বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

হাইকোর্টের দ্বারস্থ সালমান খান

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৪ মে, ২০২৪ ১৩:২৯

পুলিশি হেফাজতেই ভাইজান খ্যাত বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের ‘গ্যালাক্সি’তে গুলিবর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত গ্রেপ্তার অনুজ থাপান কারাগারের মধ্যেই আত্মহত্যা করেছে- এমন দাবি তুলেছিল মুম্বাই পুলিশ। সংশ্লিষ্ট ঘটনায় মৃতের মা পাল্টা আদালতে পিটিশন দাখিল করেছিলেন সিবিআইর তদন্ত চেয়ে। তার ভিত্তিতেই এবার সালমান মুম্বাই হাইকোর্টের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, ওই পিটিশন থেকে যেন তার নাম সরিয়ে নেওয়া হয়।

বিচারপতি এন আর, বিচারপতি বোরকার এবং বিচারপতি সোমশেখর সুন্দরেসানের তিন সদস্যের বেঞ্চ পোস্টমর্টেম রিপোর্টটি পর্যবেক্ষণ করেছে। বলা হয়েছে যে, মৃতের ঘাড়ে পাওয়া চিহ্নগুলোর ছবি এবং শরীরে অন্য কোনো আঘাতের চিহ্নের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের কথা উল্লেখই করা হয়নি। আদালত অভিযুক্ত অনুজ থাপনের মা রীতাদেবীর দায়ের করা আবেদনও খতিয়ে দেখে।

বুধবার উচ্চ আদালতের কাছে অনুজ থাপনের মায়ের দাখিল করা পিটিশন থেকে নিজের নাম তুলে নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন বলিউড সুপারস্টার। যে পিটিশনে মৃতের মা জেলের ভেতর ছেলের রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছিলেন। এ প্রসঙ্গে সালমান খানের তরফে সিনিয়র কাউন্সেল আবাদ পোন্ডা আদালতের কাছে জানিয়েছেন, ‘অভিনেতা সালমান নিজেই এখানে হামলার শিকার। কেউ সালমানের বাড়িতে হামলা চালিয়েছিল। সালমান খান নিজেও জানেন না, এই ঘটনার নেপথ্যে ঠিক কারা রয়েছে? আর কাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাই ওই পিটিশনের সঙ্গে সালমান খানের নাম জুড়লে ভুল বার্তা দেওয়া হবে। তার মানহানিও হবে।’

গত ১৪ এপ্রিল কাকভোরে সালমান খানের বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্টে হামলা চালায় দুই ব্যক্তি। বিষ্ণোই গ্যাং সেই হামলার দায় স্বীকার করেছে। তারপর জল গড়িয়ে বহুদূর। নিত্যদিন একের পর এক তথ্য প্রকাশ্যে আসছে। পাঞ্জাব থেকে মুম্বাই পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয় অনুজ থাপন ও সুভাষ নামে দুই ব্যক্তি। তারা শুটারদের বন্দুক জোগান দিয়েছিল বলে অভিযোগ। জানা গেছে, দুজনেরই বিষ্ণোই গ্যাংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। সেই অনুজই গত পহেলা মে হাজতে আত্মঘাতী হয়েছে বলে জানিয়েছিল মুম্বাই পুলিশ। ঘটনার সিবিআই তদন্ত চেয়ে তার মা পাল্টা আদালতে পিটিশন দাখিল করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, সালমান খানের বাংলোয় হামলার ঘটনার পরই গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে গিয়েছিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিণ্ডে খোদ। শুধু তাই নয়! ভাইজানকে খুনের হুমকি দেওয়া বিষ্ণোই গ্যাংকেও খতম করার কথা ঘোষণা করেন তিনি। তারপর থেকেই সংশ্লিষ্ট মামলায় আদাজল খেয়ে মাঠে নেমেছে মুম্বাই পুলিশ।

বিষয়:

শাকিবের তুফানময় ঈদ!

আপডেটেড ২০ জুন, ২০২৪ ০০:৫০
বিনোদন প্রতিবেদক

এমনটিই হওয়ার কথা ছিল! একটি ছবি নিয়ে এত হৈহুল্লোড় আর মাতামাতি হতে পারে তা আসলে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার আগে বোঝা যায়নি। ঈদুল আজহার কয়েকদিন আগে থেকে যখন ছবির টিজার আর পোস্টার ঝলক ছাড়া হয়েছিল, তখনিই শাকিব ভক্ত তথা ঢাকাই সিনেমাপাড়ার দর্শকরা বলেছিল ‘তুফান’ সত্যিকারের তুফান নামিয়ে আনবে।

বাংলা ছবি যে তার পথ পরিবর্তন করছে তা তুফান ছবি দেখেই মনে হচ্ছে। শাকিবিয়ানদের উন্মাদনা, রায়হার রাফীর মেকিং কিংবা গল্পের ধরন সবকিছুই ছাপিয়ে গেছে তুফান। এই তুফান যে ঢাকাই ছবিতে আলাদাভাবে তুফানময় করে তুলবে, তা ছবি মুক্তির আগেই চলচ্চিত্র বোদ্ধারা ধারণা করেছিল। যদিও শাকিব হেটার্সদের কথা ছিল ভিন্ন। তারা তো তুফান নিয়ে নানান সমালোচনা করেই যাচ্ছেন। অবশ্য শাকিবিয়ানদের মতে, ঈদের মুক্তিপ্রাপ্ত অন্য ছবিগুলো আলোচনায় আনার জন্যই তারা নানা কথা বলে বেড়াচ্ছে।

এদিকে ঈদুল আজহার পরের দিন থেকেই মূলত প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ছবি দেখে থাকে দর্শক। ঈদের দিনের কোরবানির একটা ব্যস্ততায় সেভাবে বিনোদনের জন্য সময় বের করা হয় না মানুষের। তাই তো তুফানের মূল দর্শক আলোচনা ঈদের দ্বিতীয় দিন থেকেই বেশি বোঝা যায়। আর গতকাল ঈদের তৃতীয় দিন তো তুফান নিয়ে রীতিমতো দর্শক মাতোয়ারা বলা যায়।

তুফান ছবিতে শাকিব খান এবং কলকাতার মিমি ছাড়াও ভিন্নকিছু পারফর্মার যোগ করায় পরিচালক রায়হান রাফী কিছু সিগনেচার রেখেছেন। ছবিতে চঞ্চল চৌধুরীর অভিনয় যোগ করেছে ভিন্নমাত্রা। এ ছাড়া সালাহউদ্দিন লাভলু, নাবিলাসহ আরও কিছু অভিনয়শিল্পীর উপস্থিতি সত্যিকার অর্থে ছবিটিতে আলাদা মাত্রা দিয়েছে। আর তো রয়েছে মেকিং। এত দিন বাংলা ছবির দর্শকরা দক্ষিণি তামিল-তেলেগুর ছবি দেখে আফসোস করত ঢাকাই ছবিতে কবে এরকম ছবির পালক যোগ হবে। ‘তুফান’ সে খরায় অনেকটা বৃষ্টি হয়ে ঝরেছে।

এদিকে তুফান নিয়ে চঞ্চল চৌধুরী তার উচ্ছ্বসিত অভিমত ব্যক্ত করেছেন। তিনি বলেন, ‘দর্শকদের যখন ভালো লাগে, তখন আমাদেরও ভালো লাগে। আমরা আমাদের ভেতর আলাদা গতি পাই, উৎসাহ পাই। যেমন- এই ‘তুফান’ নিয়ে যে পরিমাণ আগ্রহ দর্শকের, এতে খুব ভালো লাগছে। ছবিটি সুপারডুপার হিট হলে আরও বড় বড় প্রজেক্টে কাজ করব। আর সব সময়ই দর্শকদের জন্য অভিনয়টা করে যেতে চাই। আর দর্শক চাইলেই তুফান-২ হবে।’

শুধু চঞ্চল চৌধুরীই নন, ‘তুফান’ নিয়ে উচ্ছ্বসিত শাকিব খান এবং পরিচালক রায়হান রাফীও। গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাফী বলেছেন, ‘পয়সা উশুল সিনেমা ‘তুফান’। সিনেমাটি দেখলে পয়সা উশুল তো হবেই, সেই সঙ্গে আরও বেশি কিছু হবে। আমার সিনেমা দেখে কখনো কেউ ধোঁকা খাননি। ‘পরান’, ‘সুড়ঙ্গ’ দর্শকদের ভালো লেগেছে। এখন ‘তুফান’ দেখে তাদের বিশ্বাসটা আরও বাড়বে। উৎসবটা আসলে এখন সাইক্লোনে পরিণত হয়েছে।’

ঈদুল আজহায় ‘তুফান’ ছাড়াও আরও চারটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। সেসব ছবিও দর্শকদের আগ্রহ তৈরি করছে বলে জানা গেছে। এমডি ইকবাল পরিচালিত ‘রিভেঞ্জ’ ভালো যাচ্ছে বলে জানা যায়। এতে জুটি হয়ে অভিনয় করেছেন জিয়াউল রোশান ও শবনম বুবলী, দীপা খন্দকার, মিশা সওদাগর, সীমান্তসহ অনেকে।

মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘ডার্ক ওয়ার্ল্ড’ রয়েছে আলোচনায়। কলকাতার কৌশানী রয়েছে এতে। ক্রাইম থ্রিলার ঘরানার এই সিনেমায় নায়ক হিসেবে আছেন নবাগত মুন্না খান। ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘আগন্তুক’ ও ‘ময়ূরাক্ষী’ ছবি দুটিও ভালো যাচ্ছে বলে জানা গেছে। ‘আগন্তুক’-এর প্রধান চরিত্রে আছেন পূজা চেরী ও শ্যামল মাওলা। ‘ময়ূরাক্ষী’-তে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি ও সুদীপ বিশ্বাস দীপ।


বিরল স্নায়বিক রোগে আক্রান্ত অলকা ইয়াগনিক

জনপ্রিয় প্লেব্যাকশিল্পী অলকা ইয়াগনিক। ফাইল ছবি
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

বিরল এক স্নায়বিক রোগে আক্রান্ত হয়েছেন ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় প্লেব্যাকশিল্পী অলকা ইয়াগনিক। এর ফলে ধীরে ধীরে তিনি হারাচ্ছেন শ্রবণশক্তি।

ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে তিনি জানান, কয়েক সপ্তাহ আগে বিমানবন্দর থেকে বেরোনোর সময় হঠাৎ করেই কোনো কিছু শুনতে পাচ্ছিলেন না তিনি। সেই থেকেই সমস্যার শুরু। তবে চিকিৎসা শুরু হয়েছে। এরপরই ভক্ত ও সহকর্মীদের কাছে উচ্চমাত্রার শব্দ থেকে যথাসম্ভব দূরে থাকার অনুরোধ করেছেন তিনি। আর অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে হেডফোন ব্যবহার করতে বলেছেন।

অলকা ইয়াগনিকের এই পোস্টে অনুরাগীদের পাশাপাশি উদ্বিগ্ন সোনু নিগম, ইলা অরুণের মতো শিল্পীরা। সোনু নিগম লিখেছেন, ‘আমার মনেই হয়েছিল, সব ঠিক নেই। ফিরেই তোমার সঙ্গে দেখা করব। দ্রুত সেরে ওঠো।’

ছয় বছর বয়সে কলকাতায় আকাশবাণী রেডিওতে গান করেন অলকা ইয়াগনিক। এরপর মাত্র ১০ বছর বয়সে চলে যান মুম্বাইয়ে।১৯৮০ সালে ‘পায়েল কি ঝংকার’ ছবিতে প্রথম প্লেব্যাক করেন অলকা। ১৯৮৮ সালে ‘তেজাব’ ছবির ‘এক দো তিন’ গানে প্লেব্যাক করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান। এরপর তো একে একে তিন দশকের বেশি সময় অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গানে কণ্ঠ দিয়েছেন অলকা ইয়াগনিক।

চার দশকের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে এক হাজারে বেশি ছবিতে গান গেয়েছেন অলকা ইয়াগনিক। ২৫টি আলাদা আলাদা ভাষায় তার মোট গানের সংখ্যা ২১ হাজারের বেশি। বিবিসির করা সেরা ৪০টি হিন্দি গানের তালিকায় অলকা ইয়াগনিকের গানই আছে ২০টি। ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে ইউটিউব মিউজিক চার্টস অ্যান্ড ইনসাইটস লিস্টের শীর্ষ গায়িকা হন অলকা।


১০০ কোটির মামলা করলেন রাভিনা

আপডেটেড ১৬ জুন, ২০২৪ ০০:০৫
বিনোদন ডেস্ক

কয়েক দিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছিল বলিউডের সিনিয়র অভিনেত্রী রাভিনা ট্যান্ডনের একটি হেনস্তার ভিডিও। সেই ভিডিওর নেপথ্যের ঘটনা নিয়ে সম্প্রতি মুখও খুলেছিলেন রাভিনা। আর এবার সেই কাণ্ডে নেটিজেনের বিরুদ্ধে ১০০ কোটির মানহানির মামলা করলেন রাভিনা ট্যান্ডন। যে ব্যক্তি রাভিনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন, তার নামেই মামলা ঠুকলেন অভিনেত্রী।

রাত-বিরাতে বান্দ্রার রাস্তায় ধুন্ধুমার কাণ্ড। অভিনেত্রীর গাড়ি থামিয়ে চড়াও হন তিন মহিলা। দাবি, রাভিনার গাড়ি নাকি তাদের ধাক্কা মেরেছে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে অভিনেত্রীকে মারতে পর্যন্ত উদ্যত হন ওই মহিলারা। এ ঘটনার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় রাভিনাকে নিয়ে নানা কটাক্ষ নেটিজেনদের একাংশের। তাদের দাবি স্টার তকমা নিয়ে সাধারণের সঙ্গে এমন ব্যবহার তার। এমনকি, কেউ কেউ সালমান খানের গাড়ি কাণ্ডের সঙ্গেও তুলনা টেনেছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেত্রী জানিয়ে ছিলেন, ‘ভালোবাসা এবং সমর্থন দেওয়ার জন্য আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। আমার ওপর বিশ্বাস রাখার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাই। তবে শেষ পর্যন্ত এই গল্পের মূল কথা কী দাঁড়াল জানেন? ড্যাশক্যাম ও সিসিটিভি ক্যামেরা লাগিয়ে রাখুন।’

মহিলাদের অভিযোগ, রাভিনা ট্যান্ডনের গাড়ির ধাক্কায় নাকি তাদের মধ্যে এক মহিলার রক্তপাত হয়েছে। তার জেরেই বচসা বাঁধে দুই পক্ষের। এদিন রাতে ঝামেলা শুরু হওয়ার পরই রাভিনা ট্যান্ডন গাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন। এদিকে অভিনেত্রীকে দেখেও ওই মহিলারা প্রায় রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন। তখনই বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। রাভিনার দিকে তেড়ে যান তারা। ভয় পেয়ে তিনি খানিক পিছিয়েও যান। কাতরভাবে আর্জিও জানাতে থাকেন, ‘ধাক্কা দেবেন না দয়া করে, আমাকে মারবেন না।’ সেই ক্যামেরাবন্দি মুহূর্ত আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় দেদার গতিতে ভাইরাল। রাভিনার পরনে সাদামাঠা পোশাক। মেকআপের লেশমাত্র নেই! সেখানেই জনৈক মহিলাকে অভিনেত্রীর উদ্দেশে বলতে শোনা যায়, ‘দেখুন আমার নাক থেকে রক্ত বেরুচ্ছে। আজকের রাতটা জেলেই কাটাতে হবে আপনাকে।’

চড়াও হওয়া ওই মহিলাদের অভিযোগ, অভিনেত্রী সেই সময়ে মদ্যপ ছিলেন। অনতিদূরেই খার থানা। বচসার পর রাভিনা ট্যান্ডন এবং তার চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তারা। ঘটনার জেরে থানায় ছুটে যান রাভিনার স্বামী তথা জনপ্রিয় ফিল্ম ডিস্ট্রিবিউটর অনিল থাড়ানিও।


ভাই হারালেন ডিপজল

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

জনপ্রিয় অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের বড় ভাই হাজি মো. শাহাদাৎ হোসেন মারা গেছেন।

আজ শনিবার রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। ভাইয়ের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন ডিপজল নিজেই।

শনিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে ফেসবুকে এক পোস্টে ডিপজল লেখেন, ‘হাজী মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন (বাদশা ভাই) কিছুক্ষন আগে শ্যামলীর একটি হসপিটালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না-লিল্লাহ..... রাজেউন)। আল্লাহ যেনো উনাকে বেহেশত নসিব করেন।’

এর আগে গতকাল শুক্রবার নিজের বড় ভাইয়ের সুস্থতা কামনায় ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন ডিপজল।

সেখানে তিনি লেখেন, ‘আমার বড় ভাই হাজি মো. শাহাদাৎ হোসেন (বাদশা ভাই ) ১৪ জুন ভোর ৩টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতাল, কল্যাণপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বর্তমানে লাইফ সাপোর্টে আছেন। সবাই তার দ্রুত সুস্থতার জন্য দোয়া করবেন।


কথা রাখলেন মেহজাবীন চৌধুরী

আপডেটেড ১৫ জুন, ২০২৪ ০০:০৩
বিনোদন প্রতিবেদক

ছোটপর্দার শীর্ষ চাহিদা সম্পন্ন মডেল-অভিনেত্রী মেহজাবীন। কিন্তু তারপরও গতে দুই বছর ধরে টিভি নাটকে অভিনয় না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। টিভি নাটক না করার এক প্রকার ঘোষণা দিয়েই এই লাক্সকন্যা বলেছিলেন, ‘টিভি নাটকের গল্প ও চরিত্র প্রায় একই ধরনের। এ কারণে টিভি নাটকে কাজ করতে এক ধরনেরে একঘেয়েমি চলে এসেছে। বরং এখন ওটিটিতে ভালো ভালো কন্টেন্ট ও ব্যতিক্রমী চরিত্র থাকছে। সেগুলোতে কাজ করার যেমন অবাধ সুযোগ থাকছে, তেমনি এসব চরিত্রে কাজ করতেও ভালো লাগছে। দর্শকও এসব সিরিজগুলো বেশ সানন্দে উপভোগ করছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন ওটিটিতে কাজ করছি বলে টিভি নাটকে কাজ করব না, এমন নয়। ছোটপর্দাই আমাকে আজকের এ অবস্থানে নিয়ে এসেছে। আমাকে মেহজাবীন বানিয়েছে। ভালো কিছু ও মনের মতো কোনো গল্প, চরিত্র ও নির্মাতা পেলে অবশ্যই কাজ করব।’

নিজের দেওয়া সেই কথা রাখলেন মেহজাবীন। তার নাটকের ভক্ত-দর্শকদের জন্য সুখবর দিয়ে এই মডেল অভিনেত্রী জানালেন, এবারের ঈদে তাকে চ্যানেল আইতে একটি নাটকে অভিনয়ে দেখা যাবে। নাটকের নাম ‘তিথিডোর’। নাটকটি রচনা করেছেন জাহান সুলতানা এবং পরিচালনা করেছেন ভিকি জাহেদ। এরই মধ্যে নাটকটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে বলে জানান মেহজাবীন।

নাটকটিতে অভিনয় করা প্রসঙ্গে মেহজাবীন বলেন, ‘তিথিডোর নাটকটি মূলত একটি চরিত্রকে ঘিরে। আত্মহত্যার প্রবণতায় ভুগছেন এমন একজন মানুষ নিশাতকে ঘিরেই এই নাটকের গল্প। গল্পটা এ সময়ের জন্য উপযোগী একটি গল্প। দেখা যায যে আমাদের সমাজে এমন অনেক মেয়েই আছে দেখতে বেশ হাসি-খুশি। কিন্তু ভেতরে ভেতরে সে যে কী এক যন্ত্রণায় সময় পার করছে তা বাইরে থেকে কেউই অনুধাবন করতে পারবে না। আমার কাছে মনে হয়েছে এ ধরনের গল্প এই সময়েই বলা উচিত। আমি নাটক এখন খুবই কম করি। কিন্তু তারপরও এ ধরনের গল্প সমাজের মানুষের কাছে তুলে ধরার জন্য শিল্পী হিসেবে আমার দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে এ নাটকে অভিনয় করা।’

এই লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার বলেন, ‘আর আমি ভীষণভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি ওপার বাংলার কিংবদন্তি অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক স্যার ও তার সহধর্মিণী শ্রীমতি দীপা মল্লিক ম্যাডামের কাছে। তারা আমার অভিনীত নাটক দেখেন, এটা আমার জন্য সত্যিই অনেক আনন্দের এবং অনুপ্রেরণারও বটে। আমাকে নিয়ে তাদের কথা এবং ভালোবাসা আমাকে খুব স্পর্শ করেছে।’


চিত্রনায়িকা সুনেত্রা আর নেই

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

চিত্রনায়িকা সুনেত্রা আর নেই। ভারতের কলকাতায় ৫৩ বছর বয়সে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। অভিনেত্রী মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্রশিল্পী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

ফেসবুকে দেওয়া একটি স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘একসময়ের জনপ্রিয় নায়িকা, শৈশবের আমার পছন্দের একজন নায়িকা, চোখের প্রেমে পড়ত যে কেউ, তিনি সুনেত্রা। অনেক দিন আগেই বাংলাদেশ ছেড়ে কলকাতায় গিয়েছেন। আমি চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন কয়েকবার ফোনে কথা বলেছিলাম। আজকে হঠাৎ শুনলাম তিনি আর নেই, মৃত্যুবরণ করেছেন। নীরবে নিভৃতে চলে গেলেন। এভাবেই হারিয়ে যায় মানুষ, চলে যায়। আপনি ভালো থাকবেন ওপারে। অনেক চলচ্চিত্র দেখব আর আপনাকে মিস করব।’

সুনেত্রা মূলত ওপার বাংলার অভিনেত্রী। যদিও ভারতের পাশাপাশি বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বহু সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। ১৯৭০ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন সুনেত্রা। তার মূল নাম রীনা সুনেত্রা কুমার। থিয়েটারের মাধ্যমেই অভিনয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর।

এই অভিনেত্রী চিত্রনায়ক জসীম, ফারুক, সোহেল রানা, আলমগীর, ওয়াসিম, ইলিয়াস কাঞ্চন, জাফর ইকবাল, নাদিম (পাকিস্তান), মান্নাদের বিপরীতে অভিনয় করে উপহার দিয়েছেন একের পর এক হিট সিনেমা।

বিষয়:

একই মঞ্চে তাহসান-মিথিলা

আপডেটেড ১৩ জুন, ২০২৪ ০০:০৬
বিনোদন প্রতিবেদক

দেশীয় শোবিজের একসময়ের আলোচিত তারকা দম্পতি তাহসান খান ও রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। একসঙ্গে জুটি বেঁধে অনেক নাটকে অভিনয়ও করেছেন তারা। ২০১৭ সালে বিবাহবিচ্ছেদের পর পর্দায় আর দেখা যায়নি এ জুটিকে। প্রায় ৭ বছর পর একসঙ্গে দেখা মেলেনি দুজনের। দীর্ঘ বিরতি পেরিয়ে আবারও একসঙ্গে ফিরছেন তাহসান-মিথিলা। আরিফুর রহমানের ‘বাজি’ ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে তাদের। যদিও গত এক মাসেরও বেশি সময় ধরে এমন খবর চাউর হয়ে আসছে গণমাধ্যমে। তবে এবার সত্যি সত্যি এক মঞ্চে হাস্যোজ্জ্বলভাবে উপস্থিত হতে দেখা গেল সাবেক এ তারকা দম্পতিকে।

মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয় বাজি সিরিজের ট্রেলার। সেখানে উপস্থিত হয়ে মিথিলার অভিনয়ের প্রশংসা করেন তাহসান। তবে তাহসান প্রসঙ্গে মিথিলা দিয়েছেন সাবধানী উত্তর। দীর্ঘদিন পর মিথিলার সঙ্গে অভিনয় প্রসঙ্গে তাহসান বলেন, ‘মিথিলা অনেক গুণী অভিনেত্রী। অনেক বছর পর তার সঙ্গে কাজ করছি। যদিও সিরিজটির সাত পর্বের মধ্যে মাত্র একটি দৃশ্যে আমাদের একসঙ্গে দেখা যাবে। তার সঙ্গে আমার কাজ করার অভিজ্ঞতা খুব ভালো।’

তবে তাহসানকে নিয়ে অনেকটা কৌশলে উত্তর দিয়েছেন মিথিলা। মিথিলা বলেন, ‘অনেক দিন পর তাহসানের সঙ্গে অনস্ক্রিন কাজ করা হলো। শুধু তাহসান নয়, এই সিরিজে অনেক সহশিল্পীর সঙ্গেই দীর্ঘদিন পর কাজ করা হলো। গুণী অভিনেতাদের সঙ্গে অভিনয় করতে সব সময়ই ভালো লাগে। এ ছাড়া বাজি তাহসানের প্রথম ওয়েব সিরিজ। নির্মাতা আরিফুর রহমানের প্রথম সিরিজ। আশা করি, অনেক কিছু প্রথম মিলিয়ে ভালো একটি কাজ হয়েছে।’

সহশিল্পী হিসেবে এখন তাহসানকে মিস করেছে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে মিথিলা বলেন, ‘আমি এমনিতেই কম কাজ করি। তাই কাজ করাটাই মিস করি।’ ভবিষ্যতে আবার পর্দায় তাদের একসঙ্গে দেখা যাবে কি না, এ নিয়েও সাবধানী উত্তর দিয়েছেন মিথিলা। ভবিষ্যতের চিন্তা না করে এই প্রজেক্ট নিয়ে কথা বলাই শ্রেয় বলে মনে করেন তিনি। বাজি ওয়েব সিরিজটিতে আরও অভিনয় করেছেন মিম মানতাসা, নাজিয়া হক অর্ষা, মনোজ প্রামাণিক, শাহাদাৎ হোসেন, পার্থ শেখ, তাসনুভা তিশা, আবরার আতহার প্রমুখ। ১৬ জুন থেকে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকিতে দেখা যাবে সাত পর্বের এই সিরিজ।


আগ্রহের তালিকায় বুবলীর ‘রিভেঞ্জ’

আপডেটেড ১২ জুন, ২০২৪ ০০:০৯
বিনোদন প্রতিবেদক

ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম শবনম ইয়াসমিন বুবলী। টানা কয়েক ঈদেই তার অভিনীত সিনেমা মুক্তি পাওয়ায় বেশ ফর্মে রয়েছেন এ নায়িকা। চলতি বছর ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেয়েছিল ‘দেয়ালের দেশ’ ও ‘মায়া’ নামে দুটি সিনেমা। আসন্ন ঈদেও দুটি সিনেমা মুক্তির কথা ছিল বুবলীর। একটি ‘জংলি’ এবং অন্যটি ‘রিভেঞ্জ’। কিন্তু হঠাৎ করেই পরিচালক ঘোষণা দেন ঈদে ‘জংলি’ মুক্তি পাচ্ছে না। এ কারণে বুবলী ভক্তরা কিছুটা হতাশ হলেও ‘রিভেঞ্জ’ নিয়ে নতুন আশায় বুক বেঁধেছেন তারা। এই ছবিতে বুবলীর বিপরীতে রয়েছেন জিয়াউল রোশান।

যদিও প্রতি ঈদের মতো এবার ঈদ সিনেমায় নানাভাবেই আলোচিত শাকিব খান অভিনীত ও রায়হান রাফি পরিচালিত সিনেমা ‘তুফান’। সিনেমাটি ঘিরে রেন্টাল জটিলতায় কপালে ভাঁজ পড়েছে প্রদর্শকদের। এর ফলে ‘রিভেঞ্জ’-এ চোখ পড়েছে প্রদর্শক ও বুকিং এজেন্টদের।

নামপ্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন বুকিং এজেন্ট বলেন, ইতোমেধ্য ‘তুফান’ নিয়ে যেভাবে রেন্টাল জটিলতা চলছে তাতে অনেকেই শেষ পর্যন্ত হল বুক করবে না। কারণ এখন পর্যন্ত স্লিপ কাটা হয়নি। এ অবস্থায় আমাদের দ্বিতীয় অপশন ‘রিভেঞ্জ’। আমরা তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করছি।’ উচ্চ রেন্টালের বাজারে ‘রিভেঞ্জ’ কঠিন প্রতিশোধ হয়ে দেখা দিতে পারে বলেও তারা মন্তব্য করেন।

তাদের এমন মন্তব্যে ফুরফুরে মেজাজে ‘রিভেঞ্জ’ সিনেমার পরিচালক ও প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল। তিনি বলেন, ‘আমি আগেও নিয়মে ছিলাম, এখনো নিয়মের মধ্যেই আছি। নিয়মের মধ্যেই সিনেমা সারা দেশে মুক্তি দিতে চাই। ইতোমধ্যে হল বুকিং এজেন্টরা যোগাযোগ শুরু করেছে। অন্য কারও মতন উচ্চ রেন্টাল হাঁকিয়ে হল ব্যবসার ১২টা বাজাতে চাই না। আমি কেবল চাই ঈদে ‘রিভেঞ্জ’ সবাই দেখুক।’

সিনেমাটি নিয়ে চিত্রনায়িকা বুবলী বলেন, ‘সিনেমাটির গল্প শুনেই তাতে কাজ করতে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। খুব সুন্দরভাবে সিনেমাটি চিত্রায়িত হয়েছে। ‘রিভেঞ্জ’ ঈদে আসবে বলে ভালো লাগছে। কারণ প্রতিটি শিল্পীই চায় তার সিনেমা বড় উৎসবে মুক্তি পাক। কারণ দর্শকদের মধ্যে সে সময় সিনেমা নিয়ে উন্মাদনা থাকে। আমি মনে করি ‘রিভেঞ্জ’ও উন্মাদনায় ভাসাবে দর্শকদের।

জিয়াউল রোশান বলেন, ‘ঈদে ‘তুফান’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমার মুক্তির ঘোষণা এসেছে। সেসবের গল্প আমি জানি না। তবে ‘রিভেঞ্জ’র গল্প অনেক শক্তিশালী। আমি মনে করি পরিচালক ইকবাল ভাইয়ের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সেরা নির্মাণ এটি।’

অ্যাকশনধর্মী ‘রিভেঞ্জ’ সিনেমায় রোশান হাজির হচ্ছেন প্রধান চরিত্রে। সিনেমাটিতে বুবলী অভিনয় করেছেন পুলিশ কর্মকর্তার ভূমিকায়। সুনান মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত এই সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, দীপা খন্দকার, সীমান্ত প্রমুখ।


ঈদে পিককের তারকাবহুল চার নাটক

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

মানসম্মত নির্মাণে ব্যতিক্রমী গল্পের নাটকের নিশ্চয়তা দিতে পথচলা শুরু করে পিকক এন্টারটেইনমেন্ট। এরই মধ্যে বেশ কিছু নাটক দিয়ে সাড়া পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। দেশের সেরা নির্মাতারা সময়ের আলোচিত তারকাদের নিয়ে পিককের জন্য উপহার দিয়েছেন উপভোগ্য নাটকগুলো। যার মধ্যে মনে রাখবো, বিসর্জন, জোড়া শালিক, মন জড়াবো তোরই ঘরে, কলকাতার জামাই ইত্যাদি উল্লেখ্য।

এবার আসছে কোরবানি ঈদে তারকাবহুল চার নাটক নিয়ে হাজির হতে যাচ্ছে পিকক। সেগুলো হলো ‘সামার ব্রেক’, ‘বন্ধুত্ব নাকি প্রেম’, ‘মন বোঝে না’ এবং ‘এ হৃদয়’।

তার মধ্যে ‘সামার ব্রেক’ নাটকটি সাজ্জাদ হোসাইন বাপ্পি পরিচালনা করেছেন। এ নাটকটিতে জুটি হয়েছেন তৌসিফ মাহবুব ও কেয়া পায়েল। এ জুটির অনেক নাটকই দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় ‘সামার ব্রেক’ নাটকও দর্শকের মন ভরাবে বলে প্রত্যাশা পরিচালকের।

পিকক এন্টারটেইনমেন্টের প্রযোজনায় ঈদে আরেকটি নাটক নিয়ে আসবেন মাশরিকুল আলম। তার নাটকের নাম ‘বন্ধুত্ব নাকি প্রেম’। এতে জুটি বেঁধেছেন ফারহান আহমেদ জোভান ও কেয়া পায়েল।

এ নাটক নিয়ে জোভান বলেন, “আসছে কোরবানি ঈদে আমার বেশকিছু নাটক প্রচারে আসবে। সেগুলো গল্প ও নির্মাণে দর্শকদের মুগ্ধ করবে। তার ভিড়ে ‘বন্ধুত্ব নাকি প্রেম’ নাটকটি আলাদা করে সবার মনে দাগ কাটবে বলে মনে করি আমি।”

পিককের জন্য ‘মন বোঝে না’ নাটকটি বানিয়েছেন হাসিব হোসাইন রাখি। এতে তৌসিফ মাহবুবের বিপরীতে দেখা যাবে তটিনীকে। চার নম্বর নাটকটি নির্মাণ করেছেন আলোচিত নির্মাতা মাবরুর রশিদ বান্নাহ। ‘এ হৃদয়’ নামের নাটকে জুটি হয়েছেন ফারহান আহমেদ জোভান ও কেয়া পায়েল।

চারটি নাটকই ঈদের দিন থেকে প্রচার হবে পিকক এন্টারটেইনমেন্টে।


ঢাকাই সিনেমায় কৌশানীর অভিষেক

আপডেটেড ১১ জুন, ২০২৪ ০০:০৪
বিনোদন প্রতিবেদক

আসছে ঈদে বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে কলকাতার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী কৌশানী মুখার্জির সিনেমা ‘ডার্ক ওয়ার্ল্ড’। আর এর মাধ্যমে প্রথমবার ঢাকাই সিনেমায় অভিষেক মিষ্টি এই নায়িকার। যদিও এর ‘প্রিয়া রে’ নামে প্রথম একটি বাংলাদেশি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। তবে আজও আলোর মুখ দেখেনি শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ছবিটি। আদৌ আর মুক্তি পাবে কি না তা নিয়েও তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। এ ছাড়া সংগীতশিল্পী ইমরানের গাওয়া একটি গানেও মডেল হয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের এই তারকা।

গত ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশে এসে সিনেমাটির কাজ শেষ করে গেছেন কৌশানী। মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের পরিচালনায় এ সিনেমায় কৌশানীর সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন প্রযোজক ও অভিনেতা মুন্না খান। এতে আরও অভিনয় করেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী দীপা খন্দাকার, মিশা সওদাগর, বড় দা মিঠু, ডন, শিমুল খান, সীমান্ত প্রমুখ। এই সিনেমায় পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রে দেখা যাবে কৌশানীকে।

‘ডার্ক ওয়ার্ল্ড’ ছবির একটি পোস্টার সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশের মাধ্যমে ঈদে মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ও নির্মাতা মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। নির্মাতা তার সোশ্যাল হ্যান্ডেলে ছবির পোস্টার শেয়ার করে লিখেছেন, ‘অগ্রিম ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা নিন। আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি আমাদের ডার্ক ওয়ার্ল্ড মুভিটি ঈদুল আজহায় মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ঈদের প্রতিটি মুভি আমাদের মুভি। প্রতিটি মুভি সফল হোক এই কামনা করি। শুধু অনুরোধ থাকবে সব মুভি দেখা শেষ হলে একবার হলেও আমাদের মুভিটি দেখবেন। আপনাদের ভালো-খারাপ অনুভূতি আমাদের জানাবেন। আপনাদের ভালোবাসা প্রত্যাশা করছি।’

মানিক বলেন, ‘আমরা আগে থেকেই ঈদে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছিলাম; কিন্তু আগে ঘোষণা দিইনি। কারণ ছবির সব কাজ শেষ না করে ঘোষণা দেওয়া উচিত নয়। তাই সব প্রস্তুতি শেষ করেই ছবিটি মুক্তির ঘোষণা দিয়েছি। আর আমি তো অ্যাকশন ছবি এর আগে নির্মাণ করিনি তাই কিছুটা সংশয়েও ছিলাম, কারণ সেন্সর বোর্ড কীভাবে ছবি গ্রহণ করেন। অবশেষে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড থেকে আমাদের ছবিটি আনকাট ছাড়পত্র পেয়েছে। এতে আমার আত্মবিশ্বাস আরও বেড়েছে। দর্শকদের বলতে চাই, এবার ঈদেই আমরা আসছি।’

জানা গেছে, ছবির প্রচারণার কাজে আগামী সপ্তাহে ঢাকায় আসতে পারেন কৌশানী মুখার্জি।


ব্যতিক্রম চরিত্রে তানজিন তিশা

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

গত বছরের শুরু থেকেই অভিনয় কমিয়ে দিয়েছেন ছোট পর্দার লাস্যময়ী মডেল অভিনেত্রী তানজিন তিশা। তার ভাষ্য, গল্প ও চরিত্র পছন্দ হলেই কেবল কাজ করব। না হলে কাজই করব না। নিজের দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুয়ায়ী বেছে বেছে পছন্দসই গল্পের নাটক এবং ওয়েব সিরিজে কাজ করে যাচ্ছেন ভিন্ন ভিন্ন লুকে। যদিও বিচিত্র চরিত্রে অভিনয় করে বহু আগেই তিনি এ জগতে পায়ের তলার মাটি শক্ত করে নিয়েছেন। শরবত বিক্রেতা, রিকশাচালক, দিনমজুর এরকম অনেক চরিত্রে দেখা গেছে তাকে। বিশেষ করে নারীকেন্দ্রিক গল্পে নিজেকে দারুণভাবে উপস্থাপন করেন তিশা।

সেই ধারাবাহিকতায় এবার তিশা হাজির হচ্ছেন একেবারেই ভিন্ন একটি চরিত্রে। নরসুন্দর বা নাপিতের ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। চুল-দাড়ি কাটার এই পেশায় সাধারণত নারীদের দেখা যায় না। পুরুষরাই করেন। নাটকের নাম ‘নর-সুন্দরী’। এটি একটি নারীকেন্দ্রিক গল্পের নাটক। আহমেদ তাওকীরের গল্প ও চিত্রনাট্যে নাটকটি নির্মাণ করছেন তরুণ ও জনপ্রিয় নাট্য নির্মাতা রাফাত মজুমদার রিংকু। এরই মধ্যে ঢাকার অদূরে কালীগঞ্জে নাটকটির শুটিং সম্পন্ন হয়েছে।

পরিচালক রাফাত মজুমদার রিংকু বলেন, ‘আমরা খুব যত্ন নিয়ে কাজটা করছি। গল্প ও চরিত্র দুটিই বেশ আলাদা। এমন গল্প নিয়ে কাজ করা আনন্দের।’ নাট্যকার আহমেদ তাওকীর বলেন, রাজনৈতিক গণ্ডগোলে এক নরসুন্দর মৃত্যুবরণ করে। বাবার পেশাকেই বেছে নেয় তার তরুণী মেয়ে; কিন্তু সে বেছে নিলেও গ্রামের মানুষ ভালো চোখে দেখে না। তাকে গ্রামছাড়া করা হয়। শহরে এসেও পড়ে নানা বিপত্তিতে। এসব নিয়েই গল্প।’

তানজিন তিশা ছাড়াও নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন শরীফ সিরাজ, মোমেনা চৌধুরী, নরেশ ভূইয়াসহ অনেকে। পরিচালক রাফাত মজুমদার রিংকু জানান, আসছে ঈদে ‘নর-সুন্দরী’ নাটকটি বেরসকারি টিভি চ্যানেল বাংলাভিশনের প্রচারিত হবে।

এদিকে আজ সোমবার থেকে দীপ্ত প্লেতে প্রচার শুরু হচ্ছে তিশা অভিনীত ‘পয়জন’ এই ওয়েবফিল্মটি। সঞ্জয় সমাদ্দার পরিচালিত এটি এই ওয়েবফিল্মও ভিন্ন একটি চরিত্রে দেখা মেলবে তার। রূপা মির্জা নামের একজন চলচ্চিত্র নায়িকার ব্যক্তিজীবনের পাশাপাশি শোবিজের রঙিন জীবনের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘পয়জন’।


প্রেক্ষাগৃহ সংকটের আশঙ্কায় শাকিবের তুফান

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
বিনোদন প্রতিবেদক

ধাপে ধাপে পোস্টার, টিজার ও গান প্রকাশের মাধ্যমে এরই মধ্যে আলোচনার শীর্ষে চলে এসেছে শাকিব খান অভিনীত তুফান সিনেমাটি। রায়হান রাফী পরিচালিত এই ছবিটি এরই মধ্যে বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্রও পেয়েছে। ছাড়পত্র পেয়ে পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আসন্ন কোরবানি ঈদেই মুক্তির সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে তুফান টিম। তবে আলোচনার পাশাপাশি অনেক সমালোচনারও জন্ম দিয়েছে সিনেমাটি। এত কিছুর পরও সিনেমাটি নিয়ে শুরু থেকেই হল মালিকদের আগ্রহ ছিল। কিন্তু সেন্সর ছাড়পত্র পাওয়ার পরও বিপাকে সিনেমাটি। কারণ অতিরিক্ত রেন্টাল দাবি করায় সিনেমা হল মালিক ও বুকিং এজেন্টরা বেঁকে বসেছেন।

এবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় বিষয়টি আলোচনায় এসেছে। শনিবার সারা দেশের ৬০টির বেশি হল মালিকদের নিয়ে ঢাকায় একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উঠে আসে সিনেমা হলের সংস্কার, নতুন হল নির্মাণে বাংলাদেশ ব্যাংকের ১ হাজার কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন তহবিল ঋণ দেওয়ার অগ্রগতি না থাকার অভিযোগ ও হিন্দি সিনেমা চালাতে দেওয়া, সিনেমা মুক্তি দিতে যে অগ্রিম রেন্টাল দিতে হয়, সেসব নিয়ে অভিযোগ তোলেন হল মালিকরা। এ সময় গাজীপুরের ঝংকার সিনেমা হলের মালিক শরফুদ্দিন এলাহি সম্রাট বলেন, ‘তুফান’ নিয়ে আতঙ্কে আছি, রেন্টাল নিয়ে সিনেমা চালানো সম্ভব নয়।

জানা গেছে, এখন পর্যন্ত ‘তুফান’ সিনেমার একটি স্লিপও কাটা হয়নি। যার কারণ তুফানের অতিরিক্ত রেন্টাল দাবি। এক বুকিং এজেন্ট গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমার কাছে ঈদে তুফান ১৩টি হলে চালানোর জন্য আড়াই কোটি টাকা চাওয়া হয়। সিনেমার বাজার তো এত বড় নয়। তারা কি গ্যারান্টি দিতে পারবে এই সিনেমা ব্যবসা করবে? আমরা লস দিয়ে অতিরিক্ত রেন্টাল দিয়ে সিনেমা চালাব না। লাগলে ঈদে পুরোনো সিনেমা চালাব।

তুফানের ম্যানেজার শহিদুল্লাহও (মাস্টার) স্বীকার করেছেন রেন্টালের কারণে এখন পর্যন্ত সিনেমাটির কোনো স্লিপ কাটা হয়নি। এদিকে দেশীয় প্রযোজকদের অভিযোগ, সিনেমা নির্মাণের নামে অর্থ পাচার করেছে ‘তুফানে’র সংশ্লিষ্টরা। সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে এফডিসির ১৯ সংগঠনের নেতারা প্রকাশ্যে সিনেমাটির বিপক্ষে বক্তব্য দেন। চলচ্চিত্রপাড়ায় এ নিয়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

প্রযোজকদের পক্ষ থেকে টাকা পাচারের অভিযোগসহ ‘তুফান’কেন্দ্রিক আরও অনিয়ম নিয়ে সিনেমার প্রযোজক আলফা আইয়ের কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিলও কথা বলেছেন। যদিও সেন্সর ছাড়পত্র পাওয়ার আগ পর্যন্ত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তি এবং সিনেমাটির সংশ্লিষ্টদের বয়ানে সব জায়গাতে বলা হয়েছিল, আলফা আই স্টুডিওস লিমিটেড, চরকি এবং ভারতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসভিএফ এক হয়ে বড় বাজেটের সিনেমাটি নির্মাণে নেমেছে। কিন্তু এখন দাবি করা হচ্ছে, তুফান যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নয়, এটি বাংলাদেশের সিনেমা।

বিষয়:

পোস্টারেই চমক দীপিকার

আপডেটেড ১০ জুন, ২০২৪ ০০:২৫
বিনোদন ডেস্ক

অমিতাভ বচ্চনের পোস্টার শেয়ার করার এক দিন পর বহুল প্রত্যাশিত ছবি কল্কি ২৮৯৮ এডির নির্মাতারা দীপিকা পাড়ুকোনের একটি নতুন পোস্টার উন্মোচন করেছেন। পদ্মাবত অভিনেতার পাশাপাশি, নাগ অশ্বিনের পরিচালনায় প্রভাস, বচ্চন, কমল হাসান এবং দিশা পাটানিসহ অন্যান্য তারকাও রয়েছেন এই ছবিতে। নতুন পোস্টারে দীপিকাকে একটি কালো পাটের মতো পোশাক, অগোছালো চুল এবং একটি উত্তেজনাপূর্ণ অভিব্যক্তিতে দেখানো হয়েছে। ক্যাপশনে, অভিনেতা তার চরিত্রের প্রতি ইঙ্গিত দিয়ে লিখেছেন, ‘আশা শুরু হয় তাকে দিয়ে।’ নির্মাতারাও ঘোষণা করেছেন যে ছবিটির ট্রেলার ১০ জুন (আজ) মুক্তি পাবে।

দীপিকার স্বামী এবং অভিনেতা রণবীর সিং মন্তব্য বিভাগে তার চেহারার প্রশংসা করেছিলেন। তিনি লিখেছেন, ‘বুম স্টানার।’ দীপিকার প্রশংসায় রণবীরের সঙ্গে ভক্তরাও যোগ দেন। একজন ভক্ত লিখেছেন, ‘পরম মা, আরও একজন ভক্ত লিখেছেন, প্রথমা দীপিকা পাড়ুকোন আসছেন।’

এর আগে তার ভক্তদের দীপিকার চরিত্রের একটি ক্ষণিকের আভাস দেওয়া হয়েছিল যখন নির্মাতারা গত বছর সান দিয়েগো কমিক-কন-এ ছবিটির প্রথম চেহারা উন্মোচন করেছিলেন। আভাসে, দীপিকার চরিত্রটি সেনাবাহিনীতে রিক্রুট হিসাবে আবির্ভূত হয়। একটি সাক্ষাৎকারে, প্রভাস-দীপিকার সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন, তাকে সবচেয়ে বড় সুপারস্টার এবং সবচেয়ে সুন্দরী মহিলা বলে প্রশংসা করেছেন।

তিনি বলেছিলেন, ‘দীপিকা সবচেয়ে বড় সুপারস্টার, সবচেয়ে সুন্দরী মহিলা এবং তিনি ইতোমধ্যে বিশ্বব্যাপী বিখ্যাত। আমি মনে করি সে লুই ভিটন, টিএএম অ্যাডেক্স এবং সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞাপন করছে। সুতরাং, সে যখন সেটে আসে তখন সে কেবল প্রাণবন্ত এবং আমি সব সময় তাকে ভালোবাসতাম। আমি তার সঙ্গে কাজ করতে চেয়েছিলাম, এই প্রথম আমি তার সঙ্গে কাজ করছি।’

চলচ্চিত্র নির্মাতা নাগ অশ্বিনও ছবিতে দীপিকার চরিত্র সম্পর্কে বিশদ ভাগ করেছেন। তিনি বলেছিলেন, ‘আমাদের এখনো দীপিকার চরিত্রটি পুরোপুরি দেখতে হবে এবং তারপরে আমরা সম্ভবত বুঝতে পারব কেন আমরা তাকে কাস্ট করেছি কারণ তার একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র।’ ছবিটি জুন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে।


banner close