বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩

হলের ক্যানটিন বন্ধ করে পালালেন পরিচালক

ছবি: দৈনিক বাংলা
প্রতিনিধি, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত
প্রতিনিধি, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত : ৩১ আগস্ট, ২০২৩ ১৭:১৬

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শেরেবাংলা হলের ক্যানটিন পরিচালক সুমন ও তার কর্মচারীরা ক্যানটিন বন্ধ করে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ফলে ক্যানটিন বন্ধ থাকায় দুর্ভোগে পড়েছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

গত বুধবার রাতের খাবার পরিবেশনের পর বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই খোঁজ নেই সুমন ও তার কর্মচারীদের। তারা হলের ক্যানটিন পরিচালনার দায়িত্ব চলতি মাসের আগস্ট থেকে শুরু করেন। ক্যানটিনের দায়িত্বরত বাবুর্চি বেলাল নতুন পরিচালকের পলায়নের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ক্যানটিনের বাবুর্চি বেলাল জানান, হলের ক্যানটিন চালাতে গিয়ে লোকসান ও ঋণের সম্মুখীন হন সুমন। গতকাল বৃহস্পতিবার মাসের শেষ দিন, ক্যানটিনে আয়-ব্যয়ের হিসাব করা হবে, যথাযথ হিসাব দিতে পারবে না বলে এবং ক্যানটিনের গ্যাস মালিকদের ও অন্যদের টাকা পরিশোধ করার চাপ সহ্য করতে না পেরেই সে ও তার লোকেরা পালিয়েছে।

দুপুরে ক্যানটিন চলবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সুমন ও তার লোকেরা পালিয়ে যাওয়ার কারণে পর্যাপ্ত টাকা না থাকায় রান্নার জন্য তরকারি ও গ্যাস কেনা সম্ভব না। এই মুহূর্তে রান্নার কাজে হাত দিতে পারছি না। আপাতত ক্যানটিন বন্ধ থাকবে।’

হলের আবাসিক শিক্ষার্থী রিফাত হোসেন বলেন, ‘গতকাল ঘুম থেকে ওঠার পর ক্যানটিনে গিয়ে দেখতে পাই, পরিচালক ও তার লোকেরা পালানোয় ক্যানটিন বন্ধ। এমতাবস্থায় আমাদের অন্য হলের ক্যানটিন ও বাইরের হোটেল থেকে খাওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। এ ভোগান্তি দূর করার জন্য কর্তৃপক্ষের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে হলের চার থেকে পাঁচজন আবাসিক শিক্ষার্থী দৈনিক বাংলাকে বলেন, ‘আমাদের হলের ক্যানটিনে খাবার সমস্যা দীর্ঘদিনের। নতুন পরিচালক এসে খাবারের মান কিছুটা ভালো করেছিলেন কিন্তু এর আগের পরিচালক ও বর্তমান বাবুর্চি বেলাল গ্যাস, মুদি, সবজি ও মাছসহ বিভিন্ন দোকানে হাজার হাজার টাকার ঋণ। ওই সব দোকানিরা টাকার জন্য তাগাদা দিতে আসতেন। এতে নতুন পরিচালকের সঙ্গে ঝামেলা হতো আগের পরিচালক বেলালের। পুরাতন মালিক বেলাল পরিচালনার দায়িত্ব নামে ছাড়লেও সেই এখনো পরিচালক। পুরাতন পরিচালকের ধারদেনার চাপেই নতুন পরিচালক চলে যেতে বাধ্য হয়েছেন। বেলালকে ক্যানটিন থেকে বিতাড়িত করা ছাড়া এ সমস্যা সমাধান হবে না।

আগের পরিচালক বেলালের (বর্তমান বাবুর্চি) কাছে তার ধারদেনার বিষয়ে জানতে চাইলে দৈনিক বাংলাকে তিনি বলেন, ‘আমার ধারদেনা আমি শোধ করব, অনেকটা শোধ করেও দিয়েছি। বাকি যা আছে আস্তে আস্তে শোধ করব। নতুন যারা আসছিলেন আমার ধারদেনার সঙ্গে তাদের কোনো কারবার নেই। তারা নিজেরাই নতুন দেনা করে পালিয়ে গেছেন। আমার বেতন পর্যন্ত দিয়ে যাননি তারা।’

শেরেবাংলা হলের নতুন ক্যানটিন পরিচালক সুমনের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন কেটে দেন। পরে ক্ষুদে বার্তা পাঠালেও তিনি কোনো সাড়া দেননি।

এ বিষয়ে শেরেবাংলা হলের প্রভোস্ট আবু জাফর মিয়া বলেন, ‘ঘটনা সম্পর্কে আমি অবগত ছিলাম না। শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে দ্রুতই বিকল্প ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

বিষয়:

কুমিল্লায় পাসের হার ৭৫ দশমিক ৩৪শতাংশ

ছবি: দৈনিক বাংলা
আপডেটেড ২৬ নভেম্বর, ২০২৩ ১৫:৪১
কুমিল্লা প্রতিনিধি

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭৫ দশমিক ৩৪ শতাংশ। যা গত দুই বছরের তুলনায় কম। ফলাফলে ছেলেদের তুলনায় এগিয়ে আছেন মেয়েরা।

রবিবার (২৬ নভেম্বর) বিকেল ৩ টায় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড.আসাদুজ্জামান এ তথ্য জানান।

তথ্য অনুযায়ী ২০২৩ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড থেকে অংশগ্রহণ করেছে এক লাখ ১০ হাজার ৬৫৫ জন। সকল বিষয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ৮৩ হাজার ৩৭০ জন। যা মোট ফলাফলের ৭৫ দশমিক ৩৪ শতাংশ। এবারের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে পাঁচ হাজার ৬৫৫ জন। যা মোট ফলাফলের ছয় দশমিক ৭৮ শতাংশ।

২০২২ সালে পাসের হার ছিল ৯০ দশমিক ৭৫ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১৫ হাজার ২৪ জন। এ ছাড়া ২০২১ সালে পাসের হার ছিল ৯৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ। জিপিএ-৫ ছিল ১৪ হাজার ১৬২ জন।

এ বছর ৪৬ হাজার ৯৮৫ জন ছেলে ও ৬৩ হাজার ৬৭০ জন মেয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। এর মধ্যে ৩৪ হাজার ১৭৭ জন ছেলে ও ৪৯ হাজার ১৯৩ জন মেয়ে পাস করেছে। এবং জিপি-৫ পেয়েছে দুই হাজার ১৩২ জন ছেলে ও তিন হাজার ৫২৩ জন মেয়ে শিক্ষার্থী।

বিষয়:

এইচএসসির ফলাফল জানা যাবে যেভাবে

ছবি: ফোকাস বাংলা
আপডেটেড ২৬ নভেম্বর, ২০২৩ ১৩:৩৪
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

২০২৩ সালের উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হবে আজ। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ফল হস্তান্তর করা হয়েছে।

রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলাফলের সারসংক্ষেপ হস্তান্তর করেন। এদিন দুপুর আড়াইটায় সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফলের বিস্তারিত ঘোষণা করবেন শিক্ষামন্ত্রী।

প্রার্থীরা অনলাইনে বা ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করে তাদের ফলাফল জানতে পারবেন।

এসএমএসের মাধ্যমে সাধারণ বোর্ডের অধীনে ফলাফল পেতে প্রথমে এইচএসসি, পরে প্রার্থীদের বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অক্ষর, তারপরে প্রার্থীর রোল নম্বর এবং বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

উদাহরণ স্বরূপ, একজন প্রার্থী যিনি ঢাকা বোর্ডের অধীনে ‘১০,০০,০০০’ রোল নম্বর সহ এই বছরের পরীক্ষায় বসেছিলেন তাকে পাঠাতে হবে: এইচএসসি (স্পেস) ডিএইচএ (স্পেস) ১০,০০,০০০ (স্পেস) ২০২৩ এবং এসএমএস পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

একইভাবে, আলিম ফলাফল পেতে, শিক্ষার্থীদের এএলআইএম [স্পেস] এমএডি [স্পেস] রোল নম্বর [স্পেস] ২০২৩ লিখে ১৬২২২ নম্বরে টেক্সট মেসেজ পাঠাতে হবে।

কারিগরি বোর্ডের ফলাফলের জন্য, শিক্ষার্থীদের এইচএসসি [স্পেস] টিইসি [স্পেস] রোল নম্বর [স্পেস] ২০২৩ টাইপ করতে হবে এবং ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

বিকল্পভাবে, প্রার্থীরা তাদের ফলাফল

http://www.educationboardresults.gov.bd. থেকেও পেতে পারেন।

শিক্ষার্থীরা রোল এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে পৃথক ফলাফল শীট ডাউনলোড করতে পারেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোও তাদের ফলাফল https://dhakaeducationboard.gov.bd/ থেকে প্রতিষ্ঠানের ইআইআইএন নম্বর দিয়ে ডাউনলোড করতে পারবে।


প্রধানমন্ত্রীর কাছে এইচএসসির ফলাফল হস্তান্তর

আপডেটেড ২৬ নভেম্বর, ২০২৩ ১৩:১৯
বাসস

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ২০২৩ সালের উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল হস্তান্তর করা হয়েছে।

রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলাফলের সারসংক্ষেপ হস্তান্তর করেন। এ সময় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সব শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান শিক্ষামন্ত্রীর কাছে ফলাফল পৌঁছে দেন।

ডা. দীপু মনি রোববার দুপুর আড়াইটায় সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফলের বিস্তারিত ঘোষণা করবেন।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় মোট ১৩ লাখ ৫৯ হাজার ৩৪২ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ৬ লাখ ৮৮ হাজার ৮৮৭ জন ছেলে এবং ৬ লাখ ৭০ হাজার ৪৫৫ জন মেয়ে।

যেভাবে ফলাফল দেখা যাবে

প্রার্থীরা অনলাইনে বা ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করে তাদের ফলাফল জানতে পারবেন।

এসএমএসের মাধ্যমে সাধারণ বোর্ডের অধীনে ফলাফল পেতে প্রথমে এইচএসসি, পরে প্রার্থীদের বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অক্ষর, তারপরে প্রার্থীর রোল নম্বর এবং বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

উদাহরণ স্বরূপ, একজন প্রার্থী যিনি ঢাকা বোর্ডের অধীনে ‘১০,০০,০০০’ রোল নম্বর সহ এই বছরের পরীক্ষায় বসেছিলেন তাকে পাঠাতে হবে: এইচএসসি (স্পেস) ডিএইচএ (স্পেস) ১০,০০,০০০ (স্পেস) ২০২৩ এবং এসএমএস পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

একইভাবে, আলিম ফলাফল পেতে, শিক্ষার্থীদের এএলআইএম [স্পেস] এমএডি [স্পেস] রোল নম্বর [স্পেস] ২০২৩ লিখে ১৬২২২ নম্বরে টেক্সট মেসেজ পাঠাতে হবে।

কারিগরি বোর্ডের ফলাফলের জন্য, শিক্ষার্থীদের এইচএসসি [স্পেস] টিইসি [স্পেস] রোল নম্বর [স্পেস] ২০২৩ টাইপ করতে হবে এবং ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

বিকল্পভাবে, প্রার্থীরা তাদের ফলাফল

http://www.educationboardresults.gov.bd. থেকেও পেতে পারেন।

শিক্ষার্থীরা রোল এবং রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে পৃথক ফলাফল শীট ডাউনলোড করতে পারেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোও তাদের ফলাফল https://dhakaeducationboard.gov.bd/ থেকে প্রতিষ্ঠানের ইআইআইএন নম্বর দিয়ে ডাউনলোড করতে পারবে।


আজ এইচএসসির ফল প্রকাশ  

আপডেটেড ২৬ নভেম্বর, ২০২৩ ১২:৩৯
নিজস্ব প্রতিবেদক

আজ রোববার প্রকাশ হবে উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফল। আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার সাংবাদিকদের বলেছেন, সকাল ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেবেন দেশের শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানরা।

জানা গেছে, এরপর শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বেলা ২টার দিকে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করবেন। নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইটে পরে একযোগে ফল প্রকাশ করা হবে।

বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষার্থীরা ঘরে বসেই নির্ধারিত ওয়েবসাইটে ও এসএমএসের মাধ্যমে ফলাফল জানতে পারবেন। এসএমএসের মাধ্যমে ফল পেতে মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে ইংরেজি অক্ষরে এইচএসসি লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে আবার স্পেস দিয়ে পাসের বছর লিখতে হবে। এরপর ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে।

অন্যদিকে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফলাফল জানতে শিক্ষার্থীকে প্রথমে www.educationboardresults.gov.bd এই ওয়েবসাইটে ঢুকতে হবে। সেখানে থাকা ফলাফল অপশনে ক্লিক করে রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে সেন্ড করলেই শিক্ষার্থীরা তার রেজাল্ট শিট দেখতে পাবেন।

উল্লেখ্য, গত ১৭ আগস্ট দেশের আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। এবার দেশের ১১টি শিক্ষা বোর্ডে একযোগে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিল। মোট ১৩ লাখ ৫৯ হাজার ৩৪২ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ফরম পূরণ করেছিলেন। পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ১০ লাখেরও বেশি পরীক্ষার্থী। বন্যার কারণে পরীক্ষা পিছিয়ে দেয়া তিন বোর্ডের প্রায় সাড়ে ৩ লাখ শিক্ষার্থীর ২৭ আগস্ট থেকে চট্টগ্রাম, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডের পরীক্ষা শুরু হয়। এবার পূর্ণ নম্বরের প্রশ্নপত্র ও পূর্ণ সময়ে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আইসিটি বিষয় ১০০ নম্বরের পরিবর্তে ৭৫ নম্বরে পরীক্ষা হয়েছে।

বিষয়:

শিশুদের কলরব আর উচ্ছ্বাসে প্রাণবন্ত জাবির প্রজাপতি মেলা

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
জাবি প্রতিনিধি

কেউ দেখছে জীবন্ত প্রজাপতি, কেউ শরীরে আঁকছে প্রজাপতির ট্যাটু, কেউ দেখছে প্রজাপতির রঙিন ছবি কেউবা রং-তুলিতে আঁকছে প্রজাপতি। এভাবেই শিশুদের কোলাহলে প্রাণবন্ত ছিল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রজাপতি মেলা।

গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের আয়োজনে জহির রায়হান অডিটোরিয়ামের সামনে শুরু হওয়া এ মেলা চলে বিকেল পর্যন্ত।

মেলার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. নূরুল আলম। তিনি বলেন, ‘প্রজাপতি মেলা সবার কাছে প্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রজাপতি মেলায় প্রজাপতির আদলে যেসব প্রদর্শনী হচ্ছে, তা শিশুদের মনে বিশেষ জায়গা করে নিয়েছে। শিশুদের খুবই উৎফুল্ল দেখাচ্ছে। তাদের হাস্যোজ্জ্বল অংশগ্রহণই বলে দিচ্ছে প্রজাপতি মেলার সার্থকতা।’

এ সময় তিনি দর্শনার্থী, বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীসহ সবাইকে প্রাণ-প্রকৃতি সংরক্ষণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

বাবার সঙ্গে ঢাকার কল্যাণপুর থেকে মেলা দেখতে আসা নার্সারি পড়ুয়া শিশু আইমান বিনয় বলেন, ‘বাবার সঙ্গে মেলায় ঘুরতে এসেছি। অনেক রঙের প্রজাপতি দেখেছি, চিত্র এঁকেছি। মেলায় এসে আমার ভাল্লাগছে।’

মেলার আহ্বায়ক অধ্যাপক মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, ‘প্রজাপতি হলো একটি ছোট্ট নান্দনিক প্রাণী, যা মানুষকে আনন্দ দেয়। দিনে দিনে এই প্রাণীটি প্রকৃতি থেকে হারিয়ে যাচ্ছে। আগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ১১০ প্রজাতির প্রজাপতি পাওয়া যেত। এখন সেই সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৫৭ প্রজাতিতে। গাছপালা বাঁচিয়ে রাখতে হলে প্রজাপতি রক্ষা করতে হবে। কেননা প্রজাপতির পরাগায়নেই উদ্ভিদ ও গাছের সৃষ্টি। তাই মানুষের মাঝে প্রজাপতির গুরুত্ব বুঝানো এবং জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আমাদের এই মেলার আয়োজন।’

এ বছর বন্যপ্রাণী ও প্রজাপতি সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলামকে ‘বাটারফ্লাই অ্যাওয়ার্ড-২০২৩’, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী মো. জহির রায়হানকে ‘বাটারফ্লাই ইয়াং ইনথুসিয়াস্ট-২০২৩’ পুরস্কার দেয়া হয় এবং প্রিন্ট, অনলাইন ও ব্রডকাস্ট এই তিন ক্যাটাগরিতে তিন সাংবাদিককে মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়।

মেলায় ছিল জীবন্ত প্রজাপতি প্রদর্শনী, প্রজাপতির হাট দর্শন, শিশু-কিশোরদের জন্য প্রজাপতিবিষয়ক ছবি আঁকা ও কুইজ প্রতিযোগিতা, প্রজাপতিবিষয়ক আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা ও প্রদর্শনী, প্রজাপতি চেনা প্রতিযোগিতা, প্রজাপতির আদলে তৈরি ঘুড়ি ওড়ানোর প্রতিযোগিতা, বারোয়ারি বিতর্ক প্রতিযোগিতা, প্রজাপতিবিষয়ক তথ্যচিত্র প্রদর্শন ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান।

উল্লেখ্য, ২০১০ সাল থেকে প্রতিবছর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রজাপতি মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রজাপতি সংরক্ষণ ও জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এই মেলার আয়োজন করা হয়।


অবশেষে স্থগিত হলো ৪৫তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা

আপডেটেড ২৪ নভেম্বর, ২০২৩ ১৭:৫৭
নিজস্ব প্রতিবেদক

টানা এক সপ্তাহ পিএসসি ও পরীক্ষার্থীদের পাল্টাপাল্টি অবস্থানের পর অবশেষে স্থগিত করা হলো ৪৫তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা।

এর আগে হরতাল-অবরোধে নিরাপত্তা শঙ্কা মাথায় নিয়ে ৪৫তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা দিতে চান নাই প্রার্থীরা। অন্যদিকে পরীক্ষা নিতে অনড় সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। সময়সূচি ও আসনবিন্যাসও প্রকাশ করেছিল সংস্থাটি।

সবকিছুর পর আজ শুক্রবার বিকেলের দিকে পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) আনন্দ কুমার বিশ্বাসের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে আনুষ্ঠানিকভাবে লিখিত পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দেওয়া হয়। পরীক্ষা স্থগিত করায় খুশি পরীক্ষার্থীরাও।

এতে বলা হয়, আগামী ২৭ নভেম্বর থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ঢাকাসহ দেশের সব বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠেয় ৪৫তম বিসিএসের সকল লিখিত পরীক্ষা (আবশ্যিক ও পদ-সংশ্লিষ্ট) অনিবার্য কারণবশত কমিশন স্থগিত করেছে। পরীক্ষার পরিবর্তিত তারিখ ও সময়সূচি যথাসময়ে কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।


৪৫তম বি.সি.এস পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষার সময়সূচী ও নির্দেশনা প্রকাশিত

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
দৈনিক বাংলা ডেস্ক

৪৫তম বি.সি.এস পরীক্ষা-২০২২ এর লিখিত পরীক্ষা ২৭ নভেম্বর থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ঢাকাসহ ৮টি বিভাগীয় শহরে একযোগে অনুষ্ঠিত হবে।

আজ বৃহস্পতিবার পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) আনন্দ কুমার বিশ্বাস সাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে সংস্থাটি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতজানানো হয়েছে,পরীক্ষার সময়সুচী, হলভিত্তিক আসন ব্যবস্থা ও গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের ওয়েবসাইটে [www.bpsc.gov.bd] অথবা টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের ওয়েবসাইটে [http://bpsc.teletalk.com.bd] পাওয়া যাবে।

এর আগে গত ৬ জুন ৪৫তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। এতে মোট ১২ হাজার ৭৮৯ জন উত্তীর্ণ হন।

তার আগে ১৯ মে ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযোগে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ৩ লাখ ৪৬ হাজার আবেদনকারীর মধ্যে এতে অংশ নেন ২ লাখ ৬৮ হাজার ১১৯ জন।


বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ও কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটির সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

আপডেটেড ২২ নভেম্বর, ২০২৩ ২২:২৯
নিজস্ব প্রতিবেদক

কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ একটি স্বনামধন্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। বুধবার বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, এসবিপি (বার), ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি, পিএইচডি এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. চৌধুরী নাফিজ সরাফাত উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়াও সেনা সদরের সব পিএসও, বিভিন্ন পরিদপ্তরের পরিচালক, সামরিক কর্মকর্তা এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর শিক্ষক ও কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মতো একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর জন্য একটি উল্লেখযোগ্য মাইল ফলক। এর ফলে দুটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে সহযোগিতার দ্বার উন্মোচিত হলো। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের মাধ্যমে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যরা কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এ উচ্চশিক্ষা এবং গবেষণার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা লাভ করবে।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শিক্ষা পরিদপ্তর এবং সামরিক প্রশিক্ষণ পরিদপ্তর-এর যৌথ উদ্যোগে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষে পরিচালক, শিক্ষা পরিদপ্তর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. রেজাউল ইসলাম, পিএসসি, পিএইচডি এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর পক্ষে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গিয়াস উদ্দিন আহসান সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শিক্ষা পরিদপ্তর এবং সামরিক প্রশিক্ষণ পরিদপ্তর-এর যৌথ উদ্যোগে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষে পরিচালক, শিক্ষা পরিদপ্তর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. রেজাউল ইসলাম, পিএসসি, পিএইচডি এবং কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর পক্ষে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গিয়াস উদ্দিন আহসান সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন।


ঢাবির ৪ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
ঢাবি প্রতিনিধি

রাজধানীর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নির্যাতনের অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) চার শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। পাশাপাশি তাদের কেন ‘স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না’ মর্মে সাত কার্য দিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতেও বলা হয়েছে।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত শৃঙ্খলা পরিষদের সভায় ওই ৪ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল সভায় সভাপতিত্ব করেন। সাময়িকভাবে বহিষ্কৃতরা হলে তবারক মিয়া, মুরসালিন ফাইয়াজ, ফয়সাল আহমেদ সাকিব এবং জুবায়ের ইবনে হুমায়ুন। তারা সবাই বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী এবং কথিত প্রলয় গ্যাংয়ের সঙ্গে জড়িত। এর আগে ৯ নভেম্বর শাহবাগ থানায় করা এক মামলায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর মা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কনসালট্যান্ট ডা. রেহেনা আক্তার অভিযোগ করেন, তার ছেলেকে বহিষ্কৃতরাসহ আরও আট দশজন সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দুই ঘণ্টা যাবত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেছেন।

মামলার বিবরণীতে ডা. রেহেনা উল্লেখ করেন, ৮ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পশ্চিম পাশে বসে মীর আলভী আরসলান বান্ধবীর সঙ্গে গল্প করছিলেন। এ সময় তবারক, মুরসালিন, সাকিব, জুবায়ের ও জোবায়ের ইবনে হুমায়ূন সহ বেশ কয়েকজনের একটি দল তাদের হেনস্তা করে ও ভয়ভীতি দেখায়। আলভী প্রতিবাদ করলে তাকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের নির্জন স্থানে নিয়ে নির্যাতন করে। রড, লাঠি ও কাঠ দিয়ে তাকে পেটানো হয়।

বিবরণী থেকে আরও জানা যায়, তবারক আলভীর পকেটে থাকা ২ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে সরে যান। মুরসালিন আলভীর কাছে থাকা ২৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি স্মার্টফোন কেড়ে নিয়ে ভেঙে ফেলেন। সবশেষে আলভীর ড্রাইভিং লাইসেন্সসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র পুড়িয়ে ফেলে অভিযুক্তরা। গুরুতর অবস্থায় আলভীকে ধানমণ্ডির পপুলার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়, বর্তমানে তিনি নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে প্রধান আসামি তবারক মিয়াকে পুলিশ রোববার দুপুরে গ্রেপ্তার করে সোমবার কোর্টে পাঠিয়েছেন।

এছাড়া, কথিত এই ‘প্রলয় গ্যাং’ নামের গ্রুপটির সদস্যদের চিহ্নিত করতে গত মার্চ মাসে একটি আন্তঃহল তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। সেই কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কমিটির সভায় বিভিন্ন অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রতিবেদন অনুযায়ী ১৪ জন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে।

সভায়, পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনের দায়ে আরও ৪৯জন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়।


কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটির নতুন প্রো ভিসি অধ্যাপক ড. মোঃ গিয়াস উদ্দিন আহসান

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
নিজস্ব প্রতিবেদক

অধ্যাপক ড. মোঃ গিয়াস উদ্দিন আহসান কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (সিইউবি) -এর প্রো ভাইস চ্যান্সেলর হিসাবে যোগদান করেছেন। সিইউবি’র চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতি আগামী চার বছরের জন্য তাকে এ পদে নিযুক্ত করেন।

আজ কানাডিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (সিইউবি)-তে অনুষ্ঠিত একটি টাউন হল মিটিংয়ে চেয়ারম্যান ড. চৌধুরী নাফিজ সরাফাত তাকে পরিচয় করিয়ে দেন।

সিইউবিতে যোগদানের পূর্বে ড. আহসান নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়, স্বাস্থ্য খাত (ডিজিএইচএস) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ইত্যাদি জায়গায় ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে একজন একাডেমিক সদস্য এবং গবেষক হিসাবে দায়ীত্ব পালন করেছেন।


২৬ নভেম্বর এইচএসসির ফল প্রকাশ

ছবি: সংগৃহীত
আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী ২৬ নভেম্বর ২০২৩ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। রেওয়াজ অনুযায়ী, সেদিন সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলাফল হস্তান্তর করা হবে। এরপর সারাদেশের শিক্ষার্থীরা একযোগে পরীক্ষার ফলাফল পাবেন।

আজ শুক্রবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আগামী ২৬ অথবা ২৮ নভেম্বর- যেকোনো একটি দিন চাওয়া হয়েছিল। তিনি ২৬ নভেম্বর ফল প্রকাশে সম্মতি দিয়েছেন।

চলতি বছর ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয় ১৭ আগস্ট। আর প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে পিছিয়ে যাওয়া চট্টগ্রাম, মাদরাসা ও বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা শুরু হয় ২৭ আগস্ট। তবে সব বোর্ডই ২৬ নভেম্বর ফল প্রকাশ করবে।

এ বছর ১১টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পরীক্ষায় অংশ নেন ১৩ লাখ ৫৯ হাজার ৩৪২ পরীক্ষার্থী।


মানারাত ইউনিভার্সিটিতে নবীনবরণ ও প্যানেল আলোচনা

আপডেটেড ১৩ নভেম্বর, ২০২৩ ১৬:০৮
সিলেট ব্যুরো

মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের নবীনবরণ এবং জাতীয় পর্যায়ের প্রথিতযশা শিক্ষাবিদ ও ইসলামিক ব্যক্তিত্বদের নিয়ে ‘ইসলামিক স্টাডিজ ইন হায়ার এডুকেশন: চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড সলিউশন্স ফ্রম বাংলাদেশ পারসপেক্টিভস’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের গুলশান ক্যাম্পাসের সভাকক্ষে এ নবীনবরণ ও প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আব্দুছ ছবুর খান এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। মডারেটর ছিলেন স্কুল অব আর্টস অ্যান্ড হিউম্যানিটিসের ডিন ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রধান ড. মোহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ।

প্যানেল আলোচক ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. যুবাইর মুহাম্মদ এহসানুল হক, উত্তর বাড্ডা কামিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ড. আনোয়ার হোসাইন মোল্লা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, জাগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ নুরুল্লাহ প্রমুখ।

বিষয়:

নির্বাচনে আন্তর্জাতিক মহলের ‘হস্তক্ষেপে’ উদ্বেগ জাবির ৫ শতাধিক শিক্ষকের

আপডেটেড ১ জানুয়ারি, ১৯৭০ ০৬:০০
নিজস্ব প্রতিবেদক

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে একটি আন্তর্জাতিক মহল ‘অযাচিত হস্তক্ষেপ’ করছে অভিযোগ করে সে বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদের পাঁচ শতাধিক শিক্ষক।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল নির্বাচন ভবনে বুধবার সন্ধ্যায় দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার এক দিন পর বৃহস্পতিবার জাবির শিক্ষকরা এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

এর আগে নিঃশর্ত সংলাপ চেয়ে দেশের তিন রাজনৈতিক দলকে যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লুর দেয়া চিঠিকে শিষ্টাচারবহির্ভূত এবং অযাচিত হস্তক্ষেপ দাবি করে এ ঘটনায় বুধবার উদ্বেগ জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ৮২৫ শিক্ষক। তারা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র গণতন্ত্রের নামে আফগানিস্তান, সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়াসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে ঠেলে দিয়েছে। এবার অর্থনৈতিকভাবে ক্রমাগ্রসরমান বাংলাদেশ রাষ্ট্রের উন্নয়নের ধারাকে পশ্চাৎমুখী করার মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তির অপতৎপরতায় রসদ যোগাচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ জাবির সদস্য সচিব অধ্যাপক বশির আহমেদ স্বাক্ষরিত বার্তায় বলা হয়, ‘নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। আগামী ৭ জানুয়ারি, ২০২৪ তারিখে ৩০০ আসনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তফসিল ঘোষণায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং অংশগ্রহণমূলক করার সব ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ এবং সকল উদ্বেগ, উৎকণ্ঠা ও অস্বস্তি পরাভূত করে নির্ভয়ে আনন্দমুখর পরিবেশে ভোটকেন্দ্রে এসে অবাধে মূল্যবান ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে অনুরোধ করেছেন। আমরা ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ’, জাহাঙ্গীর, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় নির্বাচনি তফসিলকে স্বাগত জানাই, কিন্তু আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ করছি দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি চলমান অবস্থায় তফসিল ঘোষণার প্রাক্কালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত সব ধরনের শিষ্টাচার লঙ্ঘন করে সে দেশের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশের তিনটি রাজনৈতিক দলকে নিঃশর্ত সংলাপে বসার আহ্বান জানিয়ে চিঠি বিতরণ করেছে বলে জাতীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে।’

‘ইতোমধ্যে আসন্ন নির্বাচনকে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং অংশগ্রহণমূলক করার সব ধরনের উদ্যোগ নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে গ্রহণ করা হয়েছে, সেই সময়ে এই ধরনের চিঠি বিতরণ এবং হস্তক্ষেপ শিষ্টাচার-বহির্ভূত।’

জাবি শিক্ষকরা আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ মনে করে একটি সার্বভৌম দেশের নাগরিক হিসেবে এ দেশের জনগণের নিজস্ব স্বাধীনতা, গণতন্ত্র এবং স্বাধীনভাবে নিজের ভোট দেয়ার অধিকার রয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের এ ধরনের পদক্ষেপ এ দেশের সার্বভৌমত্বের জন্য হুমকি এবং দেশের মান-মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করেছে বলে আমরা মনে করি।

‘উক্ত ঘটনায় আমরা গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। সেই সাথে স্বাধীন, সার্বভৌম রাষ্ট্রের প্রতি সম্মান জানিয়ে অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের জনআকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটাতে বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন ও সরকারের প্রচেষ্টাকে এগিয়ে নিতে সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি।’


banner close