বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪

ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ। ছবি: সংগৃহীত
দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত
দৈনিক বাংলা ডেস্ক
প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ২১:৪৯

অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলিদের ক্রমবর্ধমান সহিংসতা এবং গাজায় ইসরায়েলি আগ্রাসনের কারণে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ। পশ্চিম তীরের কিছু অংশের শাসনকারী সরকারই ফিলিস্তিনের সরকার হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। ফিলিস্তিনের অপর অংশ গাজা শাসন করে স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কাছে তার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। খবর আল-জাজিরার।

গতকাল সোমবার প্রেসিডেন্টের কাছে জমা দেওয়া পদত্যাগপত্রে মোহাম্মদ শতায়েহ বলেন, ‘পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমে অভূতপূর্ব বৃদ্ধি এবং গাজা উপত্যকায় যুদ্ধ, গণহত্যা এবং অনাহারের পরিস্থিতিতে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি দেখতে পাচ্ছি যে পরবর্তী পর্যায় এবং এর চ্যালেঞ্জগুলোর জন্য নতুন সরকারি ও রাজনৈতিক ব্যবস্থার প্রয়োজন, যা গাজার নতুন বাস্তবতাকে বিবেচনা করে এবং ফিলিস্তিনি ঐক্যের ওপর ভিত্তি করে সবার ঐকমত্যের প্রয়োজন।’

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষকে নাড়াতে এবং যুদ্ধের পর একটি ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রকে শাসন করতে পারে এমন একটি রাজনৈতিক কাঠামোয় কাজ শুরু করার জন্য মাহমুদ আব্বাসের ওপর মার্কিন চাপ বাড়ার পর এমন মন্তব্য করলেন শতায়েহ।

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজায় দখলদার ইসরায়েলের নির্বিচারে হামলায় নিহতের সংখ্যা ২৯ হাজার ৬৯২ জনে পৌঁছেছে। রোববার গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানিয়েছে। এদিকে কাতারে আলোচনা চালিয়ে যেতে চায় ইসরায়েল। রোববার গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের আক্রমণ অব্যাহত থাকায় গত ২৪ ঘণ্টায় অন্তত ৮৬ ফিলিস্তিনি নিহত এবং ১৩১ জন আহত হয়েছেন।

মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ইসরায়েলি দখলদারিত্ব গাজা উপত্যকায় পরিবারের বিরুদ্ধে সাতটি গণহত্যা করেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৬ জন শহীদ ও ১৩১ জন আহত হয়েছে।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘অনেক মানুষ এখনও ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় আটকা পড়ে আছে, কারণ উদ্ধারকারীরা তাদের কাছে পৌঁছাতে পারছে না।’

এদিকে, জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, রাফাহতে একটি পূর্ণ মাত্রায় ইসরায়েলি সামরিক অভিযান গাজায় মানবিক সহায়তা কর্মসূচির চূড়ান্ত মৃত্যু ঘটাবে। যেখানে বর্তমান ‘সম্পূর্ণভাবে অপর্যাপ্ত’ সহায়তাও পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাবে বলেও তিনি সতর্ক করেন।

জেনেভায় জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের সামনে বক্তৃতাকালে গুতেরেস বলেন, গাজার দক্ষিণতম শহরে সর্বাত্মক আক্রমণ ‘সেখানে আশ্রয় নেওয়া এক মিলিয়নেরও বেশি ফিলিস্তিনি বেসামরিক নাগরিকের জন্য কেবল ভয়ঙ্করই হবে না; এটি আমাদের সাহায্য কর্মসূচির কফিনেও চূড়ান্ত পেরেক ঠুকে দেবে।’


তাইওয়ানে দফায় দফায় ভূমিকম্প অনুভূত

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ২৩ এপ্রিল, ২০২৪ ১৪:২৬
বাসস

তাইওয়ানে গতকাল সোমবার রাত থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত দফায় দফায় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি তীব্রতর ভূমিকম্পের উৎপত্তি পূর্বাঞ্চলীয় শহর হুয়ালিয়েনে। রিখটার স্কেলে যার তীব্রতা ছিল ৬.৩।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া প্রশাসন জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সোমবার বিকেল ৫টা ৮ মিনিটে প্রথম যে ভূমিকম্প আঘাত হানে রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৫.৫। রাজধানী তাইপেতেও এ কম্পন অনুভূত হয়। এরপর দফায় দফায় কম্পন অনুভূত হতে থাকে। বিশেষ করে মঙ্গলবার আঘাত হানা দুটি ভূমিকম্প ছিল তীব্র। রিখটার স্কেলে প্রথমটির তীব্রতা ছিল ৬.০ এবং দ্বিতীয়টির ৬.৩।

এর আগে গত ৩ এপ্রিল শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে ওঠে তাইওয়ানের পূর্ব উপকূল। এতে অন্তত ১৭ জন মারা যান। এতে অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষতি হয়ে ছিল। তীব্র সে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৪। ভূমিকম্পটির কেন্দ্রস্থল ছিল হুয়ালিয়েন শহরের ১৮ কিলোমিটার দক্ষিণে।

তাইওয়ানে গত ২৫ বছরের মধ্যে ওটি ছিল সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্প। এর আগে ১৯৯৯ সালের সেপ্টেম্বরে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প তাইওয়ানে আঘাত আনে। তাতে প্রায় ২ হাজার ৪০০ মানুষ মারা যান।


মালয়েশিয়ায় দুই উড়োজাহাজের সংঘর্ষ, নিহত ১০

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ২৩ এপ্রিল, ২০২৪ ১৩:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় একটি সামরিক মহড়ার সময় আকাশে নৌবাহিনীর দুটি উড়োজাহাজের সংঘর্ষে ১০ জন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় মঙ্গলভার সাড়ে ৯টার দিকে মালয়েশিয়ার লুমু শহরে নৌবাহিনীর ঘাঁটিতে এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

প্রতিবেদন বলছে, রয়্যাল মালয়েশিয়ান নৌবাহিনীর কুচকাওয়াজের জন্য একটি সামরিক মহড়া চলাকালীন মাঝ আকাশে নৌবাহিনীর ওই দুই উড়োজাহাজের সংঘর্ষ হয়। পরে বিধ্বস্ত হয়ে মাটিতে পড়ে যায় বাহন দুটি। কেউই বেঁচে নেই।

রয়্যাল মালয়েশিয়ান নৌবাহিনী জানিয়েছে, ঘটনাস্থলেই ১০ জনকে মৃত বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। লুমুত সামরিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে মরদেহ শনাক্তের জন্য। ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে একটি কমিটি গঠন করা হবে।

যে দুটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে এর মধ্যে একটি হলো এইচওএম এম৫০৩-৩। এতে সাতজন আরোহী ছিলেন। চলমান ট্র্যাকে বিধ্বস্ত হয়েছে এই উড়োজাহাজটি। অন্যটি ফেনেক এম৫০২-৬। এতে ছিলেন তিনজন আরোহী। এটি বিধ্বস্ত হয় কাছাকাছি একটি সুইমিং পুলে।

রাজ্যের ফায়ার অ্যান্ড রেসকিউ বিভাগ জানিয়েছে, দুর্ঘটনার বিষয়য়ে সতর্ক করা হয়েছিল।

এর আগে গত মার্চ মাসে একটি মালয়েশিয়ান কোস্ট গার্ড উড়োজাহাজ প্রশিক্ষণ ফ্লাইটের সময় মালয়েশিয়ার আংসা দ্বীপের কাছে সাগরে বিধ্বস্ত হয়। ওই দুর্ঘটনার পর পাইলট, কো-পাইলট এবং এতে থাকা দুই যাত্রীকে জেলেরা উদ্ধার করেন।


ইসরায়েলের সামরিক গোয়েন্দাপ্রধান পদত্যাগ করেছেন

মেজর জেনারেল আহারন হালিভা (বাঁয়ে)। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ২২ এপ্রিল, ২০২৪ ১৭:৪০
বাসস

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর গোয়েন্দা বিভাগের প্রধান মেজর জেনারেল আহারন হালিভা পদত্যাগ করেছেন। আজ সোমবার ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ মাধ্যম এএফপি জানিয়েছে, গত বছরের ৭ অক্টোবর হামাসের নজিরবিহীন হামলা ঠেকানোর ব্যর্থতার দায়ভার মেনে নিয়ে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়, সামরিক গোয়েন্দা প্রধান হিসেবে গত ৭ অক্টোবরের ঘটনার ব্যর্থতার দায় নিয়ে হালিভা ইসরায়েলের সেনাপ্রধানের সঙ্গে আলাপ করে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। সিদ্ধান্ত হয়েছে, নিয়ম অনুসারে ও পেশাগত প্রক্রিয়া মেনে উত্তরসূরি নিয়োগের পর হালিভা তার দায়িত্ব ছেড়ে দেবেন, তিনি অবসরে যাবেন।

গত বছর হালিভা (৫৬) জানান, তিনি অক্টোবর ৭ এই হামাসের নজিরবিহীন হামলা সম্পর্কে আগে থেকে তথ্য না পাওয়া ও গোয়েন্দা বিভাগের অন্যান্য ব্যর্থতার দায়ভার স্বীকার করে নিয়েছেন।

টাইমস অব ইসরায়েল জানিয়েছে, বর্তমানে সেনাবাহিনী হালিভার বিরুদ্ধে হামাসের হামলা ঠেকাতে ব্যর্থতার বিষয়ে তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করছে। জুনের শুরুতে তদন্তের ফল আইডিএফ প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল হেরজি হালেভির কাছে জমা দেওয়া হবে।

বিষয়:

ইরানে ইসরায়েলি হামলা, স্যাটেলাইটে ক্ষয়ক্ষতির ছবি প্রকাশ

ইরানে ইস্পাহান বিমানঘাঁটিতে ইসরায়েলি হামলায় ক্ষয়ক্ষতির স্যাটেলাইট ইমেজ। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ইরানের মধ্যাঞ্চলীয় ইস্পাহান শহরে শুক্রবার ভোরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইসরায়েল। ইরানের একটি বিমানঘাঁটি লক্ষ্য করে এই হামলা চালানো হয়। ইসরায়েলের চালানো হামলায় বিমানঘাঁটিতে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতির কিছু স্যাটেলাইট ইমেজ প্রকাশিত হয়েছে। আজ রোববার সকাল পর্যন্ত সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় ধারণ করা হয় এসব দৃশ্য।

প্রকাশিত স্যাটেলাইট ইমেজের দুটি দৃশ্য বিশ্লেষণ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। এতে দেখা গেছে, হামলায় ইস্পাহানের ওই বিমানঘাঁটির একটি প্রতিরক্ষাব্যবস্থা আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

চলতি মাসের শুরুতে সিরিয়ার দামেস্কে অবস্থিত ইরানি কনস্যুলেটে হামলা চালায় ইসরায়েল। হামলায় ইরানের কয়েকজন শীর্ষ সেনা কর্মকর্তা নিহত হন। ওই হামলার জবাবে গত ১৩ এপ্রিল রাতে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ৩০০টিরও বেশি ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ড কোর (আইআরজিসি)। পাল্টা জবাবে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) ভোরে ইরানের ইস্পাহানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইসরায়েল। তবে ইরান সরকার তা অস্বীকার করেছে। ইরান বলেছে, বাহির থেকে কোনো হামলা হয়নি। ইসরায়েলের পক্ষ থেকেও আনুষ্ঠানিকভাবে এ বিষয়ে নিশ্চিত করা হয়নি।

মার্কিন এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এবিসি নিউজকে বলেন, শুক্রবার ভোরে ইরান সীমান্তের বাইরে থেকে ইসরায়েলি জঙ্গি বিমান তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। নাম প্রকাশ না করে ইরানের কর্মকর্তাদের বরাতে নিউইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, বিমানঘাঁটিতে ওই হামলা ছাড়াও ইস্পাহানের প্রায় ৫০০ মাইল উত্তরে তাবরিজ এলাকা লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। তবে এ হামলা নস্যাৎ করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে ইস্পাহানে বিকট শব্দে একাধিক বিস্ফোরণ ঘটে। এ সময় আকাশে দেখা দেয় আলোর ঝলকানি। এ ঘটনার পর রাজধানী তেহরানসহ ইরানের পশ্চিমাঞ্চলের আকাশসীমা সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। কয়েক ঘণ্টা পর আবার বিমান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এদিকে তেহরান ও তেল আবিব চলমান উত্তেজনার মধ্যেই ইসরায়েলকে হেয় করে মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেন আমির আবদুল্লাহিয়ান। এনবিসি নিউজের এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, শুক্রবারের হামলা ইরানের কাছে কোনো ঘটনাই নয়। ইসরায়েল যে অস্ত্র ব্যবহার করে তা ইরানের শিশুদের কাছে খেলনার মতো।

মূলত ওই হামলায় যে ধরনের ড্রোন ব্যবহার করা হয়েছে তা নিয়েই উপহাস করেছেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ইসরায়েলের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক প্রতিশোধ নেওয়ার কোনো পরিকল্পনা তেহরানের নেই। তবে তাদের পারমাণবিক স্থাপনা ক্ষতির মুখে পড়লে তার চরম মূল্য দিতে হবে তেল আবিবকে।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও জানান, গত সপ্তাহে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে চালানো হামলা ছিল কেবল একটা সতর্কতা মাত্র। ইরান চাইলে তাদের আল হাইফা, তেল আবিবের মতো বড় শহরগুলোর পাশাপাশি বাণিজ্যিক বন্দরগুলো টার্গেট করতে পারত; কিন্তু বেসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষার কথা ভেবে তেমনটা করেনি ইরান।


মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে টিকটক বন্ধের প্রস্তাব পাস

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা

চীনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্সের জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটক স্থায়ীভাবে বন্ধের প্রস্তাব পাস হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। খবর বার্তা সংস্থা এপির।

গত শনিবার মার্কিন পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদে ভোটের মাধ্যমে এই প্রস্তাব পাস হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, যদি চীনভিত্তিক এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটির শেয়ার এক বছরের মধ্যে বিক্রি না করে, তাহলে এই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ফলে এখনই এই অ্যাপটি সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে না।

মার্কিন পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে বিলটির পক্ষে ভোট পড়েছে ৩৬০টি। এর বিরোধিতা করেছেন ৫৪ জন। এই বিলটি আগামী সপ্তাহে সিনেটে উত্থাপন করা হতে পারে। সিনেটে পাস হলে যুক্তরাষ্ট্রে একটি কোম্পানি বন্ধ করার মতো নজিরবিহীন ঘটনা ঘটবে।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এরইমধ্যে জানিয়েছেন, সিনেটে পাস হওয়ার পরই তিনি এই বিলে স্বাক্ষর করবেন। এ মাসের শুরুতে চীনা প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের সঙ্গে টেলিফোনে কথোপকথনে টিকটক নিয়ে উদ্বেগের কথা জানিয়েছিলেন বাইডেন।

এদিন, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইউক্রেন ও ইসরায়েলকে সহায়তা দেওয়ার প্রস্তাব অগ্রাধিকারে আনেন। তার মধ্যে রিপাবলিকানরা ব্যাপক বিদেশি সহায়তা প্যাকেজ হিসেবে নিষেধাজ্ঞায় টিকটক প্রসঙ্গ আনেন। এর আগে এই নিষেধাজ্ঞার একটি প্রক্রিয়া সিনেটে আটকে যায়। তখন টিকটকের শেয়ার বিক্রি করার জন্য ৬ মাসের একটি সময়সীমা বেঁধে দিয়ে প্রতিনিধি পরিষদে মার্চে প্রস্তাব পাস হয়। তাতে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান উভয়পক্ষই সমর্থন দেয়। তাতে চীনভিত্তিক টিকটকের মূল কোম্পানি বাইটড্যান্স লিমিটেড নিয়ে ব্যাপক জাতীয় নিরাপত্তা উদ্বেগ তুলে ধরা হয়।


ইরানের ইস্পাহান কেন হামলার নিশানা

ইরানের ইস্পাহান শহরের একটি পারমাণবিক স্থাপনা। ছবি: এপি
আপডেটেড ২১ এপ্রিল, ২০২৪ ১৪:১৬
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ইরান-ইসরায়েল সংঘাত-পাল্টা সংঘাতের মাঝেই গত শুক্রবার ভোরে ইরানের ইস্পাহান শহরে ড্রোন হামলা ও বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে ইরান সরকার। তাছাড়া আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা নিশ্চিত করেছে ইরানের পারমাণবিক স্থাপনায় কোনো ক্ষতি হয়নি।

ইসরায়েলের একটি ক্ষেপণাস্ত্র ইরানে আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা; কিন্তু ইরানের কর্মকর্তারা বলছেন, দেশের বাইরে থেকে নয়, বরং ইরানের ভেতর থেকেই অনুপ্রেবশকারীরা এ হামলা চালিয়েছে।

অন্যদিকে ইরানের সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, দেশটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সক্রিয় করার মাধ্যমে তিনটি ড্রোনকে ধ্বংস করা হয়েছে।

ইস্পাহানকে কেন টার্গেট করা হয়েছে?

রাজধানী তেহরান থেকে ইস্পাহান প্রদেশের দূরত্ব প্রায় সাড়ে ৩০০ কিলোমিটার। মূলত ইস্পাহান শহরটি ইরানের কেন্দ্রে অবস্থিত। এই শহরে পারমাণবিক স্থাপনাসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা আছে। এমনকি দেশটির সবচেয়ে বড় সামরিক বিমান ঘাঁটিও রয়েছে এই শহরে।

একজন পারমাণবিক এবং রাসায়নিক বিশেষজ্ঞ বিবিসিকে বলেছেন, সম্ভাব্য লক্ষ্য হিসেবে ইরানের দ্বিতীয় শহর ইস্পাহানকে বেছে নেয়া ‘অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ’।

ইস্পাহানে হামলা সম্পর্কে সাবেক মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্ক কিমিট বলেন, ইস্পাহান অনেকাংশে ইরানের পরমাণু কর্মসূচির কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। প্রশিক্ষণ ও গবেষণার দিক থেকে এই শহর বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

যুক্তরাজ্য ও ন্যাটোর পারমাণবিক বাহিনীর সাবেক কমান্ডার হামিশ ডি ব্রেটন গর্ডন উল্লেখ করেছেন, শহরটির আশপাশে অনেকগুলো সামরিক ঘাঁটি রয়েছে। সেগুলোরই একটি ছিল লক্ষ্যবস্তু। আর তাই এটিই সম্ভাব্য স্থান যেখানে ইসরায়েল হামলা করবে।

হামিশ ডে ব্রেটন গর্ডন বিবিসিকে বলেন, ইরানের পারমাণবিক স্থাপনার আশপাশে হামলার ঘটনাটি ঘটেছে। এর মধ্য দিয়ে মূলত ইরানে হামলা করার সক্ষমতার বিষয়ে জানান দিতে চেয়েছে ইসরায়েল। ইরানের ছোড়া তিন শতাধিক ক্ষেপণাস্ত্রের প্রায় সব কটিই ইসরায়েল ভূপাতিত করেছিল। কিন্তু ইসরায়েলের ছোড়া কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্রের সব কটি সফলভাবে আঘাত করেছে।

ব্রেটন গর্ডনের মতে, সামরিক সক্ষমতার দিক থেকে ইরানের চেয়ে এগিয়ে আছে ইসরায়েল। সে কারণেই ইরান ইসরায়েলের সঙ্গে সরাসরি যুদ্ধ এড়িয়ে লেবাননভিত্তিক সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ ও ইয়েমেনের হুতিদের মতো গোষ্ঠীগুলোর মাধ্যমে ছায়াযুদ্ধ চালাতে বেশি আগ্রহী।

ইরানের পক্ষ থেকে হামলার এ ঘটনাকে ছোট হিসেবে দেখানোর কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, ইরানের পুরোনো আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা যে ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র ভেদ করেছে, এটা তেহরান স্বীকার করতে চাইছে না।

অন্যদিকে বিবিসির নিরাপত্তা প্রতিবেদক ফ্রাঙ্ক গার্ডেনার ইরানে শুক্রবারের হামলার মাত্রাকে সীমিত এবং সম্ভাব্যভাবে পরিকল্পিত বলে বর্ণনা করেছেন যাতে সংঘাত আর না বাড়ে।

বিষয়:

গরমে সংবাদ পড়তে গিয়ে জ্ঞান হারালেন উপস্থাপিকা (ভিডিও)

গরমে লাইভ নিউজে জ্ঞান হারানো সংবাদ উপস্থাপিকা লোপামুদ্রা সিনহা। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ২০ এপ্রিল, ২০২৪ ২০:২৯
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

তীব্র গরমে লাইভ সংবাদ পড়ার সময় জ্ঞান হারিয়েছেন কলকাতার এক টেলিভিশন সংবাদ উপস্থাপিকা। ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সিরিয়ালের একজন পরিচিত অভিনেত্রী ছিলেন তিনি। তার নাম লোপামুদ্রা সিনহা। দীর্ঘদিন সংবাদ পাঠ করছেন।

গতকাল শুক্রবার নিজের ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট করে অসুস্থতার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘লাইভ নিউজ চলার সময় আমার বিপি (রক্তচাপ) মারাত্মক কমে যায়, আমি অজ্ঞান হয়ে যাই। বেশকিছুক্ষণ ধরেই আমার শরীর খারাপ লাগছিল, মনে হচ্ছিল একটু পানি খেলে ঠিক হয়ে যাবে। আমি কোনোদিন পানি নিয়ে সংবাদ পড়তে বসি না। সেটা ১০ মিনিটের নিউজ হোক বা আধ ঘণ্টার, কখনো প্রয়োজন পড়েনি। ফ্লোর ম্যানেজারকে ইশারা করে পানির বোতল চাই। সেই সময় জেনারেল স্টোরি যাচ্ছিল, কোনো বাইট চলছিল না। ফলে আমি পানি খেতে পারচ্ছিলাম না। অবশেষে একটা বাইট আসায়, পানিটা অবশেষে খাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার মনে হয়েছিল বাকি চারটি নিউজ স্টোরি আমি শেষ করতে পারব। দুটো কোনোরকমে কমপ্লিট করি, তিন নম্বরটা হিট ওয়েভের ওপর স্টোরি ছিল। সেটা পড়ার সময়ই আমার আস্তে আস্তে কথাটা জড়িয়ে যাচ্ছিল। আমি ভেবেছিলাম আমি শেষ করতে পারব, নিজেকে ঠিক রাখার চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু না…অসুস্থতা তো বলে কয়ে আসে না। ওই স্টোরিটার সময় আমি আর দেখতেই পাচ্ছিলাম না। টেলিপ্রমটারটা আবছা হতে হতে শেষে আমি ব্ল্যাকআউট হয়ে যাই..’।

টিভির নিউজ ফ্লোর শীততাপ নিয়ন্ত্রিত হলেও ওইদিন সেটি কাজ করছিল না বলেন জানান লোপামুদ্রা। ফলে ফ্লোর মারাত্মক গরম হয়ে পড়েছিল।

বিষয়:

ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দিল বার্বাডোস

প্রতীকী ছবি
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে বার্বাডোস। আজ শনিবার আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘আনুষ্ঠানিকভাবে বার্বাডোস ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকার করে নিয়েছে। বার্বাডোসের পররাষ্ট্র ও বৈদেশিক বাণিজ্যমন্ত্রী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।’

বার্বাডোসের পররাষ্ট্র ও বৈদেশিক বাণিজ্যমন্ত্রী কেরি সিমন্ডস বলেন, মন্ত্রিসভা মনে করে ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক স্বীকৃতি দেওয়ার সময় এসেছে। বার্বাডোস সর্বদা জাতিসংঘের নীতি মেনে চলে। আমরা মনে করি, চলমান সংঘাত নিরসনে একটি দ্বিরাষ্ট্রীয় সমাধান হওয়া উচিত।’

বার্বাডোসের নীতির আলোকেই ফিলিস্তিনকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে বলে জানান এই মন্ত্রী। তবে সিদ্ধান্তটি ইসরায়েলের সঙ্গে তাদের সম্পর্কে কোন প্রভাব ফেলবে না বলেও জানান তিনি।

বার্বাডোস ফিলিস্তিনকে স্বাধীনরাষ্ট্র হিসেবে দেওয়ায় জাতিসংঘের ১৯৩টি সদস্য রাষ্ট্রের মধ্যে ১৪০টি এখন ফিলিস্তিনকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে বিবেচনা করে।

বিষয়:

ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে আরব আমিরাতের বন্যা পরিস্থিতি

ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্ট বন্যায় তলিয়ে গেছে দুবাইয়ের কিছু এলাকা। ছবি: এএফপি
আপডেটেড ২০ এপ্রিল, ২০২৪ ১২:১৭
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) বন্যা পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। এরই মধ্যে দেশটিতে অভ্যন্তরীণ পর্যায়ে ফ্লাইট চলাচল শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে, সার্বিক পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায়, ভোগান্তি কমেনি আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের যাত্রীদের। এদিকে, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ান।

রেকর্ড ভাঙা ভারী বৃষ্টিপাতে তলিয়ে গেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। মরুভূমির দেশটিতে এক বছরের গড় বৃষ্টিপাত হয় ৯৪ মিলিমিটার। সেখানে দুই দিনে বৃষ্টিপাত হয়েছে ২৫৯ দশমিক ৫ মিলিমিটার। ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বন্যায় তলিয়ে যায় বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম দুবাই বিমানবন্দর। ব্যাহত হয়েছে কয়েক শ ফ্লাইট।

বন্যায় প্লাবিত হয়েছে রাজধানী আবুধাবিতে প্রবেশের সব সড়ক। এখনো পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে অনেকে। পানির কারণে যানবাহন চলাচলে ব্যাঘাত ঘটায়, থমকে আছে বিমানবন্দরের আশপাশের এলাকা। এমন অবস্থায় বিমানবন্দরে পৌঁছাতে পারছে না অনেক যাত্রী। আটকে থাকা যাত্রীদের খাবার দিতে পারছে না বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। পানি জমে থাকায়, অনেক সড়কে এখনো স্বাভাবিক হয়নি যান চলাচল। এতে বিপাকে পড়তে হচ্ছে যাত্রী ও কর্তৃপক্ষের।

তবে বন্যা পরিস্থিতি ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এরইমধ্যে সীমিত পরিসরে শুরু হয়েছে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচল। তবে এখনো বিলম্বিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট। বুকিং নিশ্চিত যাত্রীদের চেক-ইন করার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এমিরাটস এয়ারলাইন দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ৩নং টার্মিনাল ব্যবহার করতে পারবে বলে জানিয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বাসিন্দাদের সহায়তার নির্দেশ দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ান।

দুবাই বিমানবন্দরে চরম বিশৃঙ্খলা

ভারী বৃষ্টি ও তীব্র জলাবদ্ধতার কারণে বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক শহরগুলোর অন্যতম দুবাই বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। শহরটির বহু বাড়ি ও শপিং মল হাঁটু পর্যন্ত তলিয়ে গেছে। দুবাইয়ের মতো শহরে এ ধরনের চিত্র অনেকের কাছে অবিশ্বাস্য মনে হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের আটলান্টা বিমানবন্দরের পরে দুবাই বিমানবন্দরই হচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম বিমানবন্দর। গত বছর এই বিমানবন্দরটি ব্যবহার করেছে আট কোটি যাত্রী। দুবাই বিমানবন্দর তলিয়ে যাওয়ায় বাতিল করতে হয়েছে শতশত ফ্লাইট। বিমানবন্দরের ভেতরে চরম এক বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছে। দুবাই বিমানবন্দর যেভাবে তলিয়ে গেছে সেটি দেখে অনেকেই বিস্মিত হয়েছেন।

বৃষ্টিপাত ও জলাবদ্ধতার কারণে বিমানবন্দরটি প্লাবিত হওয়ায় দুবাইগামী ও দুবাই ছেড়ে আসা ফ্লাইট কার্যত বন্ধ হয়ে যায়। যদিও বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে সীমিত আকারে কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

প্রসূন রায় নামের এক ব্যক্তি জানান, গত তিন দিন ধরে দুবাই বিমানবন্দরে আটকে আছেন তিনি। দুবাই থেকে মঙ্গলবার বিকেল ৪টা ৪৫ মিনিটে ফ্লাইট ছিল প্রসূন রায়ের। মঙ্গলবার দুপুরে বিমানবন্দরে যাওয়ার পর তিনি ১৫ ঘণ্টা অপেক্ষা করেছেন; কিন্তু তিনি বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত ফ্লাইটে উঠতে পারেননি।

তিনি বলেন, আটবার তার ফ্লাইট বাতিল হয়েছে। ফ্লাইট কখন ছেড়ে যাবে তার কোনো নিশ্চয়তা পাওয়া যাচ্ছে না। তাই ফ্লাইটের কোনো নিশ্চয়তা না পেয়ে এন্ট্রি ভিসা নিয়ে শহরের ভেতরে এসেছি। কারণ, এয়ারপোর্টের ভেতরে কোনো হোটেলে কক্ষ খালি নেই।

তার বর্ণনা অনুযায়ী, হাজার হাজার যাত্রী দুবাই এয়ারপোর্টের ভেতরে আটকা পড়ে আছে। অনেকে স্লোগান দিচ্ছে। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ রাত-দিন কাজ করেও কূলকিনারা করতে পারছে না। পুরো ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। গাড়িগুলোতে পানি ঢুকে যাওয়ায় সেগুলোর ব্রেক কাজ করছিল না। ফলে একটি গাড়ি গিয়ে আরেকটি গাড়িকে ধাক্কা মেরে বিকল হয়ে পড়ে আছে। অনেক গাড়ি রাস্তায় পানির মধ্যে ডুবে ছিল।

ট্রানজিট যাত্রী হিসেবে যারা বুধবার দুবাইতে অবতরণ করেছেন তাদের অভিজ্ঞতা ছিল দুর্বিষহ। অবতরণ করার জন্য বিমানগুলো ঘণ্টার পর ঘণ্টা আকাশে চক্কর দিলেও অবতরণের অনুমতি পাচ্ছিল না। বিমানবন্দরের বাইরে শতশত গাড়ি বিকল অবস্থায় পড়ে ছিল।

রেজাউল করিম নামে এক ব্যক্তি বলেন, অনেকবার ফ্লাইট বাতিল হওয়ার পর শেষ পর্যন্ত তিনি ঢাকা থেকে দুবাই পৌঁছেছেন। ঢাকায় তিনি ৩৬ ঘণ্টা অপেক্ষা করার পর দুবাইয়ের উদ্দেশে প্লেন ছেড়ে যায়। দুবাইতে সিনেমার মতো যাত্রা। এক ঘণ্টা পঞ্চাশ মিনিট প্লেনের ভেতরে বসে আছি। কারণ, কোনো গ্রাউন্ড সার্ভিস নেই।

তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে বাংলাদেশি ব্যবসায়ী আকিব ইরফানের। তার স্ত্রী দুবাই থেকে ঢাকা আসার কথা ছিল। এক দিন অপেক্ষা করার পর শেষপর্যন্ত তিনি ঢাকার উদ্দেশে বিমান বাংলাদেশের ফ্লাইটে উঠতে পেরেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ফ্লাইট কনফার্ম না হলে কাউকে বিমানবন্দরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। কারণ, ভেতরে যাত্রীদের এত বেশি চাপ তৈরি হয়েছে যে আর যাত্রী ভেতরে নেওয়া সম্ভব ছিল না।

দুবাই বিমানবন্দরে আটকা পড়েছেন ব্রিটিশ ট্যুরিস্ট অ্যান উইং, তার স্বামী ও তিন সন্তান। তারা লন্ডনের হিথ্রোতে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন। অ্যান উইং বলেন, এটা খুব ভয়াবহ পরিস্থিতি। আমাদের পশুর মতো করে রাখা হয়েছে। এটা খুবই অমানবিক। আমার পরিবারের সদস্যদের কাছে কোনো খাবার নেই।

বিষয়:

ইরানে হামলার পর পুঁজিবাজারে ব্যাপক দরপতন

প্রতীকী ছবি
আপডেটেড ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ ১৭:৪৪
নিজস্ব প্রতিবেদক

ইরানের ইস্পাহানে ইসরায়েলের হামলার পর আজ শুক্রবার পুঁজিবাজারে দরপতন হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, এশিয়ার শেয়ার ও বন্ডে ধস নামে, যেখানে উল্লম্ফন দেখা যায় স্বর্ণ ও অশোধিত জ্বালানি তেলের দামে।

সংস্থাটির একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, ইসরায়েলি হামলার বিষয়টি জানার পর পুঁজিবাজার ও তেলের বাজারে শুরুতে যে প্রভাব পড়ে, সেটি কমে এসেছে। হামলার পরিসর ছোট এবং কোনো ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়নি বলে ইরানের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এমন বাস্তবতা সৃষ্টি হয়।

শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটিভিত্তিক এমএসসিআইয়ের এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় সূচকের পতন হয় দুই দশমিক ছয় শতাংশ, যেটি পরবর্তী সময়ে কমে দাঁড়ায় দুই শতাংশে।

অন্যদিকে মধ্যপ্রাচ্য থেকে সরবরাহে বিঘ্ন ঘটার শঙ্কায় ব্রেন্টের অশোধিত জ্বালানি তেলের দাম শুরুতে চার দশমিক দুই শতাংশ বাড়লেও পরবর্তী সময়ে তা কমে বৃদ্ধির পরিমাণ দাঁড়ায় দুই দশমিক চার শতাংশ। মূল্যবৃদ্ধি কমার পর ব্যারেলপ্রতি ব্রেন্টের অশোধিত তেলের দাম দাঁড়ায় ৮৯ দশমিক ২২ ডলারে।

সিরিয়ার দামেস্কে গত ১ এপ্রিল ইরানি কনস্যুলেটে ইসরায়েলি হামলার জবাবে গত শনিবার রাতে ইসরায়েলে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। এর এক সপ্তাহের মধ্যেই বৃহস্পতিবার রাতে ইরানের মধ্যাঞ্চলীয় নগর ইস্পাহানে ইসরায়েলি হামলার খবর পাওয়া গেছে।

ইরানের বার্তা সংস্থা ফার্স নিউজ জানায়, ইস্পাহানের একটি বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে, তবে কী কারণে এ বিস্ফোরণ হয়েছে তা জানা যায়নি। ‘নির্ভরযোগ্য সূত্রের’ বরাত দিয়ে ইরানের বার্তা সংস্থা তাসনিমের খবরে বলা হয়, ‘ইস্পাহান প্রদেশের পরমাণু ক্ষেত্রগুলো সম্পূর্ণ নিরাপদ।’

দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, ইস্পাহানের কাছে বিস্ফোরণের পর কয়েকটি ড্রোন ভূপাতিত করা হয়। সেখানে কোনো ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়নি।

ইস্পাহান শহরের কাছে ইরানের কয়েকটি পারমাণবিক ক্ষেত্র রয়েছে, যেগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি বলে দাবি করেছে রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম।

বিষয়:

মোদির জয় প্রায় নিশ্চিত: এএফপি

ভারতে একটি নির্বাচন কক্ষে ভোট দিচ্ছেন নাগরিকরা। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ ১৭:৩৯
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ভারতে ছয় সপ্তাহব্যাপী লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে আজ শুক্রবার থেকে। নির্বাচনে হিন্দু জাতীয়তাবাদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জয় প্রায় নিশ্চিত বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম এএফপি।

বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম এ নির্বাচনে মোট ৯৬ কোটি ৮০ লাখ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছে।

গঙ্গা নদীর তীরে অবস্থিত হরিদ্বারে একটি ভোট কেন্দ্রের বাইরে লোকজনকে ধৈর্য নিয়ে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ভোটের বুথ খোলার আগেই সেখানে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে।

স্থানীয় ২৭ বছর বয়সী এক অটোরিক্সা চালক বলেন, ‘আমি এখানে ভোট দিতে এসেছি কারণ দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে আমি খুশি। আমি ব্যক্তিগত কল্যাণে নয়, দেশের সমৃদ্ধির স্বার্থে ভোট দেব।’

৭৩ বছর বয়সী মোদি এক দশক ধরে ক্ষমতায় থাকার পরেও তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন। তার এক দশকের শাসনামলে বিশ্বব্যাপী ভারতের কূটনৈতিক প্রভাব বৃদ্ধি পেয়েছে এবং দেশটি অর্থনৈতিকভাবে আরো শক্তিশালী হয়েছে।

নির্বাচন শুরু হওয়ার পরপরই তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে (সাবেক টুইটার) দেওয়া এক বার্তায় লিখেছেন, ‘আমি দেশের সকল ভোটারকে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি ভোটই গুরুত্বপূর্ণ।’

২০১৪ এবং ২০১৯ সালে দুটি ভূমিধস বিজয়ে মোদি ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতৃত্ব দেন।

প্রকাশিত মতামত জরিপ ভারতে বিরল হলেও গত বছর পিউ পরিচালিত সমীক্ষায় দেশটির প্রায় ৮০ শতাংশ জনগণ মোদির পক্ষে তাদের মতামত ব্যক্ত করেন। খবরে বলা হয় ১৯ এপ্রিল থেকে ১ জুনের মধ্যে সাতটি ধাপে ভারতে ভোট গ্রহণ করা হবে। দেশজুড়ে ১০ লাখেরও বেশি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। আগামী ৪ জুন একযোগে ভোট গণনা শুরু করা হবে।

বিষয়:

ক্ষেপণাস্ত্র নয়, ড্রোন হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল: ইরান

ইরানে ইসরায়েলের হামলার একটি দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ ১২:২১
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ইসরায়েল ইরানে ক্ষেপণাস্ত্র নয় ড্রোন হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করছে ইরানের একটি সরকারি গণমাধ্যম। আজ শুক্রবার সকালে গণমাধ্যমটি বলছে, ‘দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী কয়েকটি ড্রোন ধ্বংস করেছে। ইসরায়েলে ইরানের হামলার কয়েক দিন পরই পাল্টা হিসেবে এ হামলা হলো।’

ইসরায়েলের আজকের হামলায় যুক্তরাষ্ট্র জড়িত নয় বলে একটি সূত্র রয়টার্সকে নিশ্চিত করেছে। তবে হামলার আগে বিষয়টি যুক্তরাষ্ট্রকে জানিয়েছিল তারা।

ইরানের বার্তা সংস্থা ফারস বলছে, মধ্যাঞ্চলের শহর ইস্পাহানের একটি সেনাঘাঁটির কাছাকাছি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। ইরানের এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেছে, এটা কোনো ক্ষেপণাস্ত্র হামলা নয়। ইরানের প্রতিরক্ষাব্যবস্থা সক্রিয় হওয়ার কারণেই এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, মধ্যরাতের একটু পরেই ‘ইস্পাহানের আকাশে তিনটি ড্রোন দেখা যায়। সঙ্গে সঙ্গে আকাশ নিরাপত্তাব্যবস্থা সক্রিয় করা হয়। আর এর ফলে ড্রোনগুলো আকাশেই ধ্বংস করে ফেলা হয়।’

ইরানের এ ভাষ্য নিয়ে ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম এবিসি নিউজ জানায়, ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র ইরানে আঘাত হেনেছে। তবে কোথায় আঘাত হানা হয়েছে, সে বিষয়ে কোনো তথ্য তারা দেননি। আবার ক্ষেপণাস্ত্র ছাড়া অন্য কোনো যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে কি না, তা-ও জানাননি। কিন্তু ইরানের পক্ষ থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কথা অস্বীকার করা হয়েছে।

বিশ্লেষক এবং পর্যবেক্ষকেরা মনে করছেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের চলমান যুদ্ধ এখন পুরো মধ্যপ্রাচ্যে ছড়িয়ে পড়তে পারে। আজকের হামলার আগে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, তাঁদের ভূখণ্ডে কোনো হামলা হলে এর ‘চরম জবাব’ দেবে তাঁর দেশ।

বিষয়:

ভারতে ভোটগ্রহণ শুরু

ভোট দিয়েছেন ভারতের দুজন নাগরিক। ছবি:সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়, চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। প্রথম দফায় ১০২ আসনে ভোটগ্রহণ চলবে। আসনগুলোর মধ্যে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের তিন আসন— জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহার।

এ ছাড়াও অরুণাচল প্রদেশ, মণিপুর এবং মেঘালয়ের দু’টি করে আসনে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। একটি করে আসনে ভোটগ্রহণ হবে ছত্তীসগঢ়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, সিকিম, ত্রিপুরা, উত্তরাখণ্ড, আন্দামান ও নিকোবর, জম্মু ও কাশ্মির, লাক্ষাদ্বীপ এবং পন্ডিচেরিতে। বিহারের চার আসনেও শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ।

মণিপুরে মোট দু’টি লোকসভা আসন। ইনার মণিপুর এবং আউটার মণিপুর। তবে নির্বাচন কমিশন আউটার মণিপুরকে ভাগ করে দু’দফায় ভোট করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুক্রবার তাই আউটার মণিপুরের একাংশে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। বাকি অংশে ভোটগ্রহণ হবে ২৬ এপ্রিল।

এ ছাড়াও অরুণাচল প্রদেশ, মণিপুর এবং মেঘালয়ের দু’টি করে আসনে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। একটি করে আসনে ভোটগ্রহণ হবে ছত্তীসগঢ়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, সিকিম, ত্রিপুরা, উত্তরাখণ্ড, আন্দামান ও নিকোবর, জম্মু ও কাশ্মির, লাক্ষাদ্বীপ এবং পন্ডিচেরিতে। বিহারের চার আসনেও শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ।

পাশাপাশি উত্তরাখণ্ড এবং মহারাষ্ট্রের ছয় আসন, উত্তরপ্রদেশের আট আসন, রাজস্থানের ১২ আসনে ভোটগ্রহণ করাচ্ছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। দক্ষিণ ভারতের এই রাজ্যে ৩৯টি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে।

ভোট শুরুর ঠিক আগে এক্স (সাবেক টুইটার) হ্যান্ডলে পোস্ট করে দেশবাসীকে রেকর্ড সংখ্যক ভোটগ্রহণের আবেদন জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ইংরেজি, হিন্দি, তামিল, মারাঠি, বাংলা এবং অসমিয়া— মোট ছয় ভাষায় পোস্ট করেন তিনি।

মোদী তার পোস্টে লেখেন, ভোটারদের প্রতি আমার আবেদন রেকর্ড সংখ্যক ভোটদানের। বিশেষ করে তরুণ ও প্রথমবারের ভোটদাতাদের আমি বিপুল সংখ্যায় ভোটদানের আহ্বান জানাই। সর্বোপরি, প্রত্যেকটি ভোটের গুরুত্ব আছে, আর প্রতিটি কণ্ঠস্বরই গুরুত্বপূর্ণ!

বিষয়:

banner close