বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

৭৫ বসন্ত পেরিয়ে

অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর।
আপডেটেড
৩১ অক্টোবর, ২০২২ ০৮:৫১
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা
প্রকাশিত
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা

নন্দিত অভিনেতা আসাদুজ্জামান নূর পার করলেন জীবনের ৭৫টি বসন্ত। ১৯৪৬ সালের ৩১ অক্টোবর নীলফামারী জেলায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। অভিনয় জীবনে নাটক ও সিনেমাতে নানা চরিত্র করে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছেন। তারই জনপ্রিয় কিছু চরিত্র নিয়ে থাকল আজকের আয়োজন।

বাকের ভাই, কোথাও কেউ নেই

বাকের ভাই চরিত্রটি সেই সময়ে এক ইতিহাস সৃষ্টি তৈরি করেছিল। চরিত্রের প্রেমে দর্শক এমনভাবে পড়েছিল যে, ‘বাকের ভাইয়ের কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে’ স্লোগান দেয়া হয়েছিল। বাকের ভাইয়ের ফাঁসি ঠেকাতে নাট্যকার হ‍ুমায়ূন আহমেদের বাসায় হামলার হুমকিও শোনা গেছে।

নান্দাইলের ইউনুস, মাটির পিঞ্জিরার মাঝে বন্দি হইয়া

বরাবরই নেতিবাচক চরিত্রে অভিনয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন আসাদুজ্জামান নূর। খুনির চরিত্রে নান্দাইলের ইউনুস তেমনি। এই নাটকটি সাড়া জাগিয়েছিল।

মনা ডাকাত, নিমফুল

‘মনা ডাকাতরে ধরলা ক্যামনে? সে এক বিরাট ইতিহাস। আমার ঘরে ছিল না কেরোসিন...’ নাটকের এই সংলাপ তখন মুখে মুখে। এমনকি সবাই এই সংলাপ নিয়ে মজা করত। আরেকটি নেতিবাচক চরিত্রে জনপ্রিয় হন নূর।

মীর্জা, অয়োময়

ভাটি অঞ্চলের এক পড়তি জমিদার ‘মীর্জা’। অয়োময় নাটকে হ‍ুমায়ূন আহমেদের তৈরি এই চরিত্রে অনবদ্য অভিনয় করেছিলেন আসাদুজ্জামান নূর। অভিনয়ের উদাহরণ দিলে আজও মীর্জার কথা ওঠে।

বদিউল আলম, আগুনের পরশমণি

আসাদুজ্জামান নূর অভিনীত নেতিবাচক চরিত্রগুলো জনপ্রিয় হলেও ‘আগুনের পরশমণি’ সিনেমায় তরুণ মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রে দারুণ অভিনয় করেছিলেন নূর।


'ওয়ান্স আপোন আ টাইম ইন ক্যালকাটা' এর ঢাকা প্রিমিয়ার আজ

আপডেটেড ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১২:১২
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা

আজ বাংলাদেশে প্রথমবারের মত প্রদর্শিত হবে আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্ত পরিচালিত ওপার বাংলার ‘ওয়ান্স আপোন আ টাইম ইন ক্যালকাটা’।‌ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ আয়োজিত ‘আমার ভাষার চলচ্চিত্র ১৪২৯’ উৎসবে এ প্রদর্শনী আয়োজিত হবে। এছাড়াও কলকাতার আরও একটি চলচ্চিত্র ‘মানিক বাবুর মেঘ’ ও প্রদর্শিত হবে আজ।

গতকাল (৬ ফেব্রুয়ারি) প্রদর্শিত হয়েছে ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, প্রামাণ্যচিত্র ‘শিল্প শহর স্বপ্নলোক’ ও ‘পরবাসী মন আমার’, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ঢেউ’ ও ‘দূরে’ এবং ‘হাওয়া’। উৎসবটি এখন পর্যন্ত দর্শকদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে এবং আয়োজনকে কেন্দ্র করে উৎসুক জনতার উপচে পড়া ভীড় বরাবরের মতই টিএসসিতে। এবারের আসরে প্রথমবারের মতো সংযুক্ত হয়েছে ‘যুক্তি তক্কো গপ্পো’ নামে উন্মুক্ত আলোচনা পর্ব। গতকালের আলোচনার বিষয় ছিল—'গণঅর্থায়নে স্বাধীন চলচ্চিত্র: সম্ভাবনা ও বাস্তবতা'। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও চলচ্চিত্র সংসদকর্মী ধ্রুব দাস, চলচ্চিত্র নির্মাতা খন্দকার সুমন এবং সুবর্না সেঁজুতি। আলোচনাপর্বে মডারেটর হিসেবে ছিলেন ইশতিয়াক আহমেদ।

আজ (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০ টায় প্রদর্শিত হবে জহির রায়হান পরিচালিত ‘বেহুলা’, দুপুর ১ টায় তপন সিনহা পরিচালিত ‘বাঞ্ছারামের বাগান’, বিকেল ৩:৩০টায় অভিনন্দন ব্যানার্জী পরিচালিত ওপার বাংলার ‘মানিকবাবুর মেঘ’, এবং সন্ধ্যা ৬:৩০টায় আদিত্য বিক্রম সেনগুপ্ত পরিচালিত ওপার বাংলার ‘ওয়ান্স আপোন আ টাইম ইন ক্যালকাটা’ বাংলাদেশে প্রথমবারের মত প্রদর্শিত হবে।‌

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক কে,এম ইতমাম ইসলাম বলেন, 'বাংলাদেশের সংস্কৃতি অঙ্গনে অন্যতম বড় উৎসব আমার ভাষার চলচ্চিত্র। বাংলা ভাষায় আয়োজিত এ উৎসবের আয়োজন করতে পারা একই সাথে অনেক সম্মান, দায়িত্ব ও গৌরবের কাজ।'

আগত দর্শক

পাঁচদিন ব্যাপী এই উৎসবে প্রদর্শিত হবে দুই বাংলার সমসাময়িক ও ধ্রুপদী ১৮টি চলচ্চিত্র, দুটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও দুটি প্রামাণ্যচিত্র। ৯ ফেব্রুয়ারি, উৎসবের শেষদিন প্রতিবারের মতো উপমহাদেশের প্রথম চলচ্চিত্রকার হীরালাল সেন স্মরণে অনুষ্ঠিত হবে ‘হীরালাল সেন পদক’ প্রদান এবং সমাপনী অনুষ্ঠান।

এবারের আসরে উৎসব সহযোগী হিসেবে রয়েছে এস.কিউ গ্রুপ। প্রচার সহযোগী হিসেবে রয়েছে চ্যানেল আই, দৈনিক বাংলা এবং দ্য রিপোর্ট.লাইভ। প্রদর্শন সহযোগী হিসেবে রয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ।

প্রদর্শনী সকলের জন্য উন্মুক্ত। টিকিটের শুভেচ্ছা মূল্য মাত্র ৫০ টাকা। টিএসসির প্রবেশমুখের টিএসসি বুথ থেকে টিকিট সংগ্রহ করা যাবে।


এবার চোরের চরিত্রে তৌসিফ

তৌসিফ মাহবুব
আপডেটেড ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১১:২০
বিনোদন প্রতিবেদক

ইসমাইল পেশায় একজন চোর। শুধু পেশায় বললে ভুল হবে, পারিবারিক ঐতিহ্য রক্ষা করতে চুরিটাকে পেশা আর নেশা হিসেবে নিয়েছেন তিনি। এমনই এক বংশীয় চোরের চরিত্রে অভিনয় করেছেন অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব। নাটকটির নাম ‘ফিটিং ইসমাইল’। তৌসিফের বিপরীতে আছেন কেয়া পায়েল। বিউটি চরিত্রে দেখা যাবে পায়েলকে। যিনি ইসমাইলের এই চুরির পেশাকে একদমই মেনে নিতে চান না।

ইব্রাহীম চৌধুরী আকিব ও মজুমদার শিমুলের চিত্রনাট্যে এটি নির্মাণ করেছেন তৌফিকুল ইসলাম। নাটকটি নিয়ে নির্মাতা তৌফিকুল জানান, ‘নাটকটির গল্প চোর ও চুরি নিয়ে। তবে এতে বেশ পজিটিভ বার্তা রয়েছে। যেটা নাটকটি দেখলে বুঝতে পারবেন দর্শকরা। এতে চোরের চরিত্রে তৌসিফ মাহবুব অনবদ্য অভিনয় করেছেন। কেয়া পায়েলও দারুণ ছিলেন। কারণ, গল্পটা চোরের হলেও দিনশেষে এটা প্রেমেরও।’

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে নির্মিত হয়েছে নাটকটি, যা সিএমভির ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যাবে।


বিয়ন্সের রাত

গ্র্যামির মঞ্চে বিয়ন্সে
আপডেটেড ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১০:০২
বিনোদন ডেস্ক

গতকাল যখন যানজটে আটকে পড়েন পপতারকা বিয়ন্সে, তখনো তিনি জানেন না গ্র্যামির এই রাত তার জীবনের সবচেয়ে ঈর্ষণীয় সফলতার খবর নিয়ে এসেছে। যানজট তাকে ঠিক সময়ে উৎসবে ঢুকতে দেয়নি। তবে গ্র্যামির সোনালি রাত তাকে উপহার দিয়েছে সবচেয়ে বেশি পুরস্কার পাওয়ার শিল্পীর মর্যাদা। গতকাল চারটি পুরস্কার পেয়ে তার ঘরে জমা হয়েছে ৩২টি গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড, যা আর কারও ঝুলিতে নেই। এমন রাতে আবেগপ্রবণ না হয়ে পারেন! বিয়ন্সে বললেন, ‘চেষ্টা করেছি যেন বেশি আবেগপ্রবণ না হয়ে যাই।’

বেস্ট আরএনবি সং, বেস্ট ডান্স/ইলেকট্রনিক রেকর্ডিং, বেস্ট ডান্স/ ইলেকট্রনিক রেকর্ডিং অ্যালবাম ও বেস্ট ট্র্যাডিশনাল আরএনবি পারফরম্যান্স পুরস্কার পেয়েছেন এবারের আসরে। পুরস্কার উৎসর্গ করেছেন স্বামী জেজি ও কুইর কমিউনিটিকে।

কয়েক দিন আগেই ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্বব্যাপী শুরু করবেন সংগীত সফর। গত বুধবার তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে জানান, ‘রেনেসাঁস বিশ্ব সফর’ নিয়ে মারাত্মকভাবে রোমাঞ্চিত তিনি।

বিয়ন্সের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট অনুযায়ী, সুইডেনের স্টকহোমের ফ্রেন্ডস অ্যারেনা থেকে চলতি বছরের মে থেকে শুরু হবে এই সফর। সফরসূচি অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের নিউ অরলিন্সের সিজার্স সুপারডোমে সেপ্টেম্বরে সফর শেষ হওয়ার কথা। গ্র্যামিজয়ী এই গায়িকার ‘রেনেসাঁ’ সপ্তম অ্যালবাম। গত বছরের জুলাইয়ে প্রকাশিত হয় অ্যালবামটি। বের হওয়ার পর ভক্তদের কাছে দারুণ সমাদর পায়। এবার অ্যালবামের গানগুলো বিশ্বভ্রমণের অপেক্ষায়। সংগীত সফর, গ্র্যামিতে ইতিহাস- সবকিছু মিলে মার্কিন পপতারকা বিয়ন্সের সফলতা এ বছর আকাশ ছুঁতে চাইছে।

তবে অ্যালবাম অব দ্য ইয়ারে হারাতে পারেননি হ্যারি স্টাইলকে। গ্র্যামির অন্যতম এই পুরস্কার হ্যারি জিতলেন বিয়ন্সে ও অ্যাডেলের মতো শিল্পীদের হারিয়ে। অ্যাডেলে জিতেছেন বেস্ট পপ সলো ‘ইজি অন মি’ গানের জন্য।

ওদিকে র‌্যাপে বাজিমাত করেছেন কেন্ড্রিক লামার। বেস্ট র‌্যাপ পারফরম্যান্স, বেস্ট র‌্যাপ সং ও বেস্ট র‌্যাপ অ্যালবাম গেছে তার ঝুলিতে। লিজো জিতেছেন রেকর্ড অব দ্য ইয়ার। বনি রেইট জিতেছেন সং অব দ্য ইয়ার। গ্র্যামির ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো ট্রান্সজেন্ডার ওম্যান হিসেবে পুরস্কার জিতেছেন কিম পেট্রাস। বেস্ট পপ ডুয়ো/গ্রুপ পারফরম্যান্স জিতেছেন যৌথভাবে স্যাম স্মিথের সঙ্গে।

এবার হিপ-হপ গানের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপিত হয়েছে। করোনার কারণে গত বছর লাস ভেগাসে আয়োজিত হয়েছিল। ফের উৎসবটি ফিরল লস অ্যাঞ্জেলেসে। সঞ্চালক ছিলেন ট্রাভোর নোয়া। ব্যাড বানি, জ্যাক হারলো, টেলর সুইফটরা মঞ্চ মাতিয়ে রেখেছিলেন তাদের গান দিয়ে।

বিজয়ীদের তালিকা

সং অফ দ্য ইয়ার: আই কান্ট ব্রেথ

বেস্ট পপ সোলো পারফরম্যান্স: হ্যারি স্টাইলস

বেস্ট পপ জুটি: লেডি গাগা ও আরিয়ানা গ্র্যান্ডে

বেস্ট আরএনবি অ্যালবাম: বিগার লাভ

বেস্ট ট্র্যাডিশনাল আরএনবি পারফরম্যান্স: এনিথিং ফর ইউ

বেস্ট প্রোগ্রেসিভ আরএনবি অ্যালবাম: ইট ইজ হোয়াট ইট ইজ

বেস্ট আরএনবি সং: বেটার দ্যান আই ইমাজিনড

বেস্ট নিউ আর্টিস্ট: মেগান দ্য স্ট্যালিয়ন

বেস্ট র‌্যাপ পারফরম্যান্স: বিয়ন্সে

বেস্ট র‌্যাপ অ্যালবাম: কিংস ডিজিজ

বেস্ট মেলোডিক র‌্যাপ পারফরম্যান্স: লকডাউন

বেস্ট ট্র্যাডিশনাল পপ ভোকাল অ্যালবাম: আমেরিকান স্ট্যান্ডার্ড

বেস্ট মিউজিক ভিডিও: ব্রাউন স্কিন গার্ল

বেস্ট সং রিটেন ফর ভিজুয়াল মিডিয়া: নো টাইম টু ডাই

বেস্ট কমপিলেশন সাউন্ডট্র্যাক ফর ভিজুয়াল মিডিয়া: জোজো র‌্যাবিট

বেস্ট স্কোর সাউন্ডট্র্যাক ফর ভিজুয়াল মিডিয়া: হিলডার গুয়োনোদোতর

বেস্ট গ্লোবাল মিউজিক অ্যালবাম: টোয়াইস অ্যাজ টল

বেস্ট ডান্স রেকর্ডিং: কেত্রানাদা

বেস্ট ডান্স/ইলেকট্রনিক অ্যালবাম: বুবা

বেস্ট রক অ্যালবাম: দ্য নিউ অ্যাবনর্মাল

বেস্ট রক সং: স্টে হাই

বেস্ট অল্টারনেটিভ মিউজিক অ্যালবাম: ফেচ দ্য বোল্ট কাটারস

বেস্ট মেটাল পারফরম্যান্স: বুম রাশ

বেস্ট কান্ট্রি সলো পারফরম্যান্স: হোয়েন মাই অ্যামি প্রেইজ

বেস্ট কান্ট্রি পারফরম্যান্স জুটি: ড্যান ও শে

বেস্ট কান্ট্রি অ্যালবাম: ওয়াইল্ডকার্ড

বেস্ট কান্ট্রি সং: ক্রাউডেড টেবল

বেস্ট নিউ এজ অ্যালবাম: মোর গিটার স্টোরিজ

বেস্ট জ্যাজ ভোকাল অ্যালবাম: সিক্রেটস আর দ্য বেস্ট স্টোরিজ

বেস্ট ইমপ্রোভাইজড জ্যাজ সলো: অল ব্লুজ

বেস্ট জ্যাজ ইনস্ট্রুমেন্টাল অ্যালবাম: ট্রিলজি ২

বেস্ট লার্জ জ্যাজ অনসাম্বল অ্যালবাম: ডেটা লর্ডস

বেস্ট লাতিন জ্যাজ অ্যালবাম: ফোর কোয়েশ্চেনস

বেস্ট গসপেল পারফরম্যান্স/সং: মুভিং অন


নতুন গান ‘দাগা’ নিয়ে ফিরছেন ধ্রুব গুহ

ধ্রুব গুহ
আপডেটেড ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১২:০৪
বিনোদন প্রতিবেদক

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে আসছে কণ্ঠশিল্পী ধ্রুব গুহর নতুন গান। গানের শিরোনাম ‘দাগা’। গানটি রচনা ও সুর করেছেন প্রিন্স রুবেল। সংগীতায়োজন করেছেন তরিক আল ইসলাম।

দীর্ঘ বিরতির পর নতুন গান প্রকাশ প্রসঙ্গে ধ্রুব গুহ বলেন, ‘আরও আগেই আমার নতুন গান ‘দাগা’ প্রকাশ পাওয়ার কথা ছিল কিন্তু পেছনের দুই বছর আমরা একটা দুর্বিষহ সময়ের মধ্য দিয়ে পার করেছি। করোনাভাইরাস আমাদের থমকে দিয়েছিল। তাই একটা দীর্ঘ বিরতি নিতে হয়েছে। তা ছাড়া শ্রোতাদের নিয়ে একটু ভাবনা চিন্তা তো ছিলই। শ্রোতাদের কথা চিন্তা করেই একটা শ্রুতিমধুর গান উপহার দিচ্ছি। আমি আশা করছি, আমার এই নতুন গানটিও শ্রোতারা আগের মতোই আপন করে নেবেন।’

জানা যায়, এরই মধ্যে বিভিন্ন লোকেশনে গানটির মিউজিক ভিডিওর শুটিং করা হয়েছে। সিনেআর্ট প্রডাকশনের ব্যানারে গল্পনির্ভর এই ভিডিও নির্মাণ করেছেন শুভব্রত সরকার। গল্প লিখেছেন মৌমিতা বিশ্বাস। ভিডিওতে অভিনয় করেছেন আকাশ ও রিয়া আর বিশেষ চরিত্রে আছেন তামুর। আছে ধ্রুব গুহর উপস্থিতিও।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন (ডিএমএস) জানায়, ভালোবাসা দিবসের আগেই ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত করা হবে গানটি। পাশাপাশি শুনতে পাওয়া যাবে দেশি ও আন্তর্জাতিক একাধিক অ্যাপএ।


গ্র্যামিতে বিজয়ী যারা

গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডে পারফর্ম করেন কার্ডি বি
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন ডেস্ক

৬৫তম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডস ২০২৩ এর জমকালো আসর হয়ে গেল। এবার চারটি পুরস্কার নিয়ে ৩২ গ্যামি অ্যাওয়ার্ড জয় করে ইতিহাস গড়েছেন বিয়ন্সে।

এবার হিপ-হপ গানের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপিত হয়েছে। করোনার কারণে গত বছর লাস ভেগাসে আয়োজিত হয়েছিল। ফের উৎসবটি ফিরল লস অ্যাঞ্জেলেসে। সঞ্চালক ছিলেন ট্রাভোর নোয়া। ব্যাড বানি, জ্যাক হারলো, টেলর সুইফটরা মঞ্চ মাতিয়ে রেখেছিলেন তাদের গান দিয়ে।

দেখে নেওয়া যাক এবারের বিজয়ী যারা।

বিজয়ীদের তালিকা

সং অফ দ্য ইয়ার: আই কান্ট ব্রেথ

বেস্ট পপ সোলো পারফরম্যান্স: হ্যারি স্টাইলস

বেস্ট পপ জুটি: লেডি গাগা ও আরিয়ানা গ্র্যান্ডে

বেস্ট আরএনবি অ্যালবাম: বিগার লাভ

বেস্ট ট্র্যাডিশনাল আরএনবি পারফরম্যান্স: এনিথিং ফর ইউ

বেস্ট প্রোগ্রেসিভ আরএনবি অ্যালবাম: ইট ইজ হোয়াট ইট ইজ

বেস্ট আরএনবি সং: বেটার দ্যান আই ইমাজিনড

বেস্ট নিউ আর্টিস্ট: মেগান দ্য স্ট্যালিয়ন

বেস্ট র‌্যাপ পারফরম্যান্স: বিয়ন্সে

বেস্ট র‌্যাপ অ্যালবাম: কিংস ডিজিজ

বেস্ট মেলোডিক র‌্যাপ পারফরম্যান্স: লকডাউন

বেস্ট ট্র্যাডিশনাল পপ ভোকাল অ্যালবাম: আমেরিকান স্ট্যান্ডার্ড

বেস্ট মিউজিক ভিডিও: ব্রাউন স্কিন গার্ল

বেস্ট সং রিটেন ফর ভিজুয়াল মিডিয়া: নো টাইম টু ডাই

বেস্ট কমপিলেশন সাউন্ডট্র্যাক ফর ভিজুয়াল মিডিয়া: জোজো র‌্যাবিট

বেস্ট স্কোর সাউন্ডট্র্যাক ফর ভিজুয়াল মিডিয়া: হিলডার গুয়োনোদোতর

বেস্ট গ্লোবাল মিউজিক অ্যালবাম: টোয়াইস অ্যাজ টল

বেস্ট ডান্স রেকর্ডিং: কেত্রানাদা

বেস্ট ডান্স/ইলেকট্রনিক অ্যালবাম: বুবা

বেস্ট রক অ্যালবাম: দ্য নিউ অ্যাবনর্মাল

বেস্ট রক সং: স্টে হাই

বেস্ট অল্টারনেটিভ মিউজিক অ্যালবাম: ফেচ দ্য বোল্ট কাটারস

বেস্ট মেটাল পারফরম্যান্স: বুম রাশ

বেস্ট কান্ট্রি সলো পারফরম্যান্স: হোয়েন মাই অ্যামি প্রেইজ

বেস্ট কান্ট্রি পারফরম্যান্স জুটি: ড্যান ও শে

বেস্ট কান্ট্রি অ্যালবাম: ওয়াইল্ডকার্ড

বেস্ট কান্ট্রি সং: ক্রাউডেড টেবল

বেস্ট নিউ এজ অ্যালবাম: মোর গিটার স্টোরিজ

বেস্ট জ্যাজ ভোকাল অ্যালবাম: সিক্রেটস আর দ্য বেস্ট স্টোরিজ

বেস্ট ইমপ্রোভাইজড জ্যাজ সলো: অল ব্লুজ

বেস্ট জ্যাজ ইনস্ট্রুমেন্টাল অ্যালবাম: ট্রিলজি ২

বেস্ট লার্জ জ্যাজ অনসাম্বল অ্যালবাম: ডেটা লর্ডস

বেস্ট লাতিন জ্যাজ অ্যালবাম: ফোর কোয়েশ্চেনস

বেস্ট গসপেল পারফরম্যান্স/সং: মুভিং অন


জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার শুভেচ্ছাদূত হলেন তাহসান

তাহসান খান
আপডেটেড ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১৯:৪৯
বিনোদন প্রতিবেদক

আবারও শুভেচ্ছাদূত হলেন সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান খান। আগামী দুই বছরের জন্য তিনি জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআরের শুভেচ্ছাদূত হয়েছেন। টানা কয়েক বছর শরণার্থীদের জন্য কাজ করার ধারাবাহিকতায় এবারও তাকে শুভেচ্ছাদূত করা হয়।

এ প্রসঙ্গে তাহসান খান বলেন, ‘ইউএনএইচসিআর-এর শুভেচ্ছাদূত হয়ে মানবতার জন্য কণ্ঠস্বর হিসেবে কাজ করা একটি সম্মানের বিষয়। তাদের সঙ্গে আমার কাজের মাধ্যমে আমি শরণার্থীদের সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে এবং স্থানীয় জনগণ ও শরণার্থীদের মধ্যে সম্প্রীতি আনতে একটি বড় ভূমিকা রাখতে পারব।’

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তাহসান খান শরণার্থীদের বিষয়ে জানতে ও জানাতে ইউএনএইচসিআরের সঙ্গে কাজ করছেন ২০১৯ সাল থেকে। তিনি প্রতিবছর কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করেন এবং শরণার্থীদের চাহিদা, চ্যালেঞ্জ ও ভবিষ্যতের আশা সম্পর্কে মানুষের মাঝে সচেতনতা তৈরিতে ইউএনএইচসিআরকে সাহায্য করেছেন।

বাংলাদেশে ইউএনএইচসিআরের প্রতিনিধি ইয়োহানেস ভন ডার ক্লাও বলেন, ‘তাহসানের সঙ্গে কাজ করা খুবই আনন্দের এবং তার রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দুর্দশা লাঘবে কাজ চালিয়ে যাওয়ার এই সিদ্ধান্তে আমরা কৃতজ্ঞ। তার অনন্য ব্যক্তিত্ব আমাদের সাহায্য করে মানুষকে বোঝাতে যে শরণার্থীরা শুধুই একটি সংখ্যা নয়, বরং তারাও মানুষ।’

তাহসান বিশ্বব্যাপী ইউএনএইচসিআরের ৪০ জন শুভেচ্ছাদূতের একজন। যারা তাদের জনপ্রিয়তা, আত্মত্যাগ ও কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে বিশ্বের প্রতিটি কোণে শরণার্থীদের অবস্থা ও ইউএনএইচসিআরের কাজকে তুলে ধরতে সাহায্য করেন।


আমি ইয়াসমিন বলছি

বিদ্যা সিনহা মিম
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম এবার পর্দায় আসছেন ইয়াসমিন হয়ে। সত্য ঘটনা অবলম্বনে সিনেমাটি নির্মাণ করছেন সুমন ধর। এতে মূল চরিত্রে অভিনয় করবেন মিম। সিনেমার নাম ‘আমি ইয়াসমিন বলছি’।

জানা গেছে, আগামী এপ্রিলে শুরু হবে সিনেমার শুটিং। আর গল্পের প্রয়োজনে দিনাজপুরে এর দৃশ্য ধারণ করা হবে। ঢাকাতেও হবে এর কিছু অংশের কাজ।

ছবিটি নিয়ে মিম জানান, ‘পরাণ’র সাফল্যের পর প্রচুর কাজের অফার আসছে। তবে একটু ভেবে-চিন্তে কাজে যুক্ত হচ্ছি। এই সিনেমার গল্পটা পড়ে কেঁদে ফেলেছিলাম আমি। এমন হৃদয়স্পর্শী, নৃশংস ঘটনা। সেজন্যই এতে যুক্ত হওয়া।

এদিকে মিম এখন আছেন পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ায়। সেখানে তিনি টালিউড অভিনেতা জিতের সঙ্গে ‘মানুষ’ নামের একটি সিনেমায় অভিনয় করছেন। এটি পরিচালনা করছেন বাংলাদেশের সঞ্জয় সমদ্দার। বর্তমানে সিনেমার শেষ লটের শুটিং চলছে।

১৯৯৫ সালের ২৩ আগস্ট রাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি বাসে করে দিনাজপুরের দশমাইল মোড় এলাকায় নামেন ইয়াসমিন আক্তার নামের এক কিশোরী। তার বয়স ছিল আনুমানিক ১৬ বছর। ওই এলাকায় একটি পানের দোকানের সামনে তিনি অপেক্ষা করছিলেন দিনাজপুরগামী বাসের জন্য। সে সময় টহল পুলিশের একটি ভ্যান আসে এবং একপ্রকার জোর করেই তাকে দিনাজপুরে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। পরদিন সকালে কিশোরীটির মরদেহ পাওয়া যায় গোবিন্দপুর নামক জায়গায়।

ওই ঘটনায় দিনাজপুরের মানুষ ক্ষুব্ধ হয়ে রাস্তায় নেমে আসেন। আন্দোলন গড়ে তোলেন। সেই আন্দোলনে আবার পুলিশ গুলি চালায়। সে সময় নিহত হন সাতজন মানুষ, আহত দুই শতাধিক। এর ফলে প্রতিবাদের ফুলকি ছড়িয়ে যায় গোটা দেশে। এই ঘটনা অবলম্বনেই নির্মিত হবে ছবিটি।

ছবিটি পরিচালক সুমন ধর জানান, ইয়াসমিনের পরিবারের কাছ থেকে গল্পটির অনুমতি নিতে প্রায় দুই বছর লেগেছে। প্রথমে তারা রাজি ছিলেন না। সিনেমার মাধ্যমে ইয়াসমিন বেঁচে থাকবে, বিষয়টি বোঝানোর পর অনুমতি দেন ইয়াসমিনের মা। পরিবারের কাছ থেকে লিখিত অনুমতি নিয়ে চিত্রনাট্যের কাজ শুরু করেছি।’


ভালো হয়ে যাও, নইলে বাড়ি গিয়ে পেটাব: কঙ্গনা

কঙ্গনা রনৌত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন ডেস্ক

বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রনৌতের চটতে সময় লাগে না। এমনিতেই ঠোঁটকাটা হিসেবে খ্যাতি আছে তার। ফের আবার চটলেন কারও ওপর। সব রাগ ঢেলে দিলেন ইনস্টাগ্রামের বিশাল পোস্টে।

এবার কঙ্গনার অভিযোগ ভীষণ গুরুতর। রোববার ইনস্টা স্টোরিতে ‘কুইন’-এর দাবি ছিল, তার ওপর গুপ্তচরবৃত্তি চালানো হচ্ছে। গতকাল সোমবার কঙ্গনা ফের লেখেন, ‘আমি রোববার নজরদারির অভিযোগ করার পরই আজ দেখছি, কেউ আর আমার পিছু নিচ্ছেন না।’ তার পাল্টা হুঁশিয়ারি, ‘তোমরা গ্রামের দেহাতি কারোর মুখোমুখি কখনো হওনি। ভালো হয়ে যাও, নইলে বাড়ি গিয়ে পেটাব। মানুষ আমায় পাগল বলে, কিন্তু জানে না আমি কত বড় পাগল।’

রোববার কঙ্গনার অভিযোগ ছিল, তিনি যেখানেই যাচ্ছেন, তার ওপর ক্যামেরা তাক করে লাগানো রয়েছে। শুধু রাস্তা নয়, বিল্ডিং, পার্ক, বাড়ির ছাদেও নজরদারি চলছে। ক্যামেরায় আলাদা করে জুম লেন্স লাগানো হয়েছে। তার কথায়, ‘সবাই জানেন, পাপারাজ্জিদের টাকা দিলে তারকাদের তারা পিছু নেন, কিন্তু আমি বা আমার টিম কেউ তাদের টাকা দিচ্ছে না, তাহলে কে আমার ওপর ক্যামেরা তাক করার জন্য তাদের টাকা দিচ্ছেন? ভোর সাড়ে-৬টায় উঠে তারা আমার পিছু নিচ্ছেন। আমি কখন, কবে, কোথায় যাচ্ছি, এই সময়সূচি পাচ্ছেনই বা কীভাবে? আর আমার ছবি তুলে সেই ছবিগুলো দিয়ে তারা কীইবা করবেন? রোববার সকালে আমি আমার কোরিওগ্রাফির ক্লাস শেষ করেছি। তখন কাউকে স্টুডিওতেও আসতে বলা হয়নি, তার পরও সকাল সকাল পাপারাজ্জি এসে হাজির।’

কঙ্গনার অভিযোগ ছিল, ‘আমি নিশ্চিত কেউ বা কারা আমার হোয়াটসঅ্যাপের ডাটা ফাঁস করে দিচ্ছেন, যে কারণে আমার ব্যক্তিগত জীবনের সব তথ্য জেনে যাচ্ছে কেউ।’ এখানেই শেষ নয়, কারও নাম না নিয়ে ইঙ্গিত করে কঙ্গনা লিখেছেন নানা কিছু। কঙ্গনা তার নিশানায় কারও নাম না নিলেও ‘কুইন’-এর ইঙ্গিতেই বোঝা গেছে, তিনি রণবীর কাপুর আর তার স্ত্রী আলিয়া ভাটের কথা বলেছেন।


‘তুমি আমার মনের মাঝি’র সুরকার আনোয়ার জাহান মারা গেছেন

আনোয়ার জাহান নান্টু
আপডেটেড ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১৫:৫৮
বিনোদন প্রতিবেদক

‘তুমি আমার মনের মাঝি’ খ্যাত সুরকার ও সংগীত পরিচালক আনোয়ার জাহান নান্টু মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর।

সোমবার ভোরে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। গণমাধ্যমকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন তার ছেলে নাট্যপরিচালক সাগর জাহান।

এই নির্মাতা বলেন, ‘বার্ধক্যজনিত রোগের কারণে বাবা মারা গেছেন। আমার জীবনের সবকিছুর সঙ্গে মিশে আছেন বাবা। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন।’

সোমবার বাদ জোহর মগবাজার বড় মসজিদে জানাজার নামাজের পর তাকে দাফনের কথা রয়েছে।

আনোয়ার জাহান নান্টুর সুর ও সংগীত পরিচালনায় উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে ‘তুমি আমার মনের মাঝি’ ছাড়াও রয়েছে ‘প্রেমের সমাধি ভেঙে’, ‘চোখের জলে ভেসে চলেছি’, ‘তুমি ডুব দিওনা জলে কন্যা’ ও ‘আমার সুখের সাথী আয়রে’ ইত্যাদি।


যে ঘরানার নাটকে দর্শক আগ্রহ বেশি 

আপডেটেড ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১৬:০৪
বিনোদন প্রতিবেদক

‘মানুষ এখন ট্রেন্ডি কাজগুলো বেশি পছন্দ করে বলেই এত ভিউ হয়। এই নাটকগুলোতে একটু বিনোদন আছে, ভালো বার্তা আছে। ভিউ মাথায় রেখেই নির্মাতারা এ ধরনের নাটক নির্মাণ করেন। আমার নাটকগুলো মানুষ পছন্দ করছে, দেখছে, এটা সত্যিই খুব ভালো লাগার। কথাগুলো বলছিলেন ছোট পর্দার অভিনেতা নিলয় আলমগীর। গতকাল বিকেল পর্যন্ত ইউটিউবে ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে থাকা নাটকগুলোর মধ্যে নিলয় আলমগীর অভিনীত দুটি নাটক রয়েছে। শীর্ষ ১০ নাটকের মধ্যে নিলয় আলমগীর ও তানিয়া বৃষ্টি অভিনীত ‘রাগী জামাই’ রয়েছে এক নম্বরে। আরেকটি নাটক ‘চুরি করে প্রেম’ রয়েছে চতুর্থ অবস্থানে। যেখানে নিলয়ের বিপরীতে রয়েছেন জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি। নিলয়ের দুটি নাটক ট্রেন্ডিংয়ে আছে, বিষয়টি কীভাবে দেখছেন, তা জানাচ্ছিলেন এই অভিনেতা।

নিলয় আরও বলেন, “মানুষ এখন এতটাই কর্মব্যস্ত যে তাদের জীবনে বিনোদন নেই। সিনেমা হলে কিন্তু এখন আগের মতো দর্শক নেই। কেন নেই, তাদের সেই সময়টুকু হচ্ছে না। অথচ আপনি মোবাইলে খুব সহজে একটা নাটক দেখে ফেলতে পারেন। ‘রাগী জামাই’ বা ‘চুরি করে প্রেম’ দুটি নাটকই একটু ফানি ঘরানার। অনেক বিনোদন রয়েছে, তাই মানুষ দেখছে।”

‘রাগী জামাই’ নাটকটি পরিচালনা করেছেন মাঈদুল রাকিব। নাটকটি প্রচারিত হওয়ার দুই দিনের মধ্যে ১৪ লাখ মানুষ দেখেছে। নাটকটির মন্তব্যের ঘরে চোখ পড়লেই বোঝা যায় অভিনেতা নিলয়ের এক ধরনের দর্শক রয়েছে। যারা তার নাটকগুলো নিয়মিত দেখেন। মো. সাজিদ নামের একজন দর্শক লিখেছেন, ‘নাটকটা অনেক সুন্দর হয়েছে। নিলয় ভাই অভিনয়টা সুন্দর করছে। রাগের অভিনয় আর নাটকটি এত হাসির, ভালো লেগেছে খুব।’

ট্রেন্ডিংয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় অবস্থানে থাকা নাটক হলো ‘শীতের গোসল’ ও ‘জাতের মেয়ে কালো ভালো-১০’। নাটকগুলোর পরিচালনায় রয়েছে ঈগল টিম, যা ২৪ লাখ ও ২১ লাখ ভিউ অতিক্রম করেছে। ‘শীতের গোসল’ নাটকটিতে অভিনয় করেছেন সজল ও জারা নুর। ‘জাতের মেয়ে কালো ভালো-১০’-এ অভিনয় করেছেন সবুজ আহমেদ ও রাবিনা। দুটি নাটকেই নেই ভালো মানের কোনো অভিনেতা, নেই কোনো নির্মাতা। ঈগল মিউজিক থেকে নির্মিত হয়েছে নাটক দুটি। দর্শক টানার প্রবণতায় এমন নাটক নির্মিত হচ্ছে, এই কথা প্রায়ই শোনা যায়। এমনকি এই নাটকের দর্শকও রয়েছে প্রচুর। তা বোঝা যায় ট্রেন্ডিংয়ে থাকা ঈগল মিউজিকের আরও দুটি নাটক দেখে। ট্রেন্ডিংয়ে ষষ্ঠ ও সপ্তম অবস্থানে রয়েছে নাটকগুলো, যা প্রচারের ৯ ও ১২ দিনের মাথায় প্রায় ২২ লাখ ও ২৩ লাখ মানুষ দেখেছে। নাটকের মান ও এই ভিউ নিয়ে বিনোদন অঙ্গনে চলছে নানা সমালোচনা।

‘রিকশাওয়ালার সংসার’ শিরোনামের নাটক রয়েছে পঞ্চম অবস্থানে। নাটকটিতে অভিনয় করেছেন সাগর আহমেদ ও জেবা জান্নাত। আজিজুল ইসলামের রচনা ও পরিচালনায় নাটকটি প্রচারের চার দিনে ৭ লাখ মানুষ দেখেছে।

‘লাভ স্টেশন’ নাটকটি ট্রেন্ডিংয়ে ষষ্ঠ স্থান দখল করেছে। মহিদুল মাহিমের পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন ফারহান আহমেদ জোভান ও সাবরিনা পড়শী। এটি প্রচার হয়েছে ১৪ দিন আগে। প্রায় ৬৩ লাখ মানুষ নাটকটি দেখেছে।

এ ছাড়া নবম ও দশম স্থানে থাকা দুটি নাটক হলো ‘বেইমান স্বামী’ ও ‘পরের মেয়ে’। ‘বেইমান স্বামী’ নাটকটিতে অভিনয় করেছেন তন্ময় সোহেল ও মাইমুনা ফেরদৌস মম। মহিন খান টিমের পরিচালনায় নাটকটি ১০ লাখ মানুষ দেখেছে। ফজলুল সেলিমের পরিচালনায় নাটক ‘পরের মেয়ে’। এতে অভিনয় করেছেন তন্ময় সোহেল, ফাতেমা হিরা, সায়েম ও পারভেজ।


টিএসসিতে আসছে ‘হাওয়া’

আপডেটেড ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১৬:০৭
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টিএসসি প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে ‘আমার ভাষার চলচ্চিত্র-১৪২৯’। দুই বাংলার চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় এই আয়োজনে আজ সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রদর্শিত হবে গত বছরে দেশের সবচেয়ে আলোচিত চলচ্চিত্র ‘হাওয়া’।

গতকাল রোববার উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. মুহাম্মদ সামাদ, মুক্তিযোদ্ধা ও চলচ্চিত্র নির্মাতা নাসির উদ্দীন ইউসুফ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেলিভিশন ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদের সঞ্চালক হাবিবা রহমান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) ড. মুহাম্মদ সামাদ বলেন, ‘সিনেমা আমাদের বাস্তব জীবনেরই বহির্প্রকাশ। এ থেকে আমরা ন্যায়-অন্যায়, ভালো-মন্দ শিক্ষা পাই।’

উৎসবের প্রথম দিনে আলমগীর কবির পরিচালিত ‘সীমানা পেরিয়ে’ চলচ্চিত্রের প্রদর্শনের মাধ্যমে পর্দা উঠল এবারের আসরের। এ ছাড়া প্রদর্শিত হয় ‘আনন্দ অশ্রু’, ‘বিউটি সার্কাস’, ‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’। উৎসব প্রাঙ্গণে উপস্থিত ছিলেন ‘বিউটি সার্কাস’ ও ‘কুড়া পক্ষীর শূন্যে উড়া’ চলচ্চিত্রের কলাকুশলী।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শায়লা আক্তার লুমুন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিবছরই আমি এই আয়োজন উপভোগ করতে আসি। বড় স্ক্রিনে চলচ্চিত্র প্রদর্শন, সাউন্ড সিস্টেমের ব্যবহার- সব মিলিয়ে এই উৎসবের আমেজই ভিন্ন।’
উৎসবে আজ সকাল ১০টায় প্রদর্শিত হবে আমজাদ হোসেন পরিচালিত ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, দুপুর ১টায় শাহিন দিল-রিয়াজ পরিচালিত প্রামাণ্যচিত্র ‘শিল্প শহর স্বপ্নলোক’, বেলা সাড়ে ৩টায় ইয়াসমিন কবির পরিচালিত প্রামাণ্যচিত্র ‘পরবাসী মন আমার’, সুবর্ণা সেঁজুতি পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ঢেউ’ এবং একই সঙ্গে প্রদর্শিত হবে মিতালী রায় পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘দূরে’ এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় প্রদর্শিত হবে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হাওয়া’।

পাঁচ দিনব্যাপী এই উৎসবে প্রদর্শিত হবে দুই বাংলার সমসাময়িক ও ধ্রুপদী ১৮টি চলচ্চিত্র, দুটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ও দুটি প্রামাণ্যচিত্র। এবারের আসরে উৎসব সহযোগী হিসেবে রয়েছে এস কিউ গ্রুপ। প্রচার সহযোগী হিসেবে রয়েছে চ্যানেল আই, দ্য রিপোর্ট.লাইভ এবং দৈনিক বাংলা। প্রদর্শন সহযোগী হিসেবে রয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া ও বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ।

বিষয়:

হাসপাতালে ভর্তি আব্দুল আজিজ

অভিনেতা ও নির্মাতা আব্দুল আজিজ। ফাইল ছবি
আপডেটেড ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১৭:৩২
বিনোদন প্রতিবেদক 

ডিরেক্টরস গিল্ডের সদস্য, অভিনেতা ও নির্মাতা আব্দুল আজিজ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন। রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) ভর্তি আছেন তিনি। তার ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাক হয়েছে বলে জানা গেছে।

টেলিভিশন নাটক নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সাগর এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

কামরুজ্জামান বলেন, ‘গত শনিবার রাত ৮টার দিকে অসুস্থ হয়ে পড়লে আব্দুল আজিজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ডাক্তার জানান, তার ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাক হয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসাধীন। সবার কাছে তার জন্য দোয়া চাই।’

আব্দুল আজিজ একাধারে মঞ্চ, রেডিও, টিভি ও সিনেমায় কয়েক দশক অভিনয় করছেন। রেডিওর প্রায় ১৬০০ নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি। তিনি একজন নির্মাতা ও লেখক। বর্তমানে তাকে কাজে খুব একটা দেখা যায় না। তবে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’তে নিয়মিত দেখা মেলে তার। আব্দুল আজিজের সর্বশেষ অভিনীত অমিতাভ রেজা পরিচালিত ‘রিকশা গার্ল’ সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে।


আরও একবার নিজের শহরে আইয়ুব বাচ্চু

আপডেটেড ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ ১৮:৪৯

আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি ব্যান্ড কিংবদন্তি প্রয়াত আইয়ুব বাচ্চুর নিজ শহর চট্রগ্রামে তার গিটার ও স্মৃতি নিয়ে একটি বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে তার ব্যান্ড এলআরবি। নিজেদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বিষয়টি জানিয়েছে এলআরবি।

দলটি জানিয়েছে, ‘সাগরের রুপালি ঢেউ আর রুপালি গিটারের শহর। কিংবদন্তি আইয়ুব বাচ্চুর স্মৃতির শহর। আইয়ুব বাচ্চুর হাত ধরে আমাদের সংগীতের এক রূপকথার যাত্রা শুরু হয়েছিল এই শহরেই। আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি আইয়ুব বাচ্চু ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে চট্টগ্রামের বেস্ট ওয়েস্টার্ন অ্যালায়েন্স (আগ্রাবাদ) হোটেলে প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে রক আইকনের স্মৃতিবিজড়িত গিটার ও অন্যান্য স্মৃতি স্মারক প্রদর্শনীটি। এদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে প্রদর্শনীটি।'

গত বছরের নভেম্বর মাসে আইয়ুব বাচ্চুর গিটার নিয়ে একটি প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয় ঢাকার সফিউদ্দীন শিল্পালয়ে। ‘হারানো বিকেলের গল্প’ শিরোনামে ওই প্রদর্শনীটি ছিল কিংবদন্তির প্রয়াণের পর সীমিত আকারের প্রথম কোনো প্রদর্শনী।


banner close