শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২

বলিউডে সিয়াম, সঙ্গী মিথিলা পালকার

বলিউডে সিয়াম, সঙ্গী মিথিলা পালকার
সিয়াম আহমেদ
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত
  • হিন্দি ভাষার নতুন একটি ছবিতে যুক্ত হচ্ছেন সিয়াম আহমেদ

  • তার সঙ্গী বলিউড অভিনেত্রী মিথিলা পালকার

হিন্দি ভাষার নতুন একটি ছবিতে যুক্ত হচ্ছেন সিয়াম আহমেদ। এই ছবিতে তার সঙ্গী বলিউড অভিনেত্রী মিথিলা পালকার ও জাভেদ জাফরি।

ছবির নাম ‘ইন দ্য রিং (স্টারি অব আ বোরকা বক্সার)’। পরিচালক যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ভারতীয় পরিচালক অলকা রঘুরাম। তিনি এর আগে কলকাতার মুসলিম নারী বক্সারদের নিয়ে ‘বোরকা বক্সার’নামে একটি প্রামাণ্যচিত্র বানিয়েছিলেন।

ভারতের কলকাতার খিদিরপুরের মুসলিম নারী বক্সারদের কথা সবাই জানে। সেখানকারই শামা নামের একজন তরুণ বক্সারকে নিয়ে ছবির গল্প। শামা জাতীয় বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে যাওয়ার সময় তার এক খালাকে হত্যাকাণ্ডের অভিযোগে ফেঁসে যান।

এক মনস্তাত্তিক থ্রিলার হিসেবে তৈরি হবে ছবিটি। ছবিতে থাকবেন রাজিয়া শবনম। প্রথম ভারতীয় নারী বক্সার, যিনি আন্তর্জাতিক বক্সিং রেফরি ও কোচ হয়েছিলেন।

সংবাদটি প্রথম প্রকাশ করে মার্কিন চলচ্চিত্র বিষয়ক সাময়িকী ভ্যারাইটি। পরে সিয়াম আহমেদ বাংলাদেশি গণমাধ্যমের কাছে খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

এই সিনেমায় যুক্ত হওয়া প্রসঙ্গে গণমাধ্যমকে সিয়াম আহমেদ বলেন, ‘চার মাস আগে আমি অডিশন দিয়েছিলাম; চুক্তিবদ্ধ হয়েছি সম্প্রতি। আমার চরিত্রের নাম রওশন। আর কিছু বলার অনুমতি নেই।’

সিনেমাটি সিঙ্গাপুর-ভিত্তিক দর্পণ গ্লোবাল এর শ্রেয়শী সেনগুপ্ত এবং ভারতের ওরিজন গ্লোবালের সৌভিক দাশগুপ্ত প্রযোজনা করছেন, লস অ্যাঞ্জেলেসের রিক অ্যামব্রোস নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে কাজ করছেন।

২০২২ সালের ডিসেম্বরে সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে।

সিয়াম আহমেদ সম্প্রতি শান ছবি দিয়ে ব্যাপক আলোচনায় এসেছেন। এবারের ঈদে পূজার সঙ্গে ‍জুটি বেঁধে এই অ্যাকশন ঘরানার ছবিতে অভিনয় করেন। গতকাল শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত আরেকটি ছবি পাপ-পুণ্য।

অন্যদিকে মিথিলা পালকার পরিচিত নেটফ্লিক্সের ছবি ‘ত্রিভঙ্গম’ দিয়ে। এই ছবিতে তার সহশিল্পী ছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল।


সীমান্তের গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’

সীমান্তের গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয় সিনেমার ফার্স্ট লুক পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত
  • সীমান্তবর্তী এলাকার অপরাধ চক্রের মধ্যেকার সংঘাত মূলত গল্পের উপজীব্য।

  • সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সৈকত নাসির, কাহিনী আসাদ জামানের।

সীমান্ত এলাকা ঘিরে গড়ে উঠেছে অপরাধ চক্র। পাচার হয় মানুষ, গরুসহ মাদকদ্রব্য। দেশের সীমান্তবর্তী এলাকার এমন নানা অপরাধমূলক ঘটনা প্রায়ই গণমাধ্যমে আসে। এবার তেমন গল্পকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে সিনেমা।

পরিবেশক প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া জানিয়েছে সিনেমাটির নাম ‘বর্ডার’। সীমান্তবর্তী এলাকার অপরাধ চক্রের মধ্যেকার সংঘাত মূলত গল্পের উপজীব্য। মুক্তি পাবে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর। এর আগে প্রচারের অংশ হিসেবে প্রকাশ পেল সিনেমাটির ফার্স্ট লুক পোস্টার।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেসবুক পেজে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয় পোস্টারটি। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সৈকত নাসির, কাহিনী আসাদ জামানের।

সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন আশীষ খন্দকার, সুমন ফারুক, সাঞ্জু জন, অধরা খান, রাশেদ মামুন অপু, মৌমিতা মৌ, শাহিন মৃধা প্রমুখ। প্রযোজনা করেছে ম্যাক্সিমাম এন্টারটেইনমেন্ট নামে একটি প্রতিষ্ঠান।


ভারতীয় নৌ-সেনাদের আড্ডায় রুটি বানালেন সালমান

ভারতীয় নৌ-সেনাদের আড্ডায় রুটি বানালেন সালমান
রান্না ঘরে রুটি বানাচ্ছেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। ছবি: সংগৃহীত
দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত

সিনেমা কিংবা বাস্তবে, সবখানেই চমক দিতে ভালোবাসেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। আর সালমানের নতুন চমকের অপেক্ষায় থাকেন ভক্ত-অনুরাগীরাও। এবার সাল্লু খ্যাত এ অভিনেতার ভিন্ন রকম এক চরিত্র সাড়া ফেলেছে নেটিজেনদের মাঝে।

সম্প্রতি ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে দেশটির নৌ-সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আড্ডায় যুক্ত হন বলিউডের ভাইজান। সাদা শার্ট, কালো প্যান্ট ও মাথায় কালো টুপি পরে নেভি অফিসারদের সঙ্গে পুরো একদিন চুটিয়ে আড্ডা দেন। 

সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে ওই আড্ডার ছবি। তাতে দেখা যায়, রান্না ঘরে ঢুকে রুটি বানাচ্ছেন সাল্লু। অন্য এক ছবিতে গানের তালে নৌ-সেনাদের সঙ্গে নাচতেও দেখা যায় তাকে।

এদিকে হত্যার হুমকি পাওয়ার পর থেকেই বেশ মানসিক চাপে আছেন সালমান। নিজের ও পরিবারের সুরক্ষায় কোনো আপষ করতে চাইছেন না তিনি। এরই মধ্যে ভারতের আদালত থেকে নিজের সঙ্গে বন্দুক রাখার অনুমতিও পেয়েছেন। 

সম্প্রতি সালমানের মুম্বাইয়ের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট চত্বরে একটি বুলেটপ্রুফ গাড়ি ঘুরতে দেখা গেছে। বলা হচ্ছে, নিজের সুরক্ষার জন্যই বুলেটপ্রুফ ল্যান্ড ক্রুজারটি কিনেছেন সালমান। আত্মরক্ষার স্বার্থেই এখন থেকে তিনি এই গাড়িতেই যাতায়াত করবেন।


ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’

ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’
ছেলের এ ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত

চিত্রনায়িকা পরীমনির কোল আলো করে এসেছে নতুন অতিথি। রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতককে বুকে জড়িয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন পরী; জানিয়ে দিয়েছেন ছেলের পুরো নামও।

সেই ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

সন্তান ছেলে হলে নাম রাজ্য রাখবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন পরীমনি। কথা অনুযায়ী করলেনও তা-ই।

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে বুধবার ৫টা ৩৬ মিনিটে পৃথিবীতে আসে পরী-রাজের সন্তান।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমনি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে।


মায়ের জন্য ভারতে বাপ্পী

মায়ের জন্য ভারতে বাপ্পী
বাপ্পী
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত

মায়ের চিকিৎসার কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই ভারতের হায়দারাবাদে অবস্থান করছেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী। যে কারণে এবার ঈদে মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলো এখনও দেখা হয়ে ওঠেনি এই চিত্রনায়কের।

তাই তো দেশের বাইরে থেকে দেশকে ও বাংলা সিনেমাকে মিস করছেন এই চিত্রনায়ক। এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে সেই অনুভূতিই ব্যক্ত করেছেন তিনি।

এবার ঈদে মুক্তি পাওয়া পরাণ, দিন- দ্য ডে ও সাইকো সিনেমার তিনটি পোস্টার শেয়ার করে বাপ্পী লেখেন, ‘বাংলাদেশকে মিস করছি। মিস করছি বাংলা সিনেমাকে। ভাবছেন নীরব কেন আপনাদের বাপ্পী? প্রিয় ভক্তবৃন্দ- এ মুহূর্তে আমার পুরোপুরি মনোযোগ মায়ের সুস্থতা নিয়ে। ঈদের আগেই ভারতের হায়দারাবাদে এসেছি।’

‘যদিও শত ব্যস্ততার মাঝে ঈদের সিনেমার খবর রাখতে ভুল করিনি। জেনেছি দর্শক আমাদের সিনেমাগুলো দারুণভাবে গ্রহণ করেছে। আপনাদের আশীর্বাদে সব ঠিক থাকলে আগামী ২৫ জুলাই ঢাকার পথে মাকে নিয়ে রওনা হবো। এসেই কথা দিচ্ছি সিনেমাগুলো দেখা শেষ করব। জয় হোক বাংলা সিনেমার।’

এদিকে বাপ্পীর হাতে রয়েছে জয় বাংলা, কুস্তিগির, শত্রুসহ একাধিক সিনেমা। এর মধ্যে জয় বাংলা ও কুস্তিগিরের শুটিংও শেষ করেছেন এই চিত্রনায়ক।

বিষয়:

যেন পুরোনো দিনে ফেরা

যেন পুরোনো দিনে ফেরা
পরাণ ছবির পোস্টারের সঙ্গে সেলফি তুলছেন একটি সিনেমাপ্রেমী পরিবার
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত

‘জীবনে প্রথম হলে গিয়ে কোনো সিনেমা দেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি! এখন

সাইকো/পরাণ/নাকি দিন- দ্য ডে দেখা উচিত হবে আমার?’ ফেসবুকে বাংলা চলচ্চিত্র নামের একটি গ্রুপে এমডি কবির হোসাইন সম্রাট নামের একজন দর্শক জানতে চেয়েছেন। নতুন হোক কিংবা পুরোনো দর্শক, এবারের ঈদ সিনেমা হলে মানুষ টানতে সক্ষম হয়েছে, এটি বোঝা গেল বেশ ভালোভাবেই। অনলাইন কিংবা অফলাইন- দুই জায়গাতেই শোনা গেছে খাদের কিনারে পড়ে যাওয়া বাংলা সিনেমা নিয়ে আশা জাগানিয়া গান। হচ্ছে আলোচনা, সমালোচনা, তর্ক-বিতর্ক।

গত কয়েক বছর ধরেই দেদার হল কমছে। হাতে গোনা যা আছে তার অবস্থাও তথৈবচ। একটু আয়েশ করে ছবি দেখা যায়, এমন হলো মাত্র কয়েকটা। ওদিকে কমছে ছবি নির্মাণও। নায়ক-নায়িকা আর এফডিসিপাড়া গরম নির্বাচন নিয়ে। বাংলা চলচ্চিত্রের এমন বেহাল দশায় শেষ পেড়েকটি মারল করোনা। করোনাকালীন মানুষের অনভ্যস্ততা তৈরি হয়ে যায় সিনেমা হলে যাওয়ার। বন্ধ হয়ে যায় কয়েকটি সিনেমা হলও। এমন যখন অবস্থা, তখন ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেল কয়েকটি ছবি। কিন্তু আশানুরূপ ফল নেই। ঈদুল ফিতরই ছবি মুক্তির সবচেয়ে বড় উৎসব। ছিল শাকিবের মতো তারকা নায়ক ও তরুণ সিয়ামের ছবিও। তবু সিনেমা হলে আশানুরূপ দর্শক হয়নি। এ অবস্থায় বাংলা চলচ্চিত্র নিয়ে আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন চলচ্চিত্রপ্রেমীরা।