আপডেট : ৬ ডিসেম্বর, ২০২২ ১৪:৩৬
ইন্দোনেশিয়ায় বিয়েবহির্ভূত যৌনতা নিষিদ্ধ করে আইন
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ইন্দোনেশিয়ায় বিয়েবহির্ভূত যৌনতা নিষিদ্ধ করে আইন

প্রতীকী ছবি

বিয়েবহির্ভূত যৌনতা নিষিদ্ধ ঘোষণা করে নতুন আইন পাস করেছে ইন্দোনেশিয়ার সরকার। সর্বোচ্চ এক বছর কারাদণ্ডের বিধান রেখে দেশটির পার্লামেন্টে মঙ্গলবার এ আইন পাস করা হয়। খবর বিবিসির।

ইন্দোনেশিয়ানদের পাশাপাশি দেশটিতে অবস্থানকালে বিদেশি নাগরিকরাও এ আইনের আওতায় পড়বেন।

আইন অনুসারে, সঙ্গী বা অভিভাবক কারও বিরুদ্ধে বিয়েবহির্ভূত যৌনতার অভিযোগ তুলতে পারবেন। পরকীয়াও এ আইনের আওতায় অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে।

আইনটি পাসে দেশটিতে প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। এমনকি বিক্ষোভের ঘটনাও ঘটেছে। রাজধানী জাকার্তায় শিক্ষার্থীসহ অনেকেই রাস্তায় নেমে আসেন এবং পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

অধিকারকর্মীরা বলছেন, এই আইন নারী, এলজিবিটি ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের ওপর মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

দেশটির আইনপ্রণেতারা এ আইন পাসে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন। বলছেন, ইন্দোনেশিয়া ডাচ শাসন থেকে স্বাধীন হওয়ার পর থেকে এই প্রথম আইনটি পুরোপুরি সংশোধন করা হলো।

এর আগে ২০১৯ সালেও একবার এ আইনের খসড়া ইন্দোনেশিয়ার পার্লামেন্টে তোলা হয়। ওই বছর এ নিয়ে দেশজুড়ে বিক্ষোভ হয়।

এবার বিরোধী দলগুলো বলছে, আইনটি সমাজকে পিছিয়ে দেয়ার পাশাপাশি বাকস্বাধীনতাও হরণ করবে।

ইন্দোনেশিয়ার কিছু অংশে ইতোমধ্যেই যৌনতা এবং সম্পর্কের বিষয়ে কঠোর ধর্মীয় আইন রয়েছে। দেশটির আচেহ প্রদেশে কঠোর ইসলামী আইনের প্রয়োগ রয়েছে। জুয়া খেলা, মদ্যপান এবং ব্যভিচারের জন্য কঠোর শাস্তি দেয়া হয়। এর মধ্যে আছে বেত্রাঘাতের মতো শাস্তিও।