিসে এক স্বাগতম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। ছবি : সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

মেট্রোসেম সিমেন্ট লিমিটেডের চিফ বিজনেস অফিসার পদে যোগদান করেছেন আসাদুল হক সুফিয়ানী। এ উপলক্ষে সোমবার মেট্রোসেমের করপোরেট অফিসে এক স্বাগতম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এতে কোম্পানির ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. শহিদুল্লাহ, বোর্ড অব ডিরেক্টর এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তাকে স্বাগতম জানান।

অনুষ্ঠানে আসাদুল হক সুফিয়ানী বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশের সিমেন্ট ইন্ডাস্ট্রি বেশ প্রতিযোগিতাপূর্ণ। নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ প্রতিনিয়ত আসছে। গতানুগতিক ধারা থেকে বেরিয়ে এসে নিত্যনতুন মার্কেটিং ও সেলস স্ট্র্যাটেজি প্রয়োগের মাধ্যমে মেট্রোসেম সিমেন্টকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই হবে আমার মূল লক্ষ্য।’

আসাদুল হক সুফিয়ানী বাংলাদেশের করপোরেটে অতি পরিচিত একটি নাম। তিনি বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি শীর্ষস্থানীয়, বহুল পরিচিত ব্র্যান্ড এবং কোম্পানিতে কাজ করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে বেঙ্গল গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ, সেভেন সার্কেল (বাংলাদেশ) লিমিটেড, শুং শিং সিমেন্ট মিলস লিমিটেড, একটেল (বর্তমান রবি)। তিনি ইউনিভার্সিটি অব দিল্লি থেকে স্নাতক অর্জন করেন এবং পরবর্তীতে যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব লিঙ্কন থেকে স্নাতকোত্তর অর্জন করেন। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

এলকো ওয়্যারসের সেলস কনফারেন্স

এলকো ওয়্যারস অ্যান্ড কেবলস লিমিটেডের বাৎসরিক সেলস কনফারেন্স সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে। ছবি : সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

দেশব্যাপী বিক্রয় পরিষেবা বৃদ্ধি, বাৎসরিক বিক্রয় পর্যালোচনা এবং পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে বাৎসরিক সেলস কনফারেন্সের ২০২৩-২০২৪ আয়োজন করেছে এলকো ওয়্যারস অ্যান্ড কেবলস লিমিটেড।

সম্প্রতি ধানমন্ডি গ্রিন গার্ডেন কনভেনশন হলে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কোম্পানিটি দীর্ঘদিন যাবৎ ইলেকট্রিক কেবলস বাজারজাত করে আসছে।

অনুষ্ঠানে কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও তারেক মাহমুদ মতিন, কোম্পানির পরিচালক (অর্থ) মো. গোলাম মোরশেদ রাসেল, পরিচালক (করপোরেট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং) মো. কামাল হোসেন মজুমদার ডলার, নির্বাহী পরিচালক সাফকাত শহীদ মোহাম্মাদ খৈয়াম, এবং কোম্পানির নির্বাহী পরিচালক (বিক্রয় ও বিপণন) মো. মুস্তাফিজুর রহমান। এ ছাড়াও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত বিপণন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

সিইএবি ও ব্র্যাক ব্যাংকের চুক্তি

চাইনিজ এন্টারপ্রাইজ অ্যাসোসিয়েশন ইন বাংলাদেশ (সিইএবি) সদস্যদের আরও বিস্তৃত পরিসরে ব্যাংকিং সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে সিইএবির সঙ্গে চুক্তি করেছে ব্র্যাক ব্যাংক। ছবি : সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

চাইনিজ এন্টারপ্রাইজ অ্যাসোসিয়েশন ইন বাংলাদেশ (সিইএবি) সদস্যদের আরও বিস্তৃত পরিসরে ব্যাংকিং সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে সিইএবির সঙ্গে চুক্তি করেছে ব্র্যাক ব্যাংক। এই কৌশলগত চুক্তির ফলে এখন থেকে সিইএবির সদস্যরা ব্র্যাক ব্যাংক থেকে অগ্রাধিকারমূলক ব্যাংকিং সেবার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা উপভোগ করবেন।

এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে ব্র্যাক ব্যাংক নিজেদের করপোরেট ব্যাংকিং ডিভিশনে একটি নিবেদিত ‘চায়না ডেস্ক’ চালু করেছে, যেখানে চীনা ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনমতো সেরা ব্যাংকিং সেবা দেওয়ার জন্য ম্যান্ডারিন ভাষায় পারদর্শী কর্মী নিয়োজিত থাকবেন।

সম্প্রতি ঢাকার বারিধারায় সিইএবি কার্যালয়ে ব্র্যাক ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড হেড অব করপোরেট ব্যাংকিং ডিভিশন তারেক রেফাত উল্লাহ খান এবং সিইএবির ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াং হং বো চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

এ সময় উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। ব্র্যাক ব্যাংক থেকে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকটির হেড অব ট্রানজ্যাকশন ব্যাংকিং একেএম ফয়সাল হালিম, ট্রানজ্যাকশন ব্যাংকিংয়ের ইউনিট হেড মুসাব্বির আহমেদ এবং ট্রানজ্যাকশন ব্যাংকিংয়ের ইউনিট লিড দিলরুবা শারমিন হক। সিইএবির প্রতিনিধি দলের মধ্যে ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ইয়াং জিয়ানশি, গুও হুজিন এবং হান জিংচাওসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সিইএবি দেশের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্য সহযোগিতার প্রসার, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কোন্নয়নের পাশাপাশি বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নেও অবদান রাখতে চায়। সম্প্রতি সিইএবি বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলোকে সমুন্নত করতে আটটি বিশেষায়িত শিল্প শাখার উদ্বোধন করেছে। ২৮০টি বড় এবং মাঝারি আকারের চীনা শিল্পপ্রতিষ্ঠান নিয়ে সিইএবি বাংলাদেশে মহাসড়ক, সেতু, রেলপথ এবং বিদ্যুৎ খাতের মতো গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো প্রকল্প নির্মাণে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে।

ব্র্যাক ব্যাংকের করপোরেট ব্যাংকিং ডিভিশন বিভিন্ন সেক্টরের ব্যতিক্রমী ব্যাংকিং প্রয়োজন মেটাতে খাতভিত্তিক বিশেষায়িত এবং আধুনিক ব্যাংকিং সেবা দিয়ে যাচ্ছে। সিইএবির সঙ্গে ব্র্যাক ব্যাংকের এই চুক্তি বাংলাদেশে কর্মরত চীনা বিনিয়োগকারী এবং প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ব্যবসায় সম্প্রসারণের চলমান প্রতিশ্রুতির প্রতিফলন। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

লংকাবাংলা ক্রেডিট কার্ডে দীপ্ত প্লে দিচ্ছে ৫০% ডিসকাউন্ট

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স পিএলসি ও দীপ্ত প্লের মধ্যে সম্প্রতি এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। ছবি : সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

সম্প্রতি লংকাবাংলা ফাইন্যান্স পিএলসি ও দীপ্ত প্লের মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তির আওতায় লংকাবাংলার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীরা দীপ্ত প্লে থেকে সাবস্ক্রিপশন ফ্রিতে ৫০% ডিসকাউন্ট সুবিধা উপভোগ করতে পারবে। লংকাবাংলা ফাইন্যান্স পিএলসির খোরশেদ আলম, হেড অব রিটেইল বিজনেস এবং দীপ্ত প্লের ফুয়াদ চৌধুরী, চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে এই সমঝোতা চুক্তিটি স্বাক্ষর করেন। উভয় প্রতিষ্ঠানের অন্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে ওই চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের মো. তৌফিকুর রহমান, হেড অব কার্ডস (ভারপ্রাপ্ত), মো. রাজিউদ্দিন, হেড অব ব্র্যান্ড মার্কেটিং অ্যান্ড কমিউনিকেশনস, মোহাম্মদ আব্দুল জলিল খান, সিনিয়র ম্যানেজার কার্ড বিজনেস; দীপ্ত প্লের মারিয়াম হক, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর, মোহাম্মদ আবু নাসিম, হেড অব ডিজিটাল মিডিয়া এবং দীপ্ত টিভির মোজাম্মেল হোসেন, হেড অব মার্কেটিং। বিজ্ঞপ্তি

বিষয়:

ক্যাশলেস ব্যাংকিং করতে পারবেন মার্কেন্টাইল ব্যাংকের গ্রাহকরা

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
করপোরেট ডেস্ক

ক্যাশলেস ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবাকে আরও সহজতর, আধুনিক ও যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে মার্কেন্টাইল ব্যাংক পিএলসি চালু করল ‘বাংলা কিউআর কোড’ সার্ভিস। এর ফলে ‘এমবিএল রেইনবো’ অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহকরা নিত্যদিনের কেনাকাটা ও অন্যান্য লেনদেন আগের চেয়ে আরও সহজে করতে পারবেন। গতকাল মঙ্গলবার ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. কামরুল ইসলাম চৌধুরী এই সার্ভিস উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিউল হাসান, উপব্যবস্থাপনা পরিচালকবৃন্দ আদিল রায়হান, শামীম আহম্মদ, মু. মাহমুদ আলম চৌধুরী ও অসীম কুমার সাহা, সিএফও তাপস চন্দ্র পাল, পিএইচডি, এসইভিপি মোহাম্মদ ইকবাল রেজওয়ান, কোম্পানি সেক্রেটারি ও হেড অব এইচআর আবু আস্গার জি. হারুনী, কার্ড ডিভিশন এবং ডিজিটাল ব্যাংকিং ও ইনোভেশন ডিভিশনের হেড মোস্তাফিজুর রহমানসহ ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন নির্বাহী ও কর্মকর্তারা।

নতুন এ সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহকরা কোনো কার্ড বা চেকবই ছাড়াই ‘বাংলা কিউআর’ সংযোজিত যেকোনো আউটলেটে কেনাকাটা করতে পারবেন। মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা ‘এমবিএল রেইনবো’ অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহকরা চলতি হিসাব বা সঞ্চয়ী হিসাবের টাকা সরাসরি ব্যবহার করতে পারবেন। ‘বাংলা কিউআর’ সার্ভিস একদম ফ্রি এবং প্রতিটি লেনদেনে এসএমএস পাঠানো হবে, ফলে এই সার্ভিস সবচেয়ে নিরাপদ। গ্রাহকরা দৈনিক ২০ হাজার ও মাসে এক লাখ টাকা পর্যন্ত এই সার্ভিসের মাধ্যমে লেনদেন করতে পারবেন।

বিষয়:

banner close