রোববার, ২৩ জুন ২০২৪

বহুল আলোচিত চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন আজ

আপডেটেড
১৯ এপ্রিল, ২০২৪ ০০:২০
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ ০০:২০

শেষ হলো অপেক্ষার পালা। নানা নাটকীয়তা ও জলঘোলার পর আজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সমিতির দ্বি-বার্ষিক (২০২৪-২০২৬) নির্বাচন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। বহুল আলোচিত এই নির্বাচন নিয়ে বেশ কয়েক মাস ধরেই সরগরম ছিল চলচ্চিত্রপাড়া। ঈদের পর নির্বাচনের শেষ সময়ে প্রচার-প্রচারণা আরও মুখর হয়ে ওঠে।

২১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটিতে ঠাঁই পেতে এবারের নির্বাচনে ৬ জন স্বতন্ত্রসহ ২টি প্যানেল থেকে মোট ৪৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। দুই প্যানেলের একটিতে আছেন অভিনেতা মিশা সওদাগর ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল আর অন্যটিতে একসময়ের জনপ্রিয় নায়ক মাহমুদ কলি ও চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার।

মিশা-ডিপজল পরিষদের হয়ে নির্বাচনে সহসভাপতির পদে লড়বেন মাসুম পারভেজ রুবেল ও ডি এ তায়েব। এ ছাড়া সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে জয় চৌধুরী, আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক পদে আলেকজান্ডার বো, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক জ্যাকি আলমগীর, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে ডন এবং কোষাধ্যক্ষ পদপ্রার্থী কমল।

এ ছাড়াও কার্যকরী পরিষদের সদস্য পদে নির্বাচন করছেন অভিনেত্রী সুচরিতা, রোজিনা, আলীরাজ, সুব্রত, দিলারা ইয়াসমিন, শাহনূর, নানা শাহ, রত্না কবির, চুন্নু, সাঞ্জু জন, ফিরোজ মিয়া।

অন্যদিকে, মাহমুদ কলি-নিপুণ প্যানেলের প্রার্থী হয়েছেন- সহসভাপতি পদে ড্যানি সিডাক ও অমিত হাসান। সহ-সাধারণ সম্পাদক বাপ্পি সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক অঞ্জনা রহমান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মারুফ আকিব, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক কাবিলা, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক মামনুন হাসান ইমন ও কোষাধ্যক্ষ পদে অভিনেতা আজাদ খান।

কার্যকরী পরিষদের সদস্য পদের হিসেবে থাকছেন সুজাতা আজিম, নাদের চৌধুরী, পীরজাদা হারুন, পলি, জেসমিন আক্তার, তানভীর তনু, মো. সাইফুল, সাদিয়া মির্জা, সনি রহমান, হেলেনা জাহাঙ্গীর ও সাইফ খান।

এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে থাকছেন খোরশেদ আলম খসরু। সদস্য হিসেবে আছেন এ জে রানা ও বি এইচ নিশান। মোট ভোটার সংখ্যা ৫৭০ জন। তারাই বেছে নেবেন আগামী দুই বছরের চলচ্চিত্র শিল্পীদের নেতা-অভিভাবক।

ইতোমধ্যেই ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচন ঘিরে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। এবারই প্রথম শিল্পীদের নির্বাচনে ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবে।

এ বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বলেন, ‘এবার ভোটার আছেন ৫৭০ জন। নির্বাচনে যেন কোনো ঝামেলা না হয় সেই চেষ্টা থাকবে। সুষ্ঠু পরিবেশে ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করব। গতবারের কোনো প্রভাব যেন এই নির্বাচনে না পড়ে সেটাও খেয়াল রাখছি।’


অনিলের হাত ধরেই ‘বিগ বস ওটিটি’র তৃতীয় সিজন শুরু

অনিল কাপুর। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ২৩ জুন, ২০২৪ ০০:০৩
বিনোদন ডেস্ক

বিগ বস ওটিটি-৩ নিয়ে কম আলোচনা হয়নি। কে হবেন এর হোস্ট? এটা নিয়ে বলিউডে নানা খবর চাউর ছিল। কেননা সালমান খানের হোস্ট হচ্ছেন না সেটা আগেই জানা গেছে। ফলে সালমানের স্থলে কে করবেন এত বড় শোর ওটিটি-৩ ভার্সনের হোস্ট! সারা বিশ্বে বিগ বসের আজকে যে জনপ্রিয়তা তার বেশিরভাগ অংশই হচ্ছে সালমানের জনপ্রিয়তার কারনেই। শেষমেষ জানা যায় এই শোর ওটিটি ভার্সনের উপস্থাপনা করবেন অনিল কাপুর। ‍

যদির শুরুতে সালমান খানের ছবি দিয়ে প্রথম পোস্টার প্রকাশ্যে আসা থেকে নতুন সিজনের ঘোষণা, এরপর শেষমুহূর্তে সঞ্চালক পরিবর্তন। ধীরে ধীরে প্রকাশ্যে আসে অনিল কপুর এই সিজনে সঞ্চালনার দায়িত্ব নেবেন। ইতিমধ্যে, প্রতিযোগিদের একটি তালিকাও অনলাইনে প্রকাশিত হয়েছে। প্রথমবারের মতো বিগ বসের মঞ্চ সামলাবেন অনিল কাপুর।

‘বিগ বস ওটিটি ৩’-এর প্রিমিয়ার সম্প্রতি শুরু হয়েছে। নির্মাতারা দর্শকদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন চব্বিশ ঘণ্টা সাতদিনের সব মুহূর্ত তুলে ধরবেন। অনুষ্ঠানটি প্রতিদিন রাত ৯টায় প্রচারিত হবে।

‘বিগ বস ওটিটি’র তৃতীয় সিজনের প্রতিযোগী অভিনেতা রণবীর শোরে, লভ কাটারিয়া, সানা মকবুল, সাই কেতন রাও, পৌলমী পোলো দাস এবং মুনিশা খাতওয়ানি ‘বিগ বস ওটিটি ৩’-এ অংশগ্রহণ করেছেন। একই সঙ্গে শিবানী কুমারী, বিশাল পাণ্ডে, আরমান মালিক এবং তার দুই স্ত্রী এবং সানা সুলতানের মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্রভাবশালীরাও রয়েছেন। এ ছাড়া জনপ্রিয় ইনফ্লুয়েন্সার চন্দ্রিকা দীক্ষিত, সাংবাদিক দীপক চৌরাসিয়া, র‌্যাপার নেজি এবং কুস্তিগির নিরজ গোয়াতও বিগ বস ওটিটি হাউজে থাকছেন।

চলতি সিজনে অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার, সংগীতশিল্পী, সংবাদ জগৎ থেকে বিভিন্ন মাধ্যমের লোকেরা উপস্থিত থাকছেন যা এই সিজনকে আরও টানটান করে তুলবে বলে আশাবাদী সবাই। এখন দেখার বিষয় সালমানের জায়গায় অনিল কাপুর কতটা জমাতে পারেন এই শো।


দুই সন্তানই পরীমনির সব

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ২২ জুন, ২০২৪ ০০:০৬
বিনোদন প্রতিবেদক

নানা ঘটনার জন্য সবসময়ই আলোচনায় থাকেন পরীমনি। ঢাকাই ছবির এ নায়িকা যতটা না নিজের কাজ নিয়ে মিডিয়ায় সরব থাকেন, তার চেয়েও বেশি থাকেন ব্যক্তিগত ইস্যু নিয়ে। বিয়ে-সংসার-সন্তান কিংবা মামলা- এগুলোই বেশি আলোচনায় আসে বারবার।

সম্প্রতি ঈদ উপলক্ষে আয়োজিত এক টিভি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছেন এ চিত্রনায়িকা। মাছরাঙা টেলিভিশনের রান্নাবিষয়ক অনুষ্ঠানে পরী বললেন, ব্যক্তিগত জীবনের নানা বাঁকবদলের গল্প। প্রায়ই রান্না নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে ছবি পোস্ট করেন পরীমনি। রান্না করতে কেমন লাগে নায়িকার? উপস্থাপিকার এই প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘আমি রান্নাটাকে খুব উপভোগ করি। রান্নাঘর মানেই আমার কাছে এই একটু গানটান বাজবে। এখন যেটা হয় যে একদিকে বাবুর সঙ্গে খেলি একদিকে রান্না করি। যদিও সময়টা করে উঠতে পারি না এখন।’

দুই সন্তানের দায়িত্ব পরীর কাঁধে, তাদের সামলানো কতটা কঠিন? জবাবে পরী বলেন, ‘কঠিন তো অবশ্যই। তবে পারছি। সবাই তো খুব টেনশনে ছিল মাত্র কাজে ঢুকলাম, তার মধ্যে পারব কি না? সবাই কেন এত টেনশন করেছে জানি না। তবে আমার কোনো চাপ মনে হচ্ছে না। খুবই উপভোগ করে আসলে কাজটা করছি।’

কলকাতায় ‘ফেলুবক্সী’র শুটিং জার্নি প্রসঙ্গে নায়িকার ভাষ্য, ‘ওখানকার সবাই আমাকে অনেক ভালোবাসে। সেটা আমি বুঝতে পারি। আসলে বোঝা যায়। তাদের ভালোবাসার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। বলিউডে আমার প্রিয় পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালি।’ পরীর জীবনে কোনো পারফেক্ট মানুষ যদি আসে, তাহলে তাকে কি গ্রহণ করবেন?

নায়িকার সোজাসাপটা উত্তর, ‘আসছে তো। এই যে দুজন অ্যাঞ্জেল আমার জীবনে, পরীর ডানা দুইটা। আর কে আসবে? কিসের জন্য অপেক্ষা? অন্য কোনো মানুষ আর দরকার নেই, একদম গ্যারান্টি।’ পরীমনি অভিনীত ওয়েব সিরিজ ‘রঙিলা কিতাব’ ও পশ্চিমবঙ্গের সিনেমা ‘ফেলুবক্সী’ মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। ২০২১ সালে চিত্রনায়ক শরিফুল রাজকে বিয়ে করেন পরীমনি। পরের বছরেই তাদের সংসারে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম নেয়। গত বছরের সেপ্টেম্বরে বিচ্ছেদের পথে হাঁটে এই দম্পতি।

বিষয়:

সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী দীপিকা

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন ডেস্ক

২০২৪ সালের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী হিসেবে সেরার তালিকার শীর্ষে উঠে এল দীপিকার নাম। বলিউডের এ অভিনেত্রী পেছনে ফেলেছেন আলিয়া, কঙ্গনা, প্রিয়াঙ্কাদের। এদিকে মা হতে যাওয়া দীপিকা সদ্যই নিজের বেবি বাম্প নিয়ে সবার সামনে এসেছেন অভিনেত্রী। সামনে মুক্তি পেতে চলেছে তার চলচ্চিত্র ‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’। এতসব আলোচনার মাঝে নতুন করে আলোচনার তুঙ্গে এই অভিনেত্রী।

সম্প্রতি বলিউড অভিনেত্রীদের আয়ের তালিকা প্রকাশ করেছে বিশ্বখ্যাত ম্যাগাজিন ফোর্বস। যেখানে দীপিকা পাড়ুকোন ভারতের ২০২৪ সালের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী হিসেবে ঘোষিত হয়েছেন। তথ্য বলছে, অভিনেত্রীর বর্তমান পারিশ্রমিক ভারতীয় মুদ্রায় ১৫ কোটি থেকে ৩০ কোটি টাকা। তালিকায় এরপর রয়েছেন অভিনেত্রী-রাজনীতিবিদ কঙ্গনা রানাওয়াত। তার পারিশ্রমিক ১৫ কোটি থেকে ২৭ কোটি টাকা। অন্যদিকে প্রতি সিনেমায় ১৫ কোটি থেকে ২৫ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিয়ে তালিকায় তৃতীয় স্থানে রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ফোর্বসের তালিকায় এর পরেই রয়েছে আলিয়া, ক্যাটরিনা, বিদ্যা বালান, কারিনা কাপুর খানরা।

দীপিকার বলিউড যাত্রা খুব একটা সহজ ছিল না। মডেলিং জগত থেকে সিনেমায় পা দেন তিনি। শাহরুখের সঙ্গে জুটি বেঁধে প্রথম ছবি ‘ওম শান্তি ওম’ সুপারহিট। তার পর বেশ কয়েকটি ফ্লপের মুখও দেখতে হয়েছে তাঁকে। তবে রণবীর কাপুরের সঙ্গে জুটি বেঁধে রিল ও রিয়্যাল দুটোতেই খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিলেন দীপিকা। এমনকি বলিউডের পাশাপাশি হলিউডেও ছবি করেছেন দীপিকা। দীপিকার ঝুলিতে এই মুহূর্তে রয়েছে বেশ কয়েকটি বিগ বাজেটের চলচ্চিত্র। দীপিকাকে এই মাসের শেষের দিকে প্রভাস এবং অমিতাভ বচ্চনের বিপরীতে ‘কল্কি ২৮৯৮ এডি’তে দেখা যাবে। সঙ্গে রয়েছে রোহিত শেঠির ‘সিংহম ৩’।

বিষয়:

৬টি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট কিনেছেন অভিষেক

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন ডেস্ক 

মুম্বাইয়ে একসঙ্গে ছয়টি ফ্ল্যাট কিনেছেন অভিষেক বচ্চন। বোরিভালি ইস্টের ওয়েস্টার্ন এক্সপ্রেস হাইওয়ের কাছে একটি বহুতল ভবনের ৫৭ তলায় অভিষেকের কেনা ছয়টি ফ্ল্যাটের অবস্থান। গত ২৮ মে ফ্ল্যাট কেনার আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন তিনি। খবর- ইন্ডিয়া টুডের।

ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, অভিষেকের কেনা বিলাসবহুল এসব ফ্ল্যাটের মূল্য ১৫ কোটি রুপির বেশি। এদিকে বলিউডে জোর গুঞ্জন চলছে, বচ্চন পরিবারে কিছু একটা চলছে। অভিষেক বচ্চন ও ঐশ্বরিয়া রাই দম্পতির সম্পর্কের সমীকরণটা মোটেও ভালো যাচ্ছে না। এই দম্পতির বিচ্ছেদ নাকি আসন্ন, সময়ের অপেক্ষামাত্র। পারিবারিক সম্পর্কের টানাপোড়েন এতটাই তুঙ্গে যে একমাত্র মেয়ে আরাধ্যকে নিয়ে মায়ের সঙ্গে থাকছেন ঐশ্বরিয়া। গুঞ্জনের মধ্যেই একটি অনুষ্ঠানে অভিষেকের হাতে বিয়ের আংটি দেখা যায়নি। শুধু তাই নয়, পুত্রবধূকে নাকি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে আনফলো করে দিয়েছেন অমিতাভ বচ্চন।

বলা চলে, বচ্চনদের অন্দরে ছেলে ও বউকে নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিল পরিস্থিতি। যদিও বিবাহবার্ষিকীর দিনে স্বামী ও মেয়ের ছবি পোস্ট করে বিচ্ছেদের জল্পনায় পানি ঢেলেছেন ঐশ্বরিয়া। তবে এবার ঐশ্বরিয়া নন, একসঙ্গে ছয়টি ফ্ল্যাট কিনে গুঞ্জন তৈরি করেছেন অভিষেক নিজেই। অভিষেক কেন এসব ফ্ল্যাট কিনেছেন, তা নিয়েও জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে বচ্চন পরিবারের বক্তব্য এখনো সামনে আসেনি। এসব ফ্ল্যাটে স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে থাকবেন কি না, সেটিও এখনো স্পষ্ট নয়।

বিষয়:

ভারতের শীর্ষ ধনী তারকা শাহরুখ

আপডেটেড ২১ জুন, ২০২৪ ০০:০৪
বিনোদন ডেস্ক

এ বছর ভারতের শীর্ষ ধনী তারকার নামের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছেন বলিউড কিং শাহরুখ খানের নাম। প্রতি বছরই সম্পদের নিরিখে শীর্ষ তারকাদের তালিকা প্রকাশ করে ফোর্বস সাময়িকী। এবার ফোর্বস ইন্ডিয়া প্রকাশ করেছে আয়ের নিরিখে ভারতের শীর্ষ ১০ তারকার তালিকা।

পাঠান’, ‘জওয়ান’, ‘ডানকি’ দিয়ে গত বছরটা নিজের করে নিয়েছেন শাহরুখ খান। অনুমিতভাবেই এ তালিকার শীর্ষে আছে তাই শাহরুখ খানের নাম। এরপর এ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন সালমান খান, আমির খান, আল্লু অর্জুন, অক্ষয় কুমার, রজনীকান্তদের নাম। ফোর্বস ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী, শাহরুখের সম্পত্তির পরিমাণ ৬ হাজার ৩০০ কোটি রুপি। গত বছর ‘পাঠান’ দিয়ে শাহরুখ খান প্রায় চার বছর পর বড় পর্দায় প্রত্যাবর্তন করেন। এরপর আসে ‘জওয়ান’। ‘পাঠান’ ও ‘জওয়ান’এ দুই সিনেমা বিশ্বজুড়ে প্রায় ২ হাজার কোটি রুপির বেশি আয় করেছিল। ‘ডানকি’ ছবিটিও মোটের ওপর ভালোই ব্যবসা করেছিল। সবটা মিলিয়েই ভারতের সবচেয়ে বিত্তশালী তারকা হয়েছেন শাহরুখ।

ফোর্বসের তালিকায় এর পরেই আছেন সালমান খান। তার সম্পত্তির পরিমাণ ২ হাজার ৯০০ কোটি রুপি। এরপরই আছেন অক্ষয় কুমার।

২ হাজার ৫০০ কোটি রুপির সম্পত্তি আছে তার। অন্যদিকে আমির খান ১ হাজার ৮৬২ কোটি রুপির মালিক। তালিকায় এরপরই আছেন দক্ষিণি তারকা থালাপতি বিজয়। তার সম্পত্তির পরিমাণ ৪৭৪ কোটি রুপি। অন্যদিকে রজনীকান্তের আছে ৪৩০ কোটি রুপির সম্পত্তি। ‘পুষ্পা’খ্যাত অভিনেতা আল্লু অর্জুনের সম্পত্তি আছে ৩৫০ কোটি রুপির। প্রভাস ও অজিত কুমারের সম্পত্তির মূল্য যথাক্রমে ২৪১ কোটি ও ১৯৬ কোটি রুপি। এ তালিকার দশম স্থানে আছেন কমল হাসান। তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ১৫০ কোটি রুপি।

বিষয়:

শাকিবের তুফানময় ঈদ!

আপডেটেড ২০ জুন, ২০২৪ ০০:৫০
বিনোদন প্রতিবেদক

এমনটিই হওয়ার কথা ছিল! একটি ছবি নিয়ে এত হৈহুল্লোড় আর মাতামাতি হতে পারে তা আসলে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার আগে বোঝা যায়নি। ঈদুল আজহার কয়েকদিন আগে থেকে যখন ছবির টিজার আর পোস্টার ঝলক ছাড়া হয়েছিল, তখনিই শাকিব ভক্ত তথা ঢাকাই সিনেমাপাড়ার দর্শকরা বলেছিল ‘তুফান’ সত্যিকারের তুফান নামিয়ে আনবে।

বাংলা ছবি যে তার পথ পরিবর্তন করছে তা তুফান ছবি দেখেই মনে হচ্ছে। শাকিবিয়ানদের উন্মাদনা, রায়হার রাফীর মেকিং কিংবা গল্পের ধরন সবকিছুই ছাপিয়ে গেছে তুফান। এই তুফান যে ঢাকাই ছবিতে আলাদাভাবে তুফানময় করে তুলবে, তা ছবি মুক্তির আগেই চলচ্চিত্র বোদ্ধারা ধারণা করেছিল। যদিও শাকিব হেটার্সদের কথা ছিল ভিন্ন। তারা তো তুফান নিয়ে নানান সমালোচনা করেই যাচ্ছেন। অবশ্য শাকিবিয়ানদের মতে, ঈদের মুক্তিপ্রাপ্ত অন্য ছবিগুলো আলোচনায় আনার জন্যই তারা নানা কথা বলে বেড়াচ্ছে।

এদিকে ঈদুল আজহার পরের দিন থেকেই মূলত প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবি দেখে থাকে দর্শক। ঈদের দিনের কোরবানির একটা ব্যস্ততায় সেভাবে বিনোদনের জন্য সময় বের করা হয় না মানুষের। তাই তো তুফানের মূল দর্শক আলোচনা ঈদের দ্বিতীয় দিন থেকেই বেশি বোঝা যায়। আর গতকাল ঈদের তৃতীয় দিন তো তুফান নিয়ে রীতিমতো দর্শক মাতোয়ারা বলা যায়।

তুফান ছবিতে শাকিব খান এবং কলকাতার মিমি ছাড়াও ভিন্নকিছু পারফর্মার যোগ করায় পরিচালক রায়হান রাফী কিছু সিগনেচার রেখেছেন। ছবিতে চঞ্চল চৌধুরীর অভিনয় যোগ করেছে ভিন্নমাত্রা। এ ছাড়া সালাহউদ্দিন লাভলু, নাবিলাসহ আরও কিছু অভিনয়শিল্পীর উপস্থিতি সত্যিকার অর্থে ছবিটিতে আলাদা মাত্রা দিয়েছে। আর তো রয়েছে মেকিং। এত দিন বাংলা ছবির দর্শকরা দক্ষিণি তামিল-তেলেগুর ছবি দেখে আফসোস করত ঢাকাই ছবিতে কবে এরকম ছবির পালক যোগ হবে। ‘তুফান’ সে খরায় অনেকটা বৃষ্টি হয়ে ঝরেছে।

এদিকে তুফান নিয়ে চঞ্চল চৌধুরী তার উচ্ছ্বসিত অভিমত ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেন, ‘দর্শকদের যখন ভালো লাগে, তখন আমাদেরও ভালো লাগে। আমরা আমাদের ভেতর আলাদা গতি পাই, উৎসাহ পাই। যেমন- এই ‘তুফান’ নিয়ে যে পরিমাণ আগ্রহ দর্শকের, এতে খুব ভালো লাগছে। ছবিটি সুপারডুপার হিট হলে আরও বড় বড় প্রজেক্টে কাজ করব। আর সব সময়ই দর্শকদের জন্য অভিনয়টা করে যেতে চাই। আর দর্শক চাইলেই তুফান-২ হবে।’

শুধু চঞ্চল চৌধুরীই নন, ‘তুফান’ নিয়ে উচ্ছ্বসিত শাকিব খান এবং পরিচালক রায়হান রাফীও। গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাফী বলেছেন, ‘পয়সা উশুল সিনেমা ‘তুফান’। সিনেমাটি দেখলে পয়সা উশুল তো হবেই, সেই সঙ্গে আরও বেশি কিছু হবে। আমার সিনেমা দেখে কখনো কেউ ধোঁকা খাননি। ‘পরান’, ‘সুড়ঙ্গ’ দর্শকদের ভালো লেগেছে। এখন ‘তুফান’ দেখে তাদের বিশ্বাসটা আরও বাড়বে। উৎসবটা আসলে এখন সাইক্লোনে পরিণত হয়েছে।’

ঈদুল আজহায় ‘তুফান’ ছাড়াও আরও চারটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। সেসব ছবিও দর্শকদের আগ্রহ তৈরি করছে বলে জানা গেছে। এমডি ইকবাল পরিচালিত ‘রিভেঞ্জ’ ভালো যাচ্ছে বলে জানা যায়। এতে জুটি হয়ে অভিনয় করেছেন জিয়াউল রোশান ও শবনম বুবলী, দীপা খন্দকার, মিশা সওদাগর, সীমান্তসহ অনেকে।

মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘ডার্ক ওয়ার্ল্ড’ রয়েছে আলোচনায়। কলকাতার কৌশানী রয়েছে এতে। ক্রাইম থ্রিলার ঘরানার এই সিনেমায় নায়ক হিসেবে আছেন নবাগত মুন্না খান। ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘আগন্তুক’ ও ‘ময়ূরাক্ষী’ ছবি দুটিও ভালো যাচ্ছে বলে জানা গেছে। ‘আগন্তুক’-এর প্রধান চরিত্রে আছেন পূজা চেরী ও শ্যামল মাওলা। ‘ময়ূরাক্ষী’-তে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি ও সুদীপ বিশ্বাস দীপ।


বিরল স্নায়বিক রোগে আক্রান্ত অলকা ইয়াগনিক

জনপ্রিয় প্লেব্যাকশিল্পী অলকা ইয়াগনিক। ফাইল ছবি
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

বিরল এক স্নায়বিক রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় প্লেব্যাকশিল্পী অলকা ইয়াগনিক। এর ফলে ধীরে ধীরে তিনি হারাচ্ছেন শ্রবণশক্তি।

ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে তিনি জানান, কয়েক সপ্তাহ আগে বিমানবন্দর থেকে বেরোনোর সময় হঠাৎ করেই কোনো কিছু শুনতে পাচ্ছিলেন না তিনি। সেই থেকেই সমস্যার শুরু। তবে চিকিৎসা শুরু হয়েছে। এরপরই ভক্ত ও সহকর্মীদের কাছে উচ্চমাত্রার শব্দ থেকে যথাসম্ভব দূরে থাকার অনুরোধ করেছেন তিনি। আর অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে হেডফোন ব্যবহার করতে বলেছেন।

অলকা ইয়াগনিকের এই পোস্টে অনুরাগীদের পাশাপাশি উদ্বিগ্ন সোনু নিগম, ইলা অরুণের মতো শিল্পীরা। সোনু নিগম লিখেছেন, ‘আমার মনেই হয়েছিল, সব ঠিক নেই। ফিরেই তোমার সঙ্গে দেখা করব। দ্রুত সেরে ওঠো।’

ছয় বছর বয়সে কলকাতায় আকাশবাণী রেডিওতে গান করেন অলকা ইয়াগনিক। এরপর মাত্র ১০ বছর বয়সে চলে যান মুম্বাইয়ে।১৯৮০ সালে ‘পায়েল কি ঝংকার’ ছবিতে প্রথম প্লেব্যাক করেন অলকা। ১৯৮৮ সালে ‘তেজাব’ ছবির ‘এক দো তিন’ গানে প্লেব্যাক করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান। এরপর তো একে একে তিন দশকের বেশি সময় অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গানে কণ্ঠ দিয়েছেন অলকা ইয়াগনিক।

চার দশকের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এক হাজারে বেশি ছবিতে গান গেয়েছেন অলকা ইয়াগনিক। ২৫টি আলাদা আলাদা ভাষায় তার মোট গানের সংখ্যা ২১ হাজারের বেশি। বিবিসির করা সেরা ৪০টি হিন্দি গানের তালিকায় অলকা ইয়াগনিকের গানই আছে ২০টি। ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে ইউটিউব মিউজিক চার্টস অ্যান্ড ইনসাইটস লিস্টের শীর্ষ গায়িকা হন অলকা।


১০০ কোটির মামলা করলেন রাভিনা

আপডেটেড ১৬ জুন, ২০২৪ ০০:০৫
বিনোদন ডেস্ক

কয়েক দিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল বলিউডের সিনিয়র অভিনেত্রী রাভিনা ট্যান্ডনের একটি হেনস্তার ভিডিও। সেই ভিডিওর নেপথ্যের ঘটনা নিয়ে সম্প্রতি মুখও খুলেছিলেন রাভিনা। আর এবার সেই কাণ্ডে নেটিজেনের বিরুদ্ধে ১০০ কোটির মানহানির মামলা করলেন রাভিনা ট্যান্ডন। যে ব্যক্তি রাভিনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন, তার নামেই মামলা ঠুকলেন অভিনেত্রী।

রাত-বিরাতে বান্দ্রার রাস্তায় ধুন্ধুমার কাণ্ড। অভিনেত্রীর গাড়ি থামিয়ে চড়াও হন তিন মহিলা। দাবি, রাভিনার গাড়ি নাকি তাদের ধাক্কা মেরেছে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে অভিনেত্রীকে মারতে পর্যন্ত উদ্যত হন ওই মহিলারা। এ ঘটনার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় রাভিনাকে নিয়ে নানা কটাক্ষ নেটিজেনদের একাংশের। তাদের দাবি স্টার তকমা নিয়ে সাধারণের সঙ্গে এমন ব্যবহার তার। এমনকি, কেউ কেউ সালমান খানের গাড়ি কাণ্ডের সঙ্গেও তুলনা টেনেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী জানিয়ে ছিলেন, ‘ভালোবাসা এবং সমর্থন দেওয়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। আমার ওপর বিশ্বাস রাখার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই। তবে শেষ পর্যন্ত এই গল্পের মূল কথা কী দাঁড়াল জানেন? ড্যাশক্যাম ও সিসিটিভি ক্যামেরা লাগিয়ে রাখুন।’

মহিলাদের অভিযোগ, রাভিনা ট্যান্ডনের গাড়ির ধাক্কায় নাকি তাদের মধ্যে এক মহিলার রক্তপাত হয়েছে। তার জেরেই বচসা বাঁধে দুই পক্ষের। এদিন রাতে ঝামেলা শুরু হওয়ার পরই রাভিনা ট্যান্ডন গাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন। এদিকে অভিনেত্রীকে দেখেও ওই মহিলারা প্রায় রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন। তখনই বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। রাভিনার দিকে তেড়ে যান তারা। ভয় পেয়ে তিনি খানিক পিছিয়েও যান। কাতরভাবে আর্জিও জানাতে থাকেন, ‘ধাক্কা দেবেন না দয়া করে, আমাকে মারবেন না।’ সেই ক্যামেরাবন্দি মুহূর্ত আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় দেদার গতিতে ভাইরাল। রাভিনার পরনে সাদামাঠা পোশাক। মেকআপের লেশমাত্র নেই! সেখানেই জনৈক মহিলাকে অভিনেত্রীর উদ্দেশে বলতে শোনা যায়, ‘দেখুন আমার নাক থেকে রক্ত বেরুচ্ছে। আজকের রাতটা জেলেই কাটাতে হবে আপনাকে।’

চড়াও হওয়া ওই মহিলাদের অভিযোগ, অভিনেত্রী সেই সময়ে মদ্যপ ছিলেন। অনতিদূরেই খার থানা। বচসার পর রাভিনা ট্যান্ডন এবং তার চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তারা। ঘটনার জেরে থানায় ছুটে যান রাভিনার স্বামী তথা জনপ্রিয় ফিল্ম ডিস্ট্রিবিউটর অনিল থাড়ানিও।


ভাই হারালেন ডিপজল

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

জনপ্রিয় অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের বড় ভাই হাজি মো. শাহাদাৎ হোসেন মারা গেছেন।

আজ শনিবার রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। ভাইয়ের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন ডিপজল নিজেই।

শনিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে ফেসবুকে এক পোস্টে ডিপজল লেখেন, ‘হাজী মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন (বাদশা ভাই) কিছুক্ষন আগে শ্যামলীর একটি হসপিটালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না-লিল্লাহ..... রাজেউন)। আল্লাহ যেনো উনাকে বেহেশত নসিব করেন।’

এর আগে গতকাল শুক্রবার নিজের বড় ভাইয়ের সুস্থতা কামনায় ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন ডিপজল।

সেখানে তিনি লেখেন, ‘আমার বড় ভাই হাজি মো. শাহাদাৎ হোসেন (বাদশা ভাই ) ১৪ জুন ভোর ৩টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতাল, কল্যাণপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বর্তমানে লাইফ সাপোর্টে আছেন। সবাই তার দ্রুত সুস্থতার জন্য দোয়া করবেন।


কথা রাখলেন মেহজাবীন চৌধুরী

আপডেটেড ১৫ জুন, ২০২৪ ০০:০৩
বিনোদন প্রতিবেদক

ছোটপর্দার শীর্ষ চাহিদা সম্পন্ন মডেল-অভিনেত্রী মেহজাবীন। কিন্তু তারপরও গতে দুই বছর ধরে টিভি নাটকে অভিনয় না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। টিভি নাটক না করার এক প্রকার ঘোষণা দিয়েই এই লাক্সকন্যা বলেছিলেন, ‘টিভি নাটকের গল্প ও চরিত্র প্রায় একই ধরনের। এ কারণে টিভি নাটকে কাজ করতে এক ধরনেরে একঘেয়েমি চলে এসেছে। বরং এখন ওটিটিতে ভালো ভালো কন্টেন্ট ও ব্যতিক্রমী চরিত্র থাকছে। সেগুলোতে কাজ করার যেমন অবাধ সুযোগ থাকছে, তেমনি এসব চরিত্রে কাজ করতেও ভালো লাগছে। দর্শকও এসব সিরিজগুলো বেশ সানন্দে উপভোগ করছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন ওটিটিতে কাজ করছি বলে টিভি নাটকে কাজ করব না, এমন নয়। ছোটপর্দাই আমাকে আজকের এ অবস্থানে নিয়ে এসেছে। আমাকে মেহজাবীন বানিয়েছে। ভালো কিছু ও মনের মতো কোনো গল্প, চরিত্র ও নির্মাতা পেলে অবশ্যই কাজ করব।’

নিজের দেওয়া সেই কথা রাখলেন মেহজাবীন। তার নাটকের ভক্ত-দর্শকদের জন্য সুখবর দিয়ে এই মডেল অভিনেত্রী জানালেন, এবারের ঈদে তাকে চ্যানেল আইতে একটি নাটকে অভিনয়ে দেখা যাবে। নাটকের নাম ‘তিথিডোর’। নাটকটি রচনা করেছেন জাহান সুলতানা এবং পরিচালনা করেছেন ভিকি জাহেদ। এরই মধ্যে নাটকটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে বলে জানান মেহজাবীন।

নাটকটিতে অভিনয় করা প্রসঙ্গে মেহজাবীন বলেন, ‘তিথিডোর নাটকটি মূলত একটি চরিত্রকে ঘিরে। আত্মহত্যার প্রবণতায় ভুগছেন এমন একজন মানুষ নিশাতকে ঘিরেই এই নাটকের গল্প। গল্পটা এ সময়ের জন্য উপযোগী একটি গল্প। দেখা যায যে আমাদের সমাজে এমন অনেক মেয়েই আছে দেখতে বেশ হাসি-খুশি। কিন্তু ভেতরে ভেতরে সে যে কী এক যন্ত্রণায় সময় পার করছে তা বাইরে থেকে কেউই অনুধাবন করতে পারবে না। আমার কাছে মনে হয়েছে এ ধরনের গল্প এই সময়েই বলা উচিত। আমি নাটক এখন খুবই কম করি। কিন্তু তারপরও এ ধরনের গল্প সমাজের মানুষের কাছে তুলে ধরার জন্য শিল্পী হিসেবে আমার দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে এ নাটকে অভিনয় করা।’

এই লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার বলেন, ‘আর আমি ভীষণভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি ওপার বাংলার কিংবদন্তি অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক স্যার ও তার সহধর্মিণী শ্রীমতি দীপা মল্লিক ম্যাডামের কাছে। তারা আমার অভিনীত নাটক দেখেন, এটা আমার জন্য সত্যিই অনেক আনন্দের এবং অনুপ্রেরণারও বটে। আমাকে নিয়ে তাদের কথা এবং ভালোবাসা আমাকে খুব স্পর্শ করেছে।’


চিত্রনায়িকা সুনেত্রা আর নেই

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

চিত্রনায়িকা সুনেত্রা আর নেই। ভারতের কলকাতায় ৫৩ বছর বয়সে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। অভিনেত্রী মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

ফেসবুকে দেওয়া একটি স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা, শৈশবের আমার পছন্দের একজন নায়িকা, চোখের প্রেমে পড়ত যে কেউ, তিনি সুনেত্রা। অনেক দিন আগেই বাংলাদেশ ছেড়ে কলকাতায় গিয়েছেন। আমি চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন কয়েকবার ফোনে কথা বলেছিলাম। আজকে হঠাৎ শুনলাম তিনি আর নেই, মৃত্যুবরণ করেছেন। নীরবে নিভৃতে চলে গেলেন। এভাবেই হারিয়ে যায় মানুষ, চলে যায়। আপনি ভালো থাকবেন ওপারে। অনেক চলচ্চিত্র দেখব আর আপনাকে মিস করব।’

সুনেত্রা মূলত ওপার বাংলার অভিনেত্রী। যদিও ভারতের পাশাপাশি বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বহু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৭০ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন সুনেত্রা। তার মূল নাম রীনা সুনেত্রা কুমার। থিয়েটারের মাধ্যমেই অভিনয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর।

এই অভিনেত্রী চিত্রনায়ক জসীম, ফারুক, সোহেল রানা, আলমগীর, ওয়াসিম, ইলিয়াস কাঞ্চন, জাফর ইকবাল, নাদিম (পাকিস্তান), মান্নাদের বিপরীতে অভিনয় করে উপহার দিয়েছেন একের পর এক হিট সিনেমা।

বিষয়:

একই মঞ্চে তাহসান-মিথিলা

আপডেটেড ১৩ জুন, ২০২৪ ০০:০৬
বিনোদন প্রতিবেদক

দেশীয় শোবিজের একসময়ের আলোচিত তারকা দম্পতি তাহসান খান ও রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। একসঙ্গে জুটি বেঁধে অনেক নাটকে অভিনয়ও করেছেন তারা। ২০১৭ সালে বিবাহবিচ্ছেদের পর পর্দায় আর দেখা যায়নি এ জুটিকে। প্রায় ৭ বছর পর একসঙ্গে দেখা মেলেনি দুজনের। দীর্ঘ বিরতি পেরিয়ে আবারও একসঙ্গে ফিরছেন তাহসান-মিথিলা। আরিফুর রহমানের ‘বাজি’ ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে তাদের। যদিও গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে এমন খবর চাউর হয়ে আসছে গণমাধ্যমে। তবে এবার সত্যি সত্যি এক মঞ্চে হাস্যোজ্জ্বলভাবে উপস্থিত হতে দেখা গেল সাবেক এ তারকা দম্পতিকে।

মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয় বাজি সিরিজের ট্রেলার। সেখানে উপস্থিত হয়ে মিথিলার অভিনয়ের প্রশংসা করেন তাহসান। তবে তাহসান প্রসঙ্গে মিথিলা দিয়েছেন সাবধানী উত্তর। দীর্ঘদিন পর মিথিলার সঙ্গে অভিনয় প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, ‘মিথিলা অনেক গুণী অভিনেত্রী। অনেক বছর পর তার সঙ্গে কাজ করছি। যদিও সিরিজটির সাত পর্বের মধ্যে মাত্র একটি দৃশ্যে আমাদের একসঙ্গে দেখা যাবে। তার সঙ্গে আমার কাজ করার অভিজ্ঞতা খুব ভালো।’

তবে তাহসানকে নিয়ে অনেকটা কৌশলে উত্তর দিয়েছেন মিথিলা। মিথিলা বলেন, ‘অনেক দিন পর তাহসানের সঙ্গে অনস্ক্রিন কাজ করা হলো। শুধু তাহসান নয়, এই সিরিজে অনেক সহশিল্পীর সঙ্গেই দীর্ঘদিন পর কাজ করা হলো। গুণী অভিনেতাদের সঙ্গে অভিনয় করতে সব সময়ই ভালো লাগে। এ ছাড়া বাজি তাহসানের প্রথম ওয়েব সিরিজ। নির্মাতা আরিফুর রহমানের প্রথম সিরিজ। আশা করি, অনেক কিছু প্রথম মিলিয়ে ভালো একটি কাজ হয়েছে।’

সহশিল্পী হিসেবে এখন তাহসানকে মিস করেছে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে মিথিলা বলেন, ‘আমি এমনিতেই কম কাজ করি। তাই কাজ করাটাই মিস করি।’ ভবিষ্যতে আবার পর্দায় তাদের একসঙ্গে দেখা যাবে কি না, এ নিয়েও সাবধানী উত্তর দিয়েছেন মিথিলা। ভবিষ্যতের চিন্তা না করে এই প্রজেক্ট নিয়ে কথা বলাই শ্রেয় বলে মনে করেন তিনি। বাজি ওয়েব সিরিজটিতে আরও অভিনয় করেছেন মিম মানতাসা, নাজিয়া হক অর্ষা, মনোজ প্রামাণিক, শাহাদাৎ হোসেন, পার্থ শেখ, তাসনুভা তিশা, আবরার আতহার প্রমুখ। ১৬ জুন থেকে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকিতে দেখা যাবে সাত পর্বের এই সিরিজ।


আগ্রহের তালিকায় বুবলীর ‘রিভেঞ্জ’

আপডেটেড ১২ জুন, ২০২৪ ০০:০৯
বিনোদন প্রতিবেদক

ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম শবনম ইয়াসমিন বুবলী। টানা কয়েক ঈদেই তার অভিনীত সিনেমা মুক্তি পাওয়ায় বেশ ফর্মে রয়েছেন এ নায়িকা। চলতি বছর ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেয়েছিল ‘দেয়ালের দেশ’ ও ‘মায়া’ নামে দুটি সিনেমা। আসন্ন ঈদেও দুটি সিনেমা মুক্তির কথা ছিল বুবলীর। একটি ‘জংলি’ এবং অন্যটি ‘রিভেঞ্জ’। কিন্তু হঠাৎ করেই পরিচালক ঘোষণা দেন ঈদে ‘জংলি’ মুক্তি পাচ্ছে না। এ কারণে বুবলী ভক্তরা কিছুটা হতাশ হলেও ‘রিভেঞ্জ’ নিয়ে নতুন আশায় বুক বেঁধেছেন তারা। এই ছবিতে বুবলীর বিপরীতে রয়েছেন জিয়াউল রোশান।

যদিও প্রতি ঈদের মতো এবার ঈদ সিনেমায় নানাভাবেই আলোচিত শাকিব খান অভিনীত ও রায়হান রাফি পরিচালিত সিনেমা ‘তুফান’। সিনেমাটি ঘিরে রেন্টাল জটিলতায় কপালে ভাঁজ পড়েছে প্রদর্শকদের। এর ফলে ‘রিভেঞ্জ’-এ চোখ পড়েছে প্রদর্শক ও বুকিং এজেন্টদের।

নামপ্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন বুকিং এজেন্ট বলেন, ইতোমেধ্য ‘তুফান’ নিয়ে যেভাবে রেন্টাল জটিলতা চলছে তাতে অনেকেই শেষ পর্যন্ত হল বুক করবে না। কারণ এখন পর্যন্ত স্লিপ কাটা হয়নি। এ অবস্থায় আমাদের দ্বিতীয় অপশন ‘রিভেঞ্জ’। আমরা তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করছি।’ উচ্চ রেন্টালের বাজারে ‘রিভেঞ্জ’ কঠিন প্রতিশোধ হয়ে দেখা দিতে পারে বলেও তারা মন্তব্য করেন।

তাদের এমন মন্তব্যে ফুরফুরে মেজাজে ‘রিভেঞ্জ’ সিনেমার পরিচালক ও প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল। তিনি বলেন, ‘আমি আগেও নিয়মে ছিলাম, এখনো নিয়মের মধ্যেই আছি। নিয়মের মধ্যেই সিনেমা সারা দেশে মুক্তি দিতে চাই। ইতোমধ্যে হল বুকিং এজেন্টরা যোগাযোগ শুরু করেছে। অন্য কারও মতন উচ্চ রেন্টাল হাঁকিয়ে হল ব্যবসার ১২টা বাজাতে চাই না। আমি কেবল চাই ঈদে ‘রিভেঞ্জ’ সবাই দেখুক।’

সিনেমাটি নিয়ে চিত্রনায়িকা বুবলী বলেন, ‘সিনেমাটির গল্প শুনেই তাতে কাজ করতে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। খুব সুন্দরভাবে সিনেমাটি চিত্রায়িত হয়েছে। ‘রিভেঞ্জ’ ঈদে আসবে বলে ভালো লাগছে। কারণ প্রতিটি শিল্পীই চায় তার সিনেমা বড় উৎসবে মুক্তি পাক। কারণ দর্শকদের মধ্যে সে সময় সিনেমা নিয়ে উন্মাদনা থাকে। আমি মনে করি ‘রিভেঞ্জ’ও উন্মাদনায় ভাসাবে দর্শকদের।

জিয়াউল রোশান বলেন, ‘ঈদে ‘তুফান’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমার মুক্তির ঘোষণা এসেছে। সেসবের গল্প আমি জানি না। তবে ‘রিভেঞ্জ’র গল্প অনেক শক্তিশালী। আমি মনে করি পরিচালক ইকবাল ভাইয়ের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সেরা নির্মাণ এটি।’

অ্যাকশনধর্মী ‘রিভেঞ্জ’ সিনেমায় রোশান হাজির হচ্ছেন প্রধান চরিত্রে। সিনেমাটিতে বুবলী অভিনয় করেছেন পুলিশ কর্মকর্তার ভূমিকায়। সুনান মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এই সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, দীপা খন্দকার, সীমান্ত প্রমুখ।


banner close