শুক্রবার, আগস্ট ১২, ২০২২

যে কারণে বিয়ে করেননি সুস্মিতা

যে কারণে বিয়ে করেননি সুস্মিতা
সুস্মিতা সেন
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত

কেন বিয়ে করেননি সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন- এমন প্রশ্ন হয়তো তার লাখো ভক্তের মনে। এবার সেই প্রশ্নের-ই উত্তর দিলেন তিনি।

এ নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টুইক ইন্ডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলের দ্য আইকনস অনুষ্ঠানে টুইঙ্কেল খান্নার সঙ্গে কথোপকথনে সুস্মিতা অকপটে জানান, কেন তিনি বিয়ে করেননি এবং এর কারণ সম্পর্কে।

সুস্মিতা বলেন, ‘সৌভাগ্যবশত আমি আমার জীবনে খুব আকর্ষণীয় কিছু পুরুষের সঙ্গে দেখা করেছি, আমি কখনই বিয়ে করিনি একমাত্র কারণ তারা হতাশ ছিল। আমার বাচ্চাদের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক ছিল না। আমার বাচ্চারা কখনই সমীকরণে ছিল না। তারা এই ব্যাপারে উদার ছিল।

‘আমার দুই বাচ্চাই আমার জীবনের মানুষকে সাদরে গ্রহণ করেছে, কখনো অপছন্দ করেনি। তারা সবাইকে সমান ভালোবাসা ও সম্মান দিয়েছে। এটা আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দর দৃশ্য।’

অভিনেত্রী আরো যোগ করেন, ‘আমি তিনবার বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, তিনবারই ঈশ্বর আমাকে বাঁচিয়েছিলেন। তাদের নিজ নিজ জীবনে কী কী বিপর্যয় এসেছিল তা আমি বলতে পারব না। ঈশ্বর আমাকে রক্ষা করেছেন। কারণ ঈশ্বর এই দুটি বাচ্চাকে রক্ষা করছেন। আমাকে একটি অগোছালো সম্পর্কে জড়াতে দেননি।’

গত বছর সুস্মিতা ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টের মাধ্যমে বয়ফ্রেন্ড রেহমানের সঙ্গে ব্রেকআপের ঘোষণা করেন। সেই পোস্টে তিনি লেখেন, ‘আমরা বন্ধু হিসেবে শুরু করেছি, আমরা বন্ধু রয়েছি! সম্পর্কটি অনেক দিন শেষ হয়ে গেছে... ভালোবাসা রয়ে গেছে।’

সিঙ্গেল মাদার সুস্মিতার দুই মেয়ে আলিসা ও রেনে। তিনি ২০০০ সালে রেনেকে এবং ২০১০ সালে আলিসাকে দত্তক নেন।

সুস্মিতা ১৯৯৪ সালে মিস ইউনিভার্সের মুকুট জয় করেন। এরপর ১৯৯৬ সালে দস্তক চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন। শেষ তাকে দেখা গেছে ওয়েব সিরিজ আরিয়া টুতে।


সীমান্তের গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’

সীমান্তের গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয় সিনেমার ফার্স্ট লুক পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত
  • সীমান্তবর্তী এলাকার অপরাধ চক্রের মধ্যেকার সংঘাত মূলত গল্পের উপজীব্য।

  • সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সৈকত নাসির, কাহিনী আসাদ জামানের।

সীমান্ত এলাকা ঘিরে গড়ে উঠেছে অপরাধ চক্র। পাচার হয় মানুষ, গরুসহ মাদকদ্রব্য। দেশের সীমান্তবর্তী এলাকার এমন নানা অপরাধমূলক ঘটনা প্রায়ই গণমাধ্যমে আসে। এবার তেমন গল্পকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে সিনেমা।

পরিবেশক প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া জানিয়েছে সিনেমাটির নাম ‘বর্ডার’। সীমান্তবর্তী এলাকার অপরাধ চক্রের মধ্যেকার সংঘাত মূলত গল্পের উপজীব্য। মুক্তি পাবে আগামী ৯ সেপ্টেম্বর। এর আগে প্রচারের অংশ হিসেবে প্রকাশ পেল সিনেমাটির ফার্স্ট লুক পোস্টার।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেসবুক পেজে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয় পোস্টারটি। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সৈকত নাসির, কাহিনী আসাদ জামানের।

সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন আশীষ খন্দকার, সুমন ফারুক, সাঞ্জু জন, অধরা খান, রাশেদ মামুন অপু, মৌমিতা মৌ, শাহিন মৃধা প্রমুখ। প্রযোজনা করেছে ম্যাক্সিমাম এন্টারটেইনমেন্ট নামে একটি প্রতিষ্ঠান।


ভারতীয় নৌ-সেনাদের আড্ডায় রুটি বানালেন সালমান

ভারতীয় নৌ-সেনাদের আড্ডায় রুটি বানালেন সালমান
রান্না ঘরে রুটি বানাচ্ছেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। ছবি: সংগৃহীত
দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত

সিনেমা কিংবা বাস্তবে, সবখানেই চমক দিতে ভালোবাসেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। আর সালমানের নতুন চমকের অপেক্ষায় থাকেন ভক্ত-অনুরাগীরাও। এবার সাল্লু খ্যাত এ অভিনেতার ভিন্ন রকম এক চরিত্র সাড়া ফেলেছে নেটিজেনদের মাঝে।

সম্প্রতি ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে দেশটির নৌ-সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আড্ডায় যুক্ত হন বলিউডের ভাইজান। সাদা শার্ট, কালো প্যান্ট ও মাথায় কালো টুপি পরে নেভি অফিসারদের সঙ্গে পুরো একদিন চুটিয়ে আড্ডা দেন। 

সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে ওই আড্ডার ছবি। তাতে দেখা যায়, রান্না ঘরে ঢুকে রুটি বানাচ্ছেন সাল্লু। অন্য এক ছবিতে গানের তালে নৌ-সেনাদের সঙ্গে নাচতেও দেখা যায় তাকে।

এদিকে হত্যার হুমকি পাওয়ার পর থেকেই বেশ মানসিক চাপে আছেন সালমান। নিজের ও পরিবারের সুরক্ষায় কোনো আপষ করতে চাইছেন না তিনি। এরই মধ্যে ভারতের আদালত থেকে নিজের সঙ্গে বন্দুক রাখার অনুমতিও পেয়েছেন। 

সম্প্রতি সালমানের মুম্বাইয়ের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট চত্বরে একটি বুলেটপ্রুফ গাড়ি ঘুরতে দেখা গেছে। বলা হচ্ছে, নিজের সুরক্ষার জন্যই বুলেটপ্রুফ ল্যান্ড ক্রুজারটি কিনেছেন সালমান। আত্মরক্ষার স্বার্থেই এখন থেকে তিনি এই গাড়িতেই যাতায়াত করবেন।


ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’

ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’
ছেলের এ ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত

চিত্রনায়িকা পরীমনির কোল আলো করে এসেছে নতুন অতিথি। রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতককে বুকে জড়িয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন পরী; জানিয়ে দিয়েছেন ছেলের পুরো নামও।

সেই ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

সন্তান ছেলে হলে নাম রাজ্য রাখবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন পরীমনি। কথা অনুযায়ী করলেনও তা-ই।

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে বুধবার ৫টা ৩৬ মিনিটে পৃথিবীতে আসে পরী-রাজের সন্তান।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমনি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে।


মায়ের জন্য ভারতে বাপ্পী

মায়ের জন্য ভারতে বাপ্পী
বাপ্পী
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত

মায়ের চিকিৎসার কারণে বেশ কিছুদিন ধরেই ভারতের হায়দারাবাদে অবস্থান করছেন চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী। যে কারণে এবার ঈদে মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলো এখনও দেখা হয়ে ওঠেনি এই চিত্রনায়কের।

তাই তো দেশের বাইরে থেকে দেশকে ও বাংলা সিনেমাকে মিস করছেন এই চিত্রনায়ক। এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে সেই অনুভূতিই ব্যক্ত করেছেন তিনি।

এবার ঈদে মুক্তি পাওয়া পরাণ, দিন- দ্য ডে ও সাইকো সিনেমার তিনটি পোস্টার শেয়ার করে বাপ্পী লেখেন, ‘বাংলাদেশকে মিস করছি। মিস করছি বাংলা সিনেমাকে। ভাবছেন নীরব কেন আপনাদের বাপ্পী? প্রিয় ভক্তবৃন্দ- এ মুহূর্তে আমার পুরোপুরি মনোযোগ মায়ের সুস্থতা নিয়ে। ঈদের আগেই ভারতের হায়দারাবাদে এসেছি।’

‘যদিও শত ব্যস্ততার মাঝে ঈদের সিনেমার খবর রাখতে ভুল করিনি। জেনেছি দর্শক আমাদের সিনেমাগুলো দারুণভাবে গ্রহণ করেছে। আপনাদের আশীর্বাদে সব ঠিক থাকলে আগামী ২৫ জুলাই ঢাকার পথে মাকে নিয়ে রওনা হবো। এসেই কথা দিচ্ছি সিনেমাগুলো দেখা শেষ করব। জয় হোক বাংলা সিনেমার।’

এদিকে বাপ্পীর হাতে রয়েছে জয় বাংলা, কুস্তিগির, শত্রুসহ একাধিক সিনেমা। এর মধ্যে জয় বাংলা ও কুস্তিগিরের শুটিংও শেষ করেছেন এই চিত্রনায়ক।

বিষয়:

দাম্পত্যের ১২ বছরে কী সুখবর দিলেন ফারুকী-তিশা

দাম্পত্যের ১২ বছরে কী সুখবর দিলেন ফারুকী-তিশা
নুসরাত ইমরোজ তিশা ও তাঁর মেয়ে ইলহাম
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত

এ বছরটা আমাদের জন্য অদ্ভুত একটা বছর হয়ে থাকবে। এ বছরেই আমাদের জীবনে এসেছে ইলহাম। আবার এ বছরেই চলে গেলেন আমার বাবা। আর এ বছরই আমাদের বিয়ের ১২ বছর পূর্তি হলো। আমাদের মনের অবস্থাটা কী, এটা বোঝানোর মতো জুতসই শব্দ খুঁজছিলাম। পাই নাই। কত শত স্মৃতি মনে পড়ছে আমাদের এই ১২ বছরের। এই জীবন তো কেবল স্মৃতি জমানোরই খেলা। 

আশা করি, সামনে আরও মধুর-অম্ল সব স্মৃতি জমা হবে আমাদের ভাণ্ডারে।  আমাদের যৌথ জীবনের সবচেয়ে সুন্দর ঘটনা ইলহাম। আজকের এই দিনে আমরা ওর ছবি আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করছি। আপনারা ওর জন্য দোয়া করবেন। সবাই ভালো থাকবেন।

নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও তার স্ত্রী অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা তাদের মেয়ে ইলহাম নুসরাত ফারুকীর ছবি প্রকাশ করেন ফেসবুকে।