সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২

বাংলাদেশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন

বাংলাদেশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন
ছবি : সংগৃহীত
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত

ফেভারিটের তকমা গায়ে নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব খেলতে গিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠেয় মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয়ার জন্যই বাছাইপর্ব উতরানোর চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জের এক পরতে গতকাল যুক্তরাষ্ট্রকে ৫৫ রানে হারিয়ে ‘এ’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ।

আবুধাবিতে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি বাংলাদেশের। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে স্নিগ্ধা পলের বলে বোল্ড হন ওপেনার শামীমা সুলতানা। ১৯ সেপ্টেম্বর স্কটল্যান্ডের সঙ্গে ৭ রান করা এই ব্যাটার গতকাল ফেরেন ১৭ বলে ১০ রানে। এরপর দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে যুক্তরাষ্ট্রের বোলারদের ওপর তাণ্ডব চালান মোর্শেদা খাতুন ও অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। দুজনই পেয়েছেন অর্ধশতকের স্বাদ। টুর্নামেন্টে আগের দুই ম্যাচে ৩১ রান করা মোর্শেদা গতকাল অপরাজিত ছিলেন ক্যারিয়ারসেরা ৭৭ রানে। ৬৪ বলের ইনিংসে ছিল ৯টি চারের মার। জ্যোতি তুলে নেন টুর্নামেন্টে নিজের দ্বিতীয় ফিফটি। ৬ চার ও ১ ছয়ে ৪০ বলে ৫৬ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। তাদের অবিচ্ছেদ্য ১৩৮ রানের পার্টিনারশিপে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১ উইকেটে ১৫৮ রান তোলে বাংলাদেশ।

জবাবে নেমে বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে চাহিদার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলতে ব্যর্থ যুক্তরাষ্ট্র। ইনিংসের প্রথম ওভারেই ওপেনার স্নিগ্ধাকে শূন্য রানে ফেরান সালমা খাতুন। চতুর্থ ওভারে রান আউটের শিকার হন আরেক ওপেনার দিশা ধিংড়া। পরের ওভারে ১ রানে থাকা আনিকা কোলানকে বোল্ড করে দ্রুত ম্যাচ শেষ করার ইঙ্গিত দেন নাহিদ আকতার।

১৩ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর চতুর্থ উইকেট জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন অধিনায়ক সিন্ধু শ্রীহর্ষ ও লিসা রামজিত। দুজন ইনিংসের বাকিটা সময় নির্বিঘ্নে পার করলেও চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে রান তুলতে পারেননি। সিন্ধুর ৭১ বলে ৭৪ ও লিসার ৪১ বলে ৪৬ রানের ইনিংস তাই পরাজয়ের ব্যবধানই শুধু কমিয়েছে। ১০৩ রানে থামে যুক্তরাষ্ট্র। বাংলাদেশ ৫৫ রানে জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে উঠে গেছে সেমিফাইনালে।

গ্রুপের অন্য ম্যাচে স্কটল্যান্ডকে ১৯ রানে হারিয়ে সেমিফাইনালে বাংলাদেশের সঙ্গী হয়েছে আয়ারল্যান্ডের মেয়েরা। সেমিফাইনালে জয় পেয়ে ফাইনালে উঠলে বিশ্বকাপের মূল পর্বে যেতে পারবে বাংলাদেশ দল।


৪৫৮ রানের ম্যাচ যত সব রেকর্ড

৪৫৮ রানের ম্যাচ যত সব রেকর্ড
সূর্যকুমার যাদব রেকর্ড করেই যাচ্ছেন। ছবি: বিসিসিআই
ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশিত

প্রোটিয়া বোলারদের তুলোধুনো করে গতকাল গৌহাটিতে ভারত ৩ উইকেট করল ২৩৭ রান। এই রানের নিচে দক্ষিণ আফ্রিকা চাপা না পড়লেও জিততে পারেনি। ৩ উইকেট হারিয়ে তারা তুলেছে ২২১ রান। দুই দল মিলিয়ে রান উঠেছে ৪৫৮। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এটিই সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড নয় (সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড ৪৮৯, ভারত-উইন্ডিজ), তবে ভারত দক্ষিণ আফ্রিকার লড়াইয়ে এটিই দুই দলের সর্বোচ্চ রান। ভারতের ১৬ রানের জয়ের এই ম্যাচে রেকর্ড হয়েছে আরও কয়েকটি।

হাজারে দ্রুততম সূর্যকুমার

এই সময়ে ক্রিকেটে যাদের ব্যাটিং মন্ত্রমুগ্ধের মতো টানে, তাদের অন্যতম সূর্যকুমার যাদব। তার ব্যাটে আগুণের হলকা উঠলে নিস্তার নেই প্রতিপক্ষ বোলারদের। সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে কাল রান আউট হওয়ার আগে খেলেছেন মাত্র ২২ বল। তাতেই ৬১ রান। ৫টি চার ও সমান সংখ্যক ছয়ের ইনিংসটির স্ট্রাইকরেট-২৭৭.২৭। এই ইনিংস খেলার পথে রিবাট কোহলি ও রাহুল লোকেশের পর তৃতীয় দ্রুততম ভারতীয় হিসেবে ৩১ ইনিংসে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন। কিন্তু খেলা বলের হিসেবে সূর্যকুমারই দ্রুততম। মাত্র ৫৭৪ বলেই রানের চার অঙ্ক ছুঁয়েছেন তিনি। তার আগে এই রেকর্ডটি ছিল ৬০৪ বলের, অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাকওয়েলের।

সূর্যকুমার

সূর্যের আলোয় ম্লান রাহুল-ধোনিও

ভারতের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে রানরেটের ভিত্তিতে দ্রুততম সেঞ্চুরি জুটির রেকর্ড এতদিন ছিল মহেন্দ্র সিং ধোনি ও লোকেশ রাহুলের। ২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৩.১০ রানরেটে ১০৭ রানের জুটি গড়েছিলেন তারা। কিন্তু গতকাল কোহলিকে নিয়ে ৪২ বলে ১০২ রানের জুটি গড়লেন সূর্যকুমার, ১৪.৫৭ রান রেটে!