সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২

বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে রোগী ভর্তি ১ মাসের মধ্যে

বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে রোগী ভর্তি ১ মাসের মধ্যে
বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল। ছবি: দৈনিক বাংলা
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা
প্রকাশিত

বঙ্গবন্ধু শেখ ‍মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল চালু হলে ৩৫০ কোটি টাকা সাশ্রয় হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে তিনি এই হাসপাতালে রোগীর চিকিৎসার পাশাপাশি গবেষণার প্রতি জোর দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, গবেষণা ছাড়া উৎকর্ষ সাধন সম্ভব নয়।

গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। তিনি সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে বেলা ১১টা ২৭ মিনিটে হাসপাতালের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা বলেন, সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে দেশে প্রথমবারের মতো সেন্টার বেজড হেলথ কেয়ার ডেলিভারি সিস্টেম চালু হবে, যা উন্নত বিশ্বে বহুল প্রচলিত। তিনি বলেন, এ হাসপাতাল চালু হলে বাংলাদেশের প্রতিবছর আনুমানিক ৩৫০ কোটি টাকা সাশ্রয় হবে।

এর আগে ২০১৮ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর অত্যাধুনিক বিশেষায়িত এই হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রতিষ্ঠার ২৩ বছর পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে জরুরি বিভাগ চালু করায় বিএসএমএমইউর বর্তমান প্রশাসনের প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, বিএসএমএমইউ ছাড়াও দেশের প্রতিটি বিভাগে একটি করে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হবে এবং সেখানে গবেষণা কার্যক্রমকে বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একে তো করোনা, তার ওপর যুদ্ধ। সামনে কিন্তু আরও কঠিন সময় আসবে। করোনা-পরবর্তী সময়ে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ স্যাংকশন পাল্টা স্যাংকশন, যে কারণে আজ বিশ্ব অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে। বাংলাদেশকেও খুব কঠিন সময় অতিক্রম করতে হচ্ছে। যেখানে উন্নত দেশগুলো নিজেদের দেশ নিয়েই হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে আমাদের মতো ঘনবসতিপূর্ণ দেশে স্বাস্থ্যসেবা থেকে শুরু করে সার্বিক সেবা দেয়া আরও কঠিন।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, এখন দেখতে পাচ্ছি প্রতিটি দেশেই নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়ে গেছে। জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে গেছে, বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হতে বলা হচ্ছে, খাদ্য কেনার ক্ষেত্রে রেশন করে দেয়া হচ্ছে। ইউরোপ, ইংল্যান্ড, আমেরিকায় এসব অবস্থা চলছে। আমাদেরও আরও মিতব্যয়ী হতে হবে, নিজেদের দেশে উৎপাদন বাড়াতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ দৈনিক বাংলাকে বলেন, প্রতিবছর প্রায় ১৫ থেকে ২০ লাখ মানুষ দেশের বাইরে চিকিৎসা নিতে যান। যার আনুমানিক খরচ প্রায় চার বিলিয়ন ডলার। আর এই হাসপাতাল প্রতিষ্ঠান মাধ্যমে দেশের মানুষের ভোগান্তির যেমন লাঘব হবে তেমনি সাশ্রয় হবে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা। এখানে এক সেন্টারে কোনো রোগী ভর্তি হলে তাকে অন্য কোথাও যেতে হবে না। বলা যায়, চিকিৎসার এক নতুন যুগে প্রবেশ করল বাংলাদেশ। বিশ্বমানের চিকিৎসা রোগীরা এখন থেকে এখানেই পাবেন, কাউকে দেশের বাইরে যেতে হবে না।

এখানে প্রতিদিন প্রায় পাঁচ থেকে আট হাজার রোগী বহির্বিভাগ থেকে সেবা নিতে পারবেন বলেও জানান অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ১ হাজার ৫৬১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে ৭৫০ শয্যার এই হাসপাতাল। যার মধ্যে ১ হাজার কোটি টাকা কোরিয়ান সরকার এবং ৩৩০ কোটি টাকা বাংলাদেশ সরকার এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৭০ কোটি টাকা দেয়া হচ্ছে।

শারফুদ্দিন আহমেদ জানালেন, নতুন এই সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে রয়েছে আন্তর্জাতিক মানের ১১টি মডুলার অপারেশন থিয়েটার। এ ছাড়া বিভিন্ন বিভাগসহ কমপক্ষে পাঁচটি বিশ্বমানের সেন্টারও থাকবে এখানে। সেগুলো হচ্ছে- কার্ডিও ও সেরিব্রোভাসকুলার সেন্টার, হেপাটোবিলিয়ারি ও লিভার ট্রান্সপ্লান্ট সেন্টার, মা ও শিশু স্বাস্থ্য পরিচর্যা কেন্দ্র, কিডনি রোগ চিকিৎসা কেন্দ্র, দুর্ঘটনা ও জরুরি বিভাগ এবং ১০০ শয্যার আইসিইউ। থাকছে ১০০ শয্যার জরুরি বিভাগও। থাকছে স্ট্রোক সেন্টার, এনআইসিইউ, পিআইসিইউসহ অন্যান্য সুবিধাও।

নতুন এই সুপার হাসপাতালে চিকিৎসা খরচ কেমন হবে জানতে চাইলে শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বর্তমান হাসপাতালের সঙ্গে খুব একটা তারতম্য হবে না- খরচ একই রকম হবে। মূল কথা, এখানে সবার জন্য চিকিৎসাব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

 কবে নাগাদ এই হাসপাতাল চালু হবে জানতে চাইলে শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, হাসপাতালের জন্য আনা কিছু যন্ত্রপাতি এখনো বন্দরে রয়েছে, করোনার কারণে আসতে দেরি হয়েছে। তবে আগামী এক মাসের মধ্যে সীমিত পরিসরে রোগী ভর্তি শুরু হবে আর আগামী তিন মাসের মধ্যে পুরোদমে হাসপাতাল চলবে।


সাজেদা চৌধুরীর আসনে উপনির্বাচন ৫ নভেম্বর

সাজেদা চৌধুরীর আসনে উপনির্বাচন ৫ নভেম্বর
সোমবার নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ছবি : সংগৃহীত
প্রতিবেদক, দৈনিক বাংলা
প্রকাশিত

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর প্রয়াত সদস্য ও সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর নির্বাচনী এলাকা ফরিদপুর-২ শূন্য আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৫ নভেম্বর।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) আজ সোমবার এই তফসিল ঘোষণা করেছে।

ইসি ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ১০ অক্টোবর, মনোনয়নপত্র বাছাই ১২ অক্টোবর ও প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৯ অক্টোবর। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়ের ১৩ থেকে ১৫ অক্টোবর এবং আপিল নিষ্পত্তি ১৬ থেকে ১৮ অক্টোবর।

ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এই আসনে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে বলে নির্বাচন কমিশন সূত্র জানিয়েছে।

ফরিদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জাতীয় সংসদের উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী গত ১২ সেপ্টেম্বর রাতে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মারা গেছেন।

 


ট্রেন আসতেই লাইনে শুয়ে পড়েন নারী, অতঃপর…

ট্রেন আসতেই লাইনে শুয়ে পড়েন নারী, অতঃপর…
প্রতীকী ছবি
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
প্রকাশিত

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে শিরিনা বেগম (৫৩) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার উপজেলার বারইয়ারহাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিরিনা বেগম ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলার নিজকুঞ্জরা এলাকার নুরুল হুদার স্ত্রী।

সীতাকুণ্ড রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক জহিরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপপরিদর্শক জহিরুল বলেন, ‘রেলে কাটা পড়ে নারীর মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থল এসেছি। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছি, ঢাকাগামী চট্টলা এক্সপ্রেস যাওয়ার সময় হঠাৎ সামনে শুয়ে পড়েন ওই নারী। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে ওই নারীর পরিবার লাশ নিয়ে যায়।’


রমেক হাসপাতালে অব্যবস্থাপনা বন্ধের দাবি চিকিৎসকদের

রমেক হাসপাতালে অব্যবস্থাপনা বন্ধের দাবি চিকিৎসকদের
রমেক হাসপাতালে অনিয়ম বন্ধের দাবিতে মানববন্ধনে চিকিৎসকরা। ছবি: দৈনিক বাংলা
রংপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত

রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালের নানা অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন খোদ হাসপাতালটির চিকিৎসকরা। চিকিৎসাসেবা স্বাভাবিক রাখতে হাসপাতাল থেকে অসাধু চক্রকে বিতাড়িত ও চক্রের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা cbWfv দাবি জানিয়েছেন তারা।

আজ সোমবার দুপুরে হাসপাতাল চত্বরে ‘রংপুরের সম্মিলিত চিকিৎসক সমাজ’ এর ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে তারা এ দাবি জানান।

এর আগে এসব অনিয়মের কথা উল্লেখ করে গত ১৮ সেপ্টেম্বর হাসপাতালের পরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন হাসপাতালের অর্থো সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক এবিএম রাশেদুল আমীর।

মানববন্ধনে রমেকের অধ্যক্ষ ডা. বিমল চন্দ্র রায় বলেন, এখানে এতো অনিয়ম হচ্ছে যে, আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। এ কারণে রাস্তায় নেমেছি। দ্রুত হাসপাতালের অনিয়ম-দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনা বন্ধ হোক। এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ যথাযথ পদক্ষেপ না নিলে আমরা কঠোর কর্মসূচিতে যাব।

এ সময় বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়শেনের নেতা ডা. মামুনুর রশীদ বলেন, হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে শুরু করে ওয়ার্ড পর্যন্ত পদে পদে টাকা দিতে হচ্ছে। এখানে রোগী নিয়ে আসলে ভোগান্তির শেষ থাকে না।

মামুনুর রশীদ আরও বলেন, দুর্নীতিবাজদের কোনো দল নেই, সমাজ নেই। রংপুরের সব স্তরের মানুষকে আহ্বান করছি, হাসপাতালের অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।

রংপুর মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. নুরুন্নবী লাইজু বলেন, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসা ব্যবস্থা একটি অসাধু সিন্ডিকেটের হাতে জিম্মি। এখানে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনদের চরম হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে। এখানে কেউ মারা গেলে ওই চক্রকে টাকা দিতে হয়, তা না হলে হয়রানির শিকার হতে হয়। এই অব্যবস্থাপনা বন্ধ করতে হবে।

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন, রংপুর মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মাহফুজার রহমান ও বিএমএ’র সহ-সভাপতি ডা. দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।


পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
প্রতীকী ছবি
খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি
প্রকাশিত

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় পুকুরে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার সকালে দীঘিনালার কবাখালী ইউনিয়নের মুসলিম পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, মুসলিমপাড়ার কামাল হোসেনের ছেলে ফারহান হোসেন (২) ও নুর আলমের মেয়ে নুসরাত জাহান (২)। নিহতরা সম্পর্কে চাচা-ভাতিজি।

কবাখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নলেজ চাকমা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকালে বাড়ির পাশে পুকুর পাড়ে দুই শিশু বসেছিল। কিছুক্ষণ পরে তাদের দেখতে না পেয়ে স্বজনরা খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে পুকুরে তাদের মরদেহ ভাসতে দেখেন। পরে উদ্ধার করে দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. প্রমেশ চাকমা জানান, হাসপাতালে আনার আগে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে।


অনিয়মের অভিযোগ, মেয়রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি

অনিয়মের অভিযোগ, মেয়রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি
পৌরসভার মেয়র ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবিতে মানববন্ধন।
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
প্রকাশিত

ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু পৌরসভার মেয়র ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন পৌরসভার কাউন্সিলর ও পৌরবাসীদের অনেকেই। এই অভিযোগের তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন তারা। আজ সোমবার সকালে উপজেলা শহরের দোয়েল চত্বরে আয়োজিত মানববন্ধনে এই দাবি জানানো হয়।

ঘণ্টাব্যাপী চলা এ মানববন্ধনে ব্যানার, লিফলেট, ফেসটুন ও প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশ নেন। এ সময় পৌরসভার সাবেক মেয়র শাহীনুর রমান রিন্টু, বর্তমান কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন ও আবু আহসান রনুসহ অনেকেই বক্তব্য দেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বর্তমান মেয়র ফারুক হোসেন পৌরসভায় অবৈধভাবে নিয়োগ-বাণিজ্য করছেন। এ ছাড়া পৌরবাসী জন্ম নিবন্ধন করতে গেলে নির্ধারিত ফি থেকে কয়েকগুণ বেশি টাকা আদায় করা হচ্ছে। যার রশিদও আছে। পৌরবাসী নাগরিক সেবা নিতে গেলে বিভিন্ন অনিয়ম করছে মেয়র। এ সময় মেয়রের এমন কর্মকাণ্ডের তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তারা।